বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > জৈববলয়ে থাকতে থাকতে ক্লান্ত লাগে, মনে প্রভাব পড়ে, হারের পর প্রতিক্রিয়া বুমরাহর
ভারতীয় দলের অনুশীলনে জসপ্রীত বুমরাহ (ছবি:এএনআই) (ANI)
ভারতীয় দলের অনুশীলনে জসপ্রীত বুমরাহ (ছবি:এএনআই) (ANI)

জৈববলয়ে থাকতে থাকতে ক্লান্ত লাগে, মনে প্রভাব পড়ে, হারের পর প্রতিক্রিয়া বুমরাহর

বুমরাহ বলেন, ‘অবশ্যই মাঝে মাঝে আপনার বিরতির প্রয়োজন হয়। আপনি আপনার পরিবারকে মিস করেন। ছয় মাস ধরে একটানা খেলছেন। তাই মনের উপর কোথাও প্রভাব ফেলে।’ 

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে টানা দ্বিতীয় হারের মুখোমুখি হল টিম ইন্ডিয়া। চলতি টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে হারের পর রবিবার নিউজিল্যান্ডের কাছে পরাজিত হল টিম ইন্ডিয়া। এই হারের পর বিরাট অ্যান্ড কোম্পানির জন্য সেমিফাইনালে ওঠার রাস্তাটা খুব কঠিন হয়ে পড়েছে। এই ম্যাচে টিম ইন্ডিয়ার খেলোয়াড়দের বেশ ক্লান্ত দেখাচ্ছিল। ম্যাচের পরে সাংবাদিক সম্মেলনে এসে ভারতের পেস বোলার জসপ্রীত বুমরাহও সেই কথাটাই তুলে ধরেন। তিনি বলেন যে কখনও কখনও সকলের বিরতির দরকার হয়। এই মুহূর্তে শরীর ক্লান্ত এবং এখন বিশ্রামের প্রয়োজন।

রবিবার ম্যাচের পরে সাংবাদিক সম্মেলন করতে এসে বুমরাহ বলেছেন, ‘অবশ্যই মাঝে মাঝে আপনার বিরতির প্রয়োজন হয়। আপনি আপনার পরিবারকে মিস করেন। ছয় মাস ধরে একটানা খেলছেন। তাই মনের উপর কোথাও প্রভাব ফেলে, কিন্তু যখন আপনি মাঠে থাকেন, তখন আপনি এটি নিয়ে ভাবেন না। আপনি অনেক কিছু নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারবেন না। কে, কখন, কার সাথে খেলবে পুরো প্রোগ্রাম তৈরি করা হয়। এই কারণেই বায়ো বাবলে থাকা এবং এত দিন আপনার পরিবার থেকে দূরে থাকা, এটি খেলোয়াড়ের মনকে প্রভাবিত করে।’

বুমরাহ অবশ্য বলেছেন যে বিসিসিআই খেলোয়াড়দের আরামদায়ক রাখতে অনেক চেষ্টা করেছে। তিনি বলেন, ‘তবে, বিসিসিআই খেলোয়াড়দের আরামদায়ক রাখার জন্য অনেক চেষ্টা করেছে। এই সময়ে আমরা যে ভাবে থাকছি তা খুবই কঠিন। অতিমারী চলছে। আমরা মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছি কিন্তু বায়ো বাবলের ক্লান্তি, মানসিক অবসাদ প্রভাবিত করে। আপনি একই জিনিস বারবার করেন। এটা এই মত হয়. আপনি এখানে খুব বেশি নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন না।’

বুমরাহ এদিনের ম্যাচের হারের কারণ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে আরও বলেন, ‘একবার টস হেরে গেলে দ্বিতীয় ইনিংসে উইকেট বদলে যায়। তাই আমি ভেবেছিলাম বোলারদের কিছুটা সুযোগ দেওয়া উচিত। ব্যাটসম্যানদের নিয়েও একই আলোচনা চলছিল। আমরা একটু তাড়াতাড়ি আক্রমণাত্মক হয়েছিলাম এবং বড় বাউন্ডারি হাঁকানোর ​​কারণে কিছুটা সমস্যা হয়েছিল। ধীরগতির বলের চমৎকার ব্যবহার করেন তিনি। তিনি দুর্দান্তভাবে উইকেট ব্যবহার করেছেন এবং আমাদের ব্যাটারদের জন্য বড় শট মারা কঠিন করে দিয়েছেন। সিঙ্গেলসও আসছিল না।’

বন্ধ করুন