বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > বিয়ে নয়, ক্রিকেটে আর বিশ্বকাপে ফোকাস করতে চান রশিদ খান
আফগানিস্তানের তারকা স্পিনার রশিদ খান (ছবি:গেটি ইমেজ)
আফগানিস্তানের তারকা স্পিনার রশিদ খান (ছবি:গেটি ইমেজ)

বিয়ে নয়, ক্রিকেটে আর বিশ্বকাপে ফোকাস করতে চান রশিদ খান

  • অনেকেই মনে করছেন রশিদ খানের বোলিংয়ের সামনে সমস্যায় পড়তে পারেন বিপক্ষের ব্যাটাররা। এমন প্রেক্ষাপটে দাঁড়িয়ে রশিদের ঘোষণা তার একমাত্র লক্ষ্য বিশ্বকাপ। বিয়ে নিয়ে তিনি এই মুহূর্তে কোন ভাবনা চিন্তা করছেন না‌।

শুভব্রত মুখার্জি: চলতি টি-২০ বিশ্বকাপে আফগানিস্তান ক্রিকেট দলের অন্যতম আশা ভরসার জায়গা তাদের তরুণ লেগ স্পিনার রশিদ খান। সারা বিশ্বের বিভিন্ন ফ্রাঞ্চাইজি লিগে তিনি যথেষ্ট দাপটের সঙ্গে খেলছেন। তার উপর আমিরশাহির উইকেটও স্পিন সহায়ক হবে বলেই বিশেষজ্ঞদের ধারণা। সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে অনেকেই মনে করছেন রশিদ খানের বোলিংয়ের সামনে সমস্যায় পড়তে পারেন বিপক্ষের ব্যাটাররা। এমন প্রেক্ষাপটে দাঁড়িয়ে রশিদের ঘোষণা তার একমাত্র লক্ষ্য বিশ্বকাপ। বিয়ে নিয়ে তিনি এই মুহূর্তে কোন ভাবনা চিন্তা করছেন না‌।

২৩ বছর বয়সী স্পিনারের ঘোষণা এই মুহূর্তে দাঁড়িয়ে তার মাথায় একটাই ভাবনা রয়েছে তা হল টি-২০ বিশ্বকাপ। দেশে তালিবানদের অভ্যুথানের পরে অনেকের মত, রশিদদের বিশ্বকাপের ফল দেশের মানুষের জন্য কিছুটা স্বস্তির খবর বয়ে আনতে পারে। এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে রশিদের স্পষ্ট বক্তব্য তার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে মিডিয়াতে চলা জল্পনা, তার বিশ্বকাপ নিয়ে ভাবনার উপর কোনও প্রভাব ফেলবে না।

তিনি মিডিয়ার একটি দাবি অস্বীকার করে জানান ‘আমি কখনও এমন কথা বলিনি যে আফগানিস্তান বিশ্বকাপ জিতলে তবেই আমি বিয়ে করব। এই ঘটনাটা শুনে আমি স্তম্ভিত হয়ে গেছিলাম। আমা কখনও এমন ধরনের হাল্কা কথাবার্তা বলিনা।’ উল্লেখ্য আফগানিস্তানের পূর্বে নানাঘর বলে একটি জায়গায় রশিদের পরিবারের বাস।

তিনি আরও যোগ করেন আমি বলেছিলাম ‘পরবর্তী কয়েক বছরে আমি ক্রিকেট খেলাটার প্রতি নজর দেব। কারণ আমার সামনে আর মাত্র কয়েক বছরের ক্রিকেট বাকি রয়েছে। আমার সামনে তিনটি বিশ্বকাপ রয়েছে। ২০২১ এবং ২০২২ সালের টি-২০ বিশ্বকাপ। ২০২৩ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপ। তাই আমার ফোকাস ক্রিকেটেই থাকবে বিয়ে করাতে নয়।’

মাত্র ১৭ বছর বয়সে আফগানিস্তান দলের হয়ে রশিদের অভিষেক হয়েছিল। দেশের হয়ে তিনি ৫১ টি এবং ফ্রাঞ্চাইজি দলের হয়ে তিনি ইতিমধ্যেই ২৮০ টি-২০ ম্যাচ খেলে ফেলেছেন। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে মাত্র ১২.৬৩ গড়ে তিনি ইতিমধ্যেই ৯৫ টি উইকেট নিয়েছেন। ২০২০ সালে তিনি টি-২০ ফর্ম্যাটে আইসিসির বিচারে দশকের সেরা ক্রিকেটার নির্বাচিত হয়েছিলেন। তিনি আরও যোগ করেন ‘এই বিশ্বকাপ স্পিনারদের বিশ্বকাপ হতে চলেছে। এখানকার উইকেট স্পিন সহায়ক। সেই কারণেই প্রায় প্রতি দলেই একাধিক স্পিনার রয়েছেন। তবে আইপিএল চলাকালীন আমি খেয়াল করেছি উইকেট গুলো ব্যাটিং সহায়ক ছিল। খুব বেশি বল স্পিন করেনি।’

বন্ধ করুন