বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > স্কটল্যান্ডকে বধ করতে মরিয়া ভারত, লড়াই ভুলে স্কটিশ অধিনায়ক শুধুই কোহলিতে বুঁদ
কাইল কোয়েটজার।
কাইল কোয়েটজার।

স্কটল্যান্ডকে বধ করতে মরিয়া ভারত, লড়াই ভুলে স্কটিশ অধিনায়ক শুধুই কোহলিতে বুঁদ

  • স্কটল্যান্ড ম্যাচ বিরাট কোহলিদের বিশাল বড় ব্যবধানে জিততে হবে। সেই ম্যাচে স্কটিশদের উড়িয়ে দিতে বদ্ধপরিকর কোহলি ব্রিগেড। তবে ২২ গজের লড়াই নিয়ে সম্ভবত বেশি ভাবছেন না স্কটল্যান্ডের অধিনায়ক কাইল কোয়েটজার। বরং তিনি কোহলিতে একেবারে ডুবে রয়েছেন। কোহলির সঙ্গে দেখা করার আনন্দেই আত্মহারা কোয়েটজার।

আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে জিতেও ভারত কিন্তু স্বস্তিতে নেই। তাদের লড়াই এখনও একই রকম কঠিন রয়েছে। এই পরিস্থিতিতে শুক্রবার স্কটল্যান্ডের মুখোমুখি হবে ভারত। এই ম্যাচ বিরাট কোহলিদের বিশাল বড় ব্যবধানে জিততে হবে। প্রতিটা ম্যাচই এখন কোহলিদের জন্য ডু ওর ডাই ম্যাচ। সেই ম্যাচে স্কটিশদের উড়িয়ে দিতে বদ্ধপরিকর কোহলি ব্রিগেড। তবে ২২ গজের লড়াই নিয়ে সম্ভবত বেশি ভাবছেন না স্কটল্যান্ডের অধিনায়ক কাইল কোয়েটজার। বরং তিনি কোহলিতে একেবারে ডুবে রয়েছেন। কোহলির সঙ্গে দেখা করার আনন্দেই আত্মহারা কোয়েটজার।

ম্যাচের আগে উচ্ছ্বসিত স্কটিশ অধিনায়ক বলেছেন, ‘বিরাট কোহলি এই খেলার অসাধারণ একজন অ্যাম্বাসেডর। ভারতের বিপক্ষে ম্যাচটি আমার জন্য খুবই স্পেশ্যাল। এখনও পর্যন্ত আমি ওর সাথে দেখা করার সুযোগ পাইনি। তাই সেই মুহুর্তের অপেক্ষায় রয়েছি।’

আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে জয়ের ফলে এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রথম পয়েন্ট পেল ভারত। সেইসঙ্গে ৬৬ রানের ব্যবধানে জয়ের ফলে নেট রানরেটও অনেকটা ভালো হয়েছে। আপাতত 'সুপার ১২'-এর 'গ্রুপ ২'-তে চতুর্থ স্থানে আছে ভারত। নেট রানরেট +০.০৭৩। দ্বিতীয় এবং তৃতীয় স্থানে আছে যথাক্রমে আফগানিস্তান এবং নিউজিল্যান্ড। আফগানদের ঝুলিতে চার ম্যাচে চার পয়েন্ট আছে। নেট রানরেট +১.৪৮১। সেখানে তিন ম্যাচে চার পয়েন্ট নিয়ে কিউয়িদের নেট রানরেট +০.৮১৬। ফলে সহজ অঙ্কে নিউজিল্যান্ড যদি নিজেদের বাকি দুটি ম্যাচ (নামিবিয়া এবং আফগানিস্তান) জিতে যায়, তাহলে আট পয়েন্টে পৌঁছে যাবে। তাহলে ভারতের সামনে কোনও সুযোগ থাকবে না। কারণ ভারতের আর দুটি ম্যাচ বাকি আছে। দুটি ম্যাচ জিতলেও ছয় পয়েন্টের বেশি হবে না।

সেই পরিস্থিতিতে ভারতকে আশা করতে হবে যে আফগানিস্তান বা নামিবিয়ার কাছে যেন হেরে যায় নিউজিল্যান্ড। সেক্ষেত্রে কিউয়িদেরও পয়েন্ট হবে ছয়। ভারতও ছয় পয়েন্টে (নামিবিয়া এবং স্কটল্যান্ডের বিরুদ্ধে জিতবে ধরে নিয়ে) থাকবে। আবার আফগানিস্তান যদি নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে জিতে যায়, তাহলে রশিদ খানদেরও পাঁচ ম্যাচে ছয় পয়েন্ট হবে। যে আফগানিস্তান-নিউজিল্যান্ড ম্যাচ হবে আগামী ৭ নভেম্বর। সেক্ষেত্রে নেট রানরেট অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হবে।

সেই পরিস্থিতিতে বুধবার আফগানিস্তানের জয়ের ফলে ভারতের তেমন যে মারাত্মক লাভ হল, সেটা নয়। তবে জয়ের ফলে সেমিফাইনালে যাওয়ার কিছুটা আশা বেঁচে থাকল। সেইসঙ্গে নেট রানরেট শুধরে নেওয়ার ফলে শেষলগ্নে কিছুটা লাভ হতে পারে। কারণ ভারতের সেমিফাইনালে যাওয়ার ক্ষেত্রে নেট রানরেট একটা বড় ফ্যাক্টর হতে চলেছে।

বন্ধ করুন