বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > এই 'অপয়া' আম্পায়ারের খেলানো ICC-র ৫ নক-আউট ম্যাচে হার ভারতের, আজও থাকবেন তিনি!
২০১৯ সালের বিশ্বকাপে ধোনির রান-আউটের সময় কে আম্পায়ার ছিলেন, মনে আছে? (ছবি সৌজন্য টুইটার)
২০১৯ সালের বিশ্বকাপে ধোনির রান-আউটের সময় কে আম্পায়ার ছিলেন, মনে আছে? (ছবি সৌজন্য টুইটার)

এই 'অপয়া' আম্পায়ারের খেলানো ICC-র ৫ নক-আউট ম্যাচে হার ভারতের, আজও থাকবেন তিনি!

আইসিসি আয়োজিত একাধিক টুর্নামেন্টের ভারতের কমপক্ষে পাঁচটি নক-আউট ম্যাচে অনফিল্ড আম্পায়ার ছিলেন তিনিই।

২০১৪ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনাল - ছ'উইকেটে হার। ২০১৫ সালের বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল - ৯৫ রানে পরাজয়। ২০১৬ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল - সাত উইকেটে হার। ২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনাল - ১৮০ রানে পরাজয়। ২০১৯ সালের বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল - ১৮ রানে হার।

আইসিসি আয়োজিত একাধিক টুর্নামেন্টের ভারতের কমপক্ষে পাঁচটি নক-আউট ম্যাচে অনফিল্ড আম্পায়ার ছিলেন ইংল্যান্ড রিচার্ড কেটেলবরো। যে ম্যাচগুলিতে হেরে গিয়ে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে গিয়েছে ভারত। রবিবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারত-নিউজিল্যান্ডের ‘কোয়ার্টার ফাইনাল’ ম্যাচেও আম্পায়ার থাকবেন সেই কেটেলবরো। যা নিয়ে মজাদার টুইট করলেন প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার ওয়াসিম জাফর। 

রবিবার টুইটারে একটি ছবি পোস্ট করে জাফর লেখেন, ‘ভারতীয় সমর্থকদের হলোউইনের শুভেচ্ছা।’ সঙ্গে ছবিতে আজ ভারত-নিউজিল্যান্ড ম্যাচের আম্পায়ারদের তালিকা লেখা হয়েছে। তাতে কেটেলবরোর নাম চিহ্নিত করে দিয়েছেন জাফর। ছবিতে বালক-বালিকাকে কাঁদতে দেখা গিয়েছে। সঙ্গে লেখা আছে, ‘আমায় ক্ষমা করে দেবেন ওম সাই রাম।’ যে টুইট ভাইরাল হয়ে গিয়েছে।

এমনিতে রবিবার দুবাইয়ে কার্যত কোয়ার্টার ফাইনাল খেলতে নামছে ভারত এবং নিউজিল্যান্ড। আপাতত সুপার ১২-এর গ্রুপ ‘২’-এর যা পরিস্থিতি, তাতে সেমিফাইনালে কার্যত উঠে গিয়েছে পাকিস্তান। নিয়ম মোতাবেক বাকি পাঁচটি দল একটি স্থানের জন্য লড়াই করবে। ধারেভারে লড়াইটা মূলত হবে নিউজিল্যান্ড এবং ভারতের মধ্যে। সেই ম্যাচে যদি ভারত জিতে যায়, তাহলে সেমিফাইনালে পাকিস্তানের সঙ্গী হওয়ার সম্ভাবনা বেশি বিরাট কোহলিদের। কারণ ধারেভারে আফগানিস্তান, নামিবিয়া এবং স্কটল্যান্ডের বিরুদ্ধে জিতে যাওয়ার কথা ভারতের। নিউজিল্যান্ড সেক্ষেত্রে ভারতের বিরুদ্ধে হারলে কার্যত টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে যাবে।

বন্ধ করুন