বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > ২.৫ বছরে ৩ ICC ‘নক-আউটে’ হারের ‘হিসাব বরাবর’ 'দু'পয়সার' সিরিজে! চটল নেটদুনিয়া
২০২১ সালের বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে হতাশ বিরাট। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে কিউয়িদের বিরুদ্ধে হারের পর বিরাট। (ছবি সৌজন্য রয়টার্স এবং এএনআই)
২০২১ সালের বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে হতাশ বিরাট। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে কিউয়িদের বিরুদ্ধে হারের পর বিরাট। (ছবি সৌজন্য রয়টার্স এবং এএনআই)

২.৫ বছরে ৩ ICC ‘নক-আউটে’ হারের ‘হিসাব বরাবর’ 'দু'পয়সার' সিরিজে! চটল নেটদুনিয়া

  • অনেকেই আবার কটাক্ষের সুরে বলেছেন, ‘বিশ্ব ক্রিকেটের সবথেকে বড় প্রতিযোগিতা।

আড়াই বছরে তিন আইসিসি টুর্নামেন্টের ‘নক-আউটে’ হারতে হয়েছে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে। সেই দলের বিরুদ্ধে ঘরের মাঠে ভারতের সিরিজ শুরুর আগে সরকারি সম্প্রচারকারীর ‘হিসাব বরাবর’ বিজ্ঞাপনে চটলেন নেটিজেনদের একাংশ। তাঁদের বক্তব্য, দ্বিপাক্ষিক ট্রফি দিয়ে তিন হারের জ্বালা মেটানো যাবে না মোটেও।

আগামী ১৭ নভেম্বর থেকে ঘরের মাঠে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে খেলবে ভারত। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মধ্যেই সেই সিরিজের বিজ্ঞাপন দেখাচ্ছে সরকারি সম্প্রচারকারী স্টার স্পোর্টস।সেই বিজ্ঞাপনে অবশ্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে হারের বিষয়টি নেই। তাতে দাবি করা হয়েছে, ২০১৯ সালের বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল এবং বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে জিতেছে নিউজিল্যান্ড। এবার ঘরের মাঠে ‘হিসাব বরাবর’ করবে ভারত। 

যদিও নেটিজেনদের একাংশের বক্তব্য, আড়াই বছরে তিন আইসিসি টুর্নামেন্টের ‘নক-আউট’ ম্যাচে হারের জ্বালা কিনা দ্বিপাক্ষিক সিরিজ মেটানো হবে! এক নেটিজেন বলেন, '২০১৯ সালের বিশ্বকাপ সেমিফাইনালে হেরে গেলাম। ২০২১ সালের বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে হেরে গেলাম। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের কার্যত নক-আউট ম্যাচে হেরে গেলাম। দু'পয়সার দ্বিপাক্ষিক সিরিজে হারিয়ে হিসাব বরাবর করব?' অপর এক নেটিজেন বলেন, 'আমরা দ্বিপাক্ষিক সিরিজে জিততে চাই না। আমরা আইসিসি টুর্নামেন্টে ম্যাচ জিততে চাই। এটাই হল বিষয়।' 

অনেকেই আবার কটাক্ষের সুরে বলেছেন, ‘বিশ্ব ক্রিকেটের সবথেকে বড় প্রতিযোগিতা। ফিরে এসেছে পেটিএম ট্রফি।' একইসুরে অপর একজন বলেন, ‘দুর্দান্ত! ২০১৯ সালের বিশ্বকাপ সেমিফাইনাল, ২০২১ সালের বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে হারের এটাই সঠিক প্রতিশোধ হবে। এবার মজা হবে। এই টুর্নামেন্টের গুরুত্বই সবথেকে বেশি। দীর্ঘ প্রতীক্ষিত দ্বিপাক্ষিক সিরিজ।’ কেউ কেউ আবার মনে করিয়ে দেন যে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে যে টেস্ট সিরিজ খেলবে ভারত, তা আদতে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অন্তর্গত। সেই যুক্তি অবশ্য ধোপে টেকেনি নেট দুনিয়ায়।

বন্ধ করুন