বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > Rahul Dravid on Foreign Leagues: বিদেশি T20 লিগে খেললে ভারতীয়দের লাভ হবে, তবে টেস্ট ক্রিকেট শেষ হয়ে যাবে: রাহুল

Rahul Dravid on Foreign Leagues: বিদেশি T20 লিগে খেললে ভারতীয়দের লাভ হবে, তবে টেস্ট ক্রিকেট শেষ হয়ে যাবে: রাহুল

রাহুল দ্রাবিড়। (ফাইল ছবি, সৌজন্যে পিটিআই)

Rahul Dravid on Foreign Leagues: টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে হারের পর ভারতীয় কোচ রাহুল দ্রাবিড় বলেন, ‘ভারতীয় খেলোয়াড়দের ওইসব লিগে খেলতে দিলে আমাদের ঘরোয়া ক্রিকেট বলে কিছু থাকবে না। আমাদের ঘরোয়া ক্রিকেট, রঞ্জি ট্রফি শেষ হয়ে যাবে। যেটার অর্থ হল যে টেস্ট ক্রিকেট শেষ হয়ে যাবে।’

বিভিন্ন বিদেশি টি-টোয়েন্টি লিগে খেলার সুবিধা পেয়েছে ইংল্যান্ড। এমনই মনে করছেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের হেড কোচ রাহুল দ্রাবিড়। তবে দ্রাবিড়ের মতে, ভারতীয় খেলোয়াড়দের সেইসব লিগে খেলতে দেওয়া হলে রঞ্জি ট্রফির মতো ঘরোয়া ক্রিকেট টুর্নামেন্ট ধাক্কা খাবে। তাতে টেস্ট ক্রিকেটের ভয়ঙ্কর ক্ষতি হয়ে যেতে পারে।

বৃহস্পতিবার অ্যাডিলেডে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভারতের লজ্জাজনক হারের পর সাংবাদিক বৈঠকে আসেন দ্রাবিড়। বিদেশি টি-টোয়েন্টি লিগে খেলার সুযোগ না পাওয়ায় ভারতীয় ক্রিকেটাররা পিছিয়ে পড়ছেন কিনা, তা নিয়ে প্রশ্ন করেন এক সাংবাদিক। ওই সাংবাদিক জানতে চান যে বিগ ব্যাশ লিগের (অস্ট্রেলিয়ার ফ্র্যাঞ্চাইজি টি-টোয়েন্টি লিগ) মতো টুর্নামেন্টে খেলায় ইংরেজ খেলোয়াড়রা বাড়তি সুবিধা পেয়েছেন কিনা।

সেই প্রশ্নের জবাবে দ্রাবিড় বলেন, ‘হ্যাঁ। নিশ্চয়ই। সেটা নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই যে ইংল্যান্ডের অনেক ক্রিকেটার এখানে এসে ওই টুর্নামেন্টে (বিগ ব্যাশ লিগ) খেলেন। সেটা (মাঠে) দেখা গিয়েছে। এটা কঠিন। ভারতীয় ক্রিকেটের জন্য এটা কঠিন। কারণ এরকম টুর্নামেন্টগুলি আমাদের ঘরোয়া মরশুমের মধ্যেই হয়। এটা আমাদের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ। এইসব লিগে খেলার সুযোগ হাতছাড়া হয় আমাদের ছেলেদের। কিন্তু সেটা নিয়ে সিদ্ধান্ত নেবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)।’

সেই প্রসঙ্গে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কথা টেনে আনেন দ্রাবিড়। তিনি জানান, ভারতীয়দের যদি বিদেশি টি-টোয়েন্টি লিগে খেলার অনুমতি দেওয়া হয়, তাহলে দেশে টেস্ট ক্রিকেটের যে তৃণমূল স্তরটাই (রঞ্জি ট্রফি) শেষ হয়ে যাবে। তার ফলে ভারতে পুরোপুরি শেষ হয়ে যাবে টেস্ট ক্রিকেট। টেস্ট খেলার মতো খেলোয়াড় তৈরি হবে না। স্বভাবতই জাতীয় দলের ‘সাপ্লাই লাইন’ বন্ধ হয়ে গেলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে মুখ থুবড়ে পড়তে হবে।

ভারতীয় দলের হেড কোচ বলেন, ‘এই লিগগুলি আমাদের ঘরোয়া ক্রিকেট মরশুমের সময় হয়। ভারতীয় খেলোয়াড়দের জন্য (ওইসব লিগে) এত চাহিদা থাকবে যে সব ভারতীয় খেলোয়াড়দের ওইসব লিগে খেলতে দিলে আমাদের ঘরোয়া ক্রিকেট বলে কিছু থাকবে না। আমাদের ঘরোয়া ক্রিকেট, রঞ্জি ট্রফি শেষ হয়ে যাবে। যেটার অর্থ হল যে টেস্ট ক্রিকেট শেষ হয়ে যাবে। আমি জানি যে এটা নিয়ে অনেকে কথা বলেন। কিন্তু আমাদের সতর্ক থাকতে হবে। আমাদের বুঝতে হবে যে কী কী সমস্যা তৈরি হতে পারে।' 

আরও পড়ুন: IND vs ENG: T20I-তে ৪,০০০ রান করে ফেললেন কোহলি, গড়লেন বিশ্বরেকর্ড

দ্রাবিড় আরও বলেন, 'আমাদের ঘরোয়া মরশুমের ঠিক মাঝে আমাদের ছেলেদের টি-টোয়েন্টি লিগ খেলতে হলে (ভয়ঙ্কর পরিণতি হতে পারে)। তার ফলে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটে কী হয়েছে, সেটা আমরা দেখেছি। আমি একেবারেই চাই না যে ভারতীয় ক্রিকেটও ওইদিকে অগ্রসর হোক। (বিদেশি টি-টোয়েন্টি লিগে ভারতীয়দের খেলতে দিলে) নিশ্চিতভাবে আমাদের রঞ্জি ট্রফি, আমাদের টেস্ট ক্রিকেট প্রভাবিত হবে। টেস্ট ক্রিকেটের জন্য ভারতীয়দের টেস্ট চালিয়ে যাওয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।’

আরও পড়ুন: IND vs ENG Semi-Final: মুখে সাহসী বলে ভীতু ব্যাটিং, ভয়ানক বোলিং- কোন ৭ কারণে থেকে ছিটকে গেল ভারত?

এমনিতে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ ভারতীয় ক্রিকেটাররা বিদেশি টি-টোয়েন্টি লিগে খেলতে যেতে পারেন না। একাধিক মহলের দাবি, আইপিএলের যাতে চাহিদা পড়ে না যায়, সেজন্য ভারতীয় তারকাদের বিদেশি লিগে (ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ, বিবিএল, বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ, দক্ষিণ আফ্রিকা টি-টোয়েন্টি লিগ, দ্য হান্ড্রেড) ছাড়া হয় না।

বন্ধ করুন