বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > কন্ডোম পরেনি গুণতিলকা, বারবার মুখ চেপে ধরেছিল মহিলার, উঠে এল অভিযোগ

কন্ডোম পরেনি গুণতিলকা, বারবার মুখ চেপে ধরেছিল মহিলার, উঠে এল অভিযোগ

দানুষ্কা গুণতিলকা।

সোমবার সিডনির আদলতে লঙ্কার বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান ভিডিয়ো মাধ্যমে ম্যাজিস্ট্রেটের সামনে হাজিরা দিয়েছিলেন। কিন্তু তাঁর জামিনের আবেদন খারিজ করে দেন আদালত। তাঁর দোষ প্রমাণিত হলে সর্বোচ্চ ১৪ ​​বছরের জেল হতে পারে।

শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটার দানুষ্কা গুণতিলকার বিরুদ্ধে এক মহিলাকে একাধিক বার ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। পাশাপাশি বড় অভিযোগ, সেই মহিলাক মুখ চেপে শ্বাসরোধ করারও অভিযোগ উঠেছে। স্থানীয় মিডিয়া বুধবার আদালতের নথিপত্র উদ্ধৃত করে এ কথা জানিয়েছে।

সেই মহিলা অভিযোগ করেছেন যে, শ্রীলঙ্কার তারকা প্লেয়ার দানুষ্কা গুণতিলকার সঙ্গে ডেটিং অ্যাপে যোগাযোগ হয় তাঁর। ২ নভেম্বর সিডনির অপেরা হাউসের কাছে একটি জনপ্রিয় বারে সাক্ষাৎ করেছিলেন তাঁরা। পরে অভিযোগকারিনী রোজ বে-তে নিজের বাড়িতে নিয়ে যান গুণতিলকাকে। এবং সেখানে মদ্যপানের পর চার বার বিনা অনুমতিতে সেই মহিলার সঙ্গে জোর করে যৌনসঙ্গম করেন গুণতিলকা।

এমন কী সেই মহিলা জানিয়েছেন, মাটিতে একটি কন্ডোম পড়েছিল। সেটা দেখতে পেয়ে মহিলা তাঁকে কন্ডোম ব্যবহার করতে বললেও, গুণতিলকা সে কথায় কর্ণপাত করেননি। বরং সজোরে মুখ, গলা চেপে ধরেন। এতে শ্বাসরোধ হয়ে আসছিল মহিলার।

আরও পড়ুন: দনুষ্কা-কাণ্ডে কমিটি গঠন লঙ্কা বোর্ডের, ধর্ষণের অভিযোগের আগেও হয়েছেন নির্বাসিত

প্রসঙ্গত টি-২০ বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কার ১৫ সদস্যের স্কোয়াডে ছিলেন দানুষ্কা। তিনি নামিবিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম রাউন্ডের ম্যাচও খেলেন। কিন্তু চোটের জন্য বাকি বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যান।

সিডনি পুলিশ পরে ৩১ বছরের লঙ্কার তারকা প্লেয়ারকে টিম হোটেল থেকে গ্রেপ্তার করে। যে কারণে শ্রীলঙ্কা দলের অন্যান্য ক্রিকেটাররা সুপার টুয়েলভ পর্ব থেকে বাদ পড়ার পরে দেশে ফিরে আসলেও, অস্ট্রেলিয়াতেই রয়ে গিয়েছেন দানুষ্কা গুণতিলকা।

সোমবার সিডনির আদলতে লঙ্কার বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান ভিডিয়ো মাধ্যমে ম্যাজিস্ট্রেটের সামনে হাজিরা দিয়েছিলেন। কিন্তু তাঁর জামিনের আবেদন খারিজ করে দেন আদালত। তাঁর দোষ প্রমাণিত হলে সর্বোচ্চ ১৪ ​​বছরের জেল হতে পারে।

আরও পড়ুন: যৌন হেনস্থার গুরুতর অভিযোগ, টিম হোটেল থেকেই গ্রেফতার শ্রীলঙ্কার তারকা ক্রিকেটার

চার বারের ধর্ষণের অভিযোগের পাশাপাশি অস্ট্রেলিয়ার ওই মহিলা জানিয়েছেন, এত জোড়ে তাঁর মুখ, গলা টিপে ধরেছিলেন লঙ্কার তারকা ক্রিকেটার যে, তাঁকে ব্রেন স্ক্যান করাতে হয়েছিল চোটের বিষয়ে জানার জন্য।

অস্ট্রেলিয়ার মিডিয়া পুলিশের নথির উদ্ধৃতি দিয়ে বলেছে, ‘সেই মহিলা অভিযুক্তের হাত ধরে সরানোর চেষ্টা করেছিলেন কিন্তু গুণতিলকা মহিলার গলা আরও জোরে চেপে ধরেছিলেন। ফলে সেই মহিলা নিজের জীবন হারানোর ভয় পেয়েছিলেন এবং তিনি লঙ্কান ক্রিকেটারের খপ্পর থেকে পালাতে পারেননি।’

অজি মিডিয়ার তরফে যোগ করা হয়েছে, ‘সেই মহিলা বারবার অভিযুক্তের খপ্পর থেকে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিলেন। এটাই স্পষ্ট করে দেয় যে, তাঁর ইচ্ছেতে কোনও কিছুই ঘটেনি।’

এই বিষয়টিকে গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করেছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট (এসএলসি) বোর্ড। যে কারণে তারা দানুষ্কা গুণতিলকাকে সব ধরনের খেলা থেকে সাসপেন্ড করেছে। শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট বোর্ডের এক বিবৃতিতে জানানো হয়, ‘আইসিসি থেকে জানানো হয়েছে, একজন মহিলাকে ধর্ষণের অভিযোগে সিডনি পুলিশ আমাদের ক্রিকেটার দানুষ্কা গুণতিলকাকে গ্রেফতার করেছে। আমরা বিষয়টির দিকে নজর রাখছি। আইসিসির সঙ্গেও যোগাযোগ রেখে চলছি। আশা করছি সঠিক তদন্ত হবে। অভিযুক্ত যদি সত্যিই অপরাধ করে থাকে, তাহলে ওঁর উপযুক্ত শাস্তি কাম্য।’

বন্ধ করুন