বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > আফগানদের বিরুদ্ধে শুরু থেকে আক্রমণাত্মক মেজাজে থাকার কারণ ব্যাখ্যা করলেন রোহিত
রোহিত শর্মা। ছবি: পিটিআই
রোহিত শর্মা। ছবি: পিটিআই

আফগানদের বিরুদ্ধে শুরু থেকে আক্রমণাত্মক মেজাজে থাকার কারণ ব্যাখ্যা করলেন রোহিত

  • আফগানদের বিরুদ্ধে ভারতের দুই ওপেনার শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক মেজাজে ছিলেন। রোহিত এ দিন করেন ৭৪ রান। ৬৯ রানের ইনিংস খেলে তাকে যোগ্য সঙ্গত দেন রাহুল। পরবর্তীতে ঋষভ পন্তের ২৭* এবং হার্দিক পান্ডিয়ার ৩৫*-এর ঝোড়ো ইনিংসে ভর করে ভারত ২১০ রান করতে সমর্থ হয়।

শুভব্রত মুখার্জি: বুধবার রাতে আবু ধাবিতে অবশেষে চলতি টি-২০ বিশ্বকাপে জয়ের মুখ দেখেছে ভারতীয় দল। আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে ৬৬ রানের বড় জয় তুলে নিয়েছে তারা। তবে নিজেদের প্রথম দু'টি ম্যাচে পাকিস্তান এবং নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে হেরে যাওয়া বিরাট কোহলিদের সেমিফাইনালে পৌঁছানো অঙ্কের হিসেব এখনও যথেষ্ট কঠিন। তবুও আফগানদের বিরুদ্ধে বড় জয়টা কতটা প্রয়োজনীয় ছিল, তা বোঝা গেল সহ অধিনায়ক রোহিত শর্মার কথাতেই। আর সেই কারণেই আক্রমণাত্মক ইনিংসটি খেলা বলে জানালেন রোহিত।

উল্লেখ্য এ দিন ভারতের দুই ওপেনার শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক মেজাজে ছিলেন। রোহিত এ দিন করেন ৭৪ রান। ৬৯ রানের ইনিংস খেলে তাকে যোগ্য সঙ্গত দেন রাহুল। পরবর্তীতে ঋষভ পন্তের ২৭* এবং হার্দিক পান্ডিয়ার ৩৫*-এর ঝোড়ো ইনিংসে ভর করে ভারত ২১০ রান করতে সমর্থ হয়। জবাবে ৭ উইকেটে ১৪৪ রান করে আফগানিস্তান। অর্থাৎ ৬৬ রানের বড় ব্যবধানে জয় ছিনিয়ে নেন বিরাটরা।

উল্লেখ্য এই ম্যাচে আফগানদের বিরুদ্ধে জেতার পাশাপাশি ভারতের নেট রান বাড়িয়ে নেওয়াটাও জরুরি ছিল। সেটা কিছুটা হলেও চেষ্টা করেছিলেন রোহিত। তিনি বলেন, ‘পরিকল্পনা ছিল প্রথম থেকেই আক্রমণাত্মক খেলা। ভাল শুরু করাটা জরুরি ছিল। যেটা প্রথম দুই ম্যাচে একেবারেই হয়নি। রাহুল অনবদ্য ব্যাট করেছে। পার্টনারশিপটা খুব জরুরি ছিল। আমরা প্রথমে ফিল্ডিং করার জন্যও প্রস্তুত ছিলাম। পিচ ব্যাটিং সহায়ক ছিল। সম্মানজনক রান করাটা জরুরি ছিল।নেট রানরেট পরবর্তীতে কাজে আসতে ফলে আমাদের বড় ব্যবধানে জয়টা প্রয়োজনীয় ছিল। আমি খুব খুশি যে সেটা আমরা করতে পেরেছি এবং এই কারণেই প্রথম থেকে আমরা আক্রমণাত্মক খেলেছি। ভাল শুরু করাটা জরুরি ছিল। প্রথম থেকেই অ্যাটাক করাটাও আমার স্বাভাবিক খেলা নয়। আমি একটু সেট হয়ে তবেই মারতে পছন্দ করি। সেই কারণে আমি সেট হতে জোর দিয়েছি। তার পর ক্রিকেটীয় শট খেলে স্কোরবোর্ডে বড় রান তুলতে মনোযোগী হই।’

বন্ধ করুন