বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > Suryakumar Yadav's outrageous shot: 'এই শটটা কীভাবে সম্ভব!' শেষ ওভারে সূর্যের ছক্কায় হতবাক নেটপাড়া, ৪ বলে করলেন ১৮

Suryakumar Yadav's outrageous shot: 'এই শটটা কীভাবে সম্ভব!' শেষ ওভারে সূর্যের ছক্কায় হতবাক নেটপাড়া, ৪ বলে করলেন ১৮

এই শটটাও মারা যায়? আলাদা স্তরে অবস্থান করছেন সূর্যকুমার যাদব। (ছবি সৌজন্যে টুইটার)

Suryakumar Yadav's outrageous shot: সার্বিকভাবে ২৫ বলে ৬১ রানে অপরাজিত থাকেন সূর্যকুমার যাদব। অর্ধশতরান পূরণ করেন ২৩ বলে। শেষ ওভারেই চার বলে ১৮ রান করেন (ছয়, দুই, চার এবং ছয়)।

কীভাবে এই ছক্কাটা মারলেন? ১৯.৩ ওভারে সূর্যকুমার যাদবের শট দেখে হতবাক হয়ে গেলেন নেটিজেনরা। ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সূর্যের সেই শটের ছবি। সবমিলিয়ে শেষ ওভারে সূর্য চার বলে ১৮ রান করেন।

রবিবার জিম্বাবোয়ের বিরুদ্ধে প্রথম দু'বলে স্ট্রাইক পাননি সূর্যকুমার। স্ট্রাইক পেয়েই অবিশ্বাস্য শট মারেন ভারতের তারকা ব্যাটার। অফস্টাম্পের বাইরে ইয়র্কার করেন জিম্বাবোয়ের বোলার রিচার্ড গারাভা। ফুলটস হলেও লাইন একেবারে নিখুঁত ছিল। নিজের পা পুরো সামনে দিকে নিয়ে চলে আসেন। অফসাইডের দিকে ঝুঁকে ছিল সূর্যের মাথা। সেখান থেকে ব্যাকওয়ার্ড স্কোয়ার লেগের বাউন্ডারির দিকে ছক্কা মারেন।

সূর্যের সেই শটটা সুইপ ছিল নাকি স্কুপ বা চামচ শট ছিল - তা ব্যাখ্যা করা দুষ্কর। সত্যি বলতে সেই শটের কোনও ব্যাখ্যা হয় না। স্রেফ দু'চোখ ভরে দেখতে হয়। সেটাই করেছেন নেটিজেনরা। সূর্যের সেই শটের ছবি পোস্ট করে এক নেটিজেন বলেন, ‘ও এই শটটা কীভাবে খেলল?’ সেই পোস্টের নীচে একজন আবার বলেন, ‘তাও সেটা ছক্কা হয়েছে! অবিশ্বাস্য ব্যাটিং।’

আরও পড়ুন: IND vs ZIM Live: অর্শদীপ তুলে নিলেন চাকাভবার উইকেট, দ্বিতীয় সাফল্য ভারতের

তবে শুধু সেই বলটা নয়, জিম্বাবোয়ের বিরুদ্ধে দারুণ ছন্দে ছিলেন সূর্য। মাঝের ওভারে ভারত ধাক্কা খাওয়ার পর সূর্যই ত্রাতা হয়ে ওঠেন। একটা সময় যেখানে মনে হচ্ছিল যে ভারত ১৫০ রানের গণ্ডি পার করতে পারবে কিনা, সেখানে সূর্যের সৌজন্যে ২০ ওভারে ১৮৬ রান তোলে টিম ইন্ডিয়া। শেষ পাঁচ ওভারেই ওঠে ৭৯ রান। তাতেই সূর্যের অবদান ছিল ১৯ বলে ৫৬ রান। সার্বিকভাবে ২৫ বলে ৬১ রানে অপরাজিত থাকেন সূর্য। অর্ধশতরান পূরণ করেন ২৩ বলে। শেষ ওভারেই চার বলে ১৮ রান করেন (ছয়, দুই, চার এবং ছয়)।

সূর্যের সেই বিধ্বংসী ইনিংসে মজেছেন নেটিজেন, ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা। ২০ তম ওভারের শেষ বলে সূর্যের ছক্কা দেখে বিশ্বকাপের সরকারি সম্প্রচারকারী সংস্থার ধারাভাষ্যকার বলতে থাকেন, ‘ইউ হ্যাভ টু বি কিডিং মি। তুমি এটা করতে পার না সূর্য।’ একইসুরে টুইটারে ধারাভাষ্যকার হর্ষ ভোগলে বলেন, ‘গত কয়েক বছরে হাতেগোনা কয়েকজন খেলোয়াড়ের ব্যাটিং আমায় নিজের থামাতে বাধ্য করেছে। সূর্যকুমার যাদব ঠিক সেটাই করছে। অবিশ্বাস্য।' বলিউড স্টার রীতেশ দেশমুখ বলেন, 'ও স্কাই, ও স্কাই, ও স্কাই। নতমস্তকে সেলাম জানাচ্ছি। কী অবিশ্বাস্য।'

বন্ধ করুন