বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > BLM - বর্ণবিদ্বেষের বিরুদ্ধে হাঁটু গেড়ে প্রতিবাদ এড়াতেই খেলেননি ডি'কক: কার্তিক
ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে নিজেই খেলতে রাজি হননি কুইন্টন ডি'কক।
ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে নিজেই খেলতে রাজি হননি কুইন্টন ডি'কক।

BLM - বর্ণবিদ্বেষের বিরুদ্ধে হাঁটু গেড়ে প্রতিবাদ এড়াতেই খেলেননি ডি'কক: কার্তিক

  • অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার সব ক্রিকেটারই হাঁটুগেড়ে বসে বর্ণবৈষম্যের বিরুদ্ধে বার্তা দেননি। অনেকেই দাঁড়িয়েছিলেন, যাঁদের মধ্যে অন্যতম হলেন ডি'কক।

মঙ্গলবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের গুরুত্বপূর্ণ সুপার-টুয়েলভ ম্যাচে কুইন্টন ডি'কক প্রথম একাদশে না থাকার খবরে অনেকেই অবাক হয়েছিলেন। পরে দক্ষিণ আফ্রিকার  অধিনায়ক টেম্বা বাভুমা টসের সময়ে জানান, তিনি নিজে থেকেই নাকি ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে খেলতে চাননি। ডি'ককের জায়গায় খেলানো হচ্ছে রেজা হেন্ডরিকসকে। কিন্তু প্রশ্ন উঠেছে, হঠাৎ কী এমন ঘটল যে ডি'কক খেলতে রাজি হলেন না? 

বাভুমা বলেছেন, ‘কুইন্টন খেলছে না। তার বদলে রেজা খেলছে। ব্যক্তিগত কারণে ও নিজেই খেলতে চায়নি।’ প্রসঙ্গত টসে জিতে বাভুমা প্রথমে ফিল্ডিং নিয়েছেন। এই ম্যাচে একটি পরিবর্তন করা হয়েছে। সেটাও কুইন্টন ডি'কক না খেলার জন্য। বাকি অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে যে দল খেলেছিল, সেই দলই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে খেলছে।

আসলে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ থেকে কুইন্টন ডি'কক ব্যক্তিগত কারণে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন, এটা জানার পরেই শুরু হয়ে যায় জল্পনা। অনেকেরই ধারণা, এর পিছনে রয়েছে ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার মুভমেন্ট বা বর্ণবিদ্বেষের বিরুদ্ধে আন্দোলন নিয়ে প্রোটিয়া উইকেটকিপারের ব্যক্তিগত অবস্থান। দীনেশ কার্তিক যেমন টুইটারে দাবি করেছেন, ‘বর্ণবিদ্বেষের বিরুদ্ধে আন্দোলনে যোগ না দিতেই খেলেননি কুইন্টন ডি'কক।’

আসলে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার সব ক্রিকেটারই হাঁটুগেড়ে বসে বর্ণবৈষম্যের বিরুদ্ধে বার্তা দেননি। অনেকেই দাঁড়িয়েছিলেন, যাঁদের মধ্যে অন্যতম হলেন ডি'কক। এ বার ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচের আগে দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ডের তরফে জাতীয় দলের কাছে নির্দেশ আসে, দলের সব ক্রিকেটারকে হাঁটু মুড়ে বসতে হবে। বোর্ডের এই নির্দেশের জন্যই কি ডি'কক মাঠে নামলেন না বলেই মনে করা হচ্ছে।

বন্ধ করুন