বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > T20 WC 2022: ব্যাটিং যদি শক্তি হয়, তবে বোলিং নিয়ে চিন্তায় থাকতে হবে ইংল্যান্ডকে, জেনে নিন ব্রিটিশদের শক্তি-দুর্বলতা

T20 WC 2022: ব্যাটিং যদি শক্তি হয়, তবে বোলিং নিয়ে চিন্তায় থাকতে হবে ইংল্যান্ডকে, জেনে নিন ব্রিটিশদের শক্তি-দুর্বলতা

ইংল্যান্ড ক্রিকেট টিম।

T20 WC 2022: ব্যাটিং যদি শক্তি হয়, তবে বোলিং নিয়ে চিন্তায় থাকতে হবে ইংল্যান্ডকে, জেনে ব্রিটিশদের শক্তি-দুর্বলতা

এই মুহূর্তে আইএসিসি-র টি টোয়েন্টি ক্রিকেট র‌্যাঙ্কিংয়ে দুই নম্বরে রয়েছে ইংল্যান্ড। স্বাভাবিক ভাবে এটা বিশ্বকাপের লড়াইয়ে তাদের কাছে বড় অনুপ্রেরণা। বিশ্বকাপের আগেই তারা পাকিস্তানে গিয়ে বাবর আজমদের টি-টোয়েন্টি সিরিজে হারিয়ে এসেছে। অস্ট্রেলিয়াও ঘরের মাঠে টি-টোয়েন্টিতে তাদের কাছে পর্যুদস্ত হয়েছে। স্বাভাবিক ভাবেই ব্রিটিশদের আত্মবিশ্বাস এখন তুঙ্গে। তবে বিশ্বকাপের আগে প্রস্তুতি ম্যাচে তারা আবার ভারতের কাছে বিশ্রী ভাবে হেরেছে। তবে সে সব নিয়ে ভাবছে না ইংল্যান্ড শিবির। কারণ বিশ্বকাপের লড়াই একেবারে আলাদা। বিশ্বকাপের সুপার ১২ পর্বে তাদের প্রথম প্রতিপক্ষ আফগানিস্তান। সেই ম্যাচে শুরু থেকেই আধিপত্য রেখে জিততে মরিয়া ইংল্যান্ড।

ইংল্যান্ড দলে ব্রিলিয়ান্ট ব্যাটিং লাইনআপের পাশাপাশি রয়েছে অলরাউন্ডারের ভাণ্ডার। যা তাদের বড় শক্তি৷ তবে বোলিংয়ে দুর্বলতা রয়েছে ব্রিটিশদের। জেনে নিন ইংল্যান্ডের শক্তি-দুর্বলতার জায়গা কী?

আরও পড়ুন: টিম গেমই আসল শক্তি, তবে শেষ হার্ডলে আটকানোর বদভ্যাসই পিছিয়ে রাখছে কিউয়িদের

ইংল্যান্ডের শক্তি:

১) ইংল্যান্ডের বড় শক্তি হল তাদের বিস্ফোরক এবং গভীরতাযুক্ত ব্যাটিং লাইন আপ। টি-টোয়েন্টির দুই নম্বর দলে রয়েছেন ডেভিড মালানের মতো প্লেয়ার। গত দুই বছরে ইংল্যান্ডের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক মালান। বিশেষত স্পিনারদের বিরুদ্ধে মালান দুরন্ত। ৩৩ ম্যাচে তাঁর স্ট্রাইক রেট ১৩২।

২) গত বিশ্বকাপের সেমিফাইনালিস্ট ইংল্যান্ড এ বারের বিশ্বকাপেও গড়েছে দুর্দান্ত দল। ইয়ন মর্গ্যান দায়িত্ব ছাড়ার পর আর্মব্যান্ড পরেছেন জস বাটলার। তারকা উইকেটকিপার আছেন দুর্দান্ত ফর্মে। বাটলারের ৩৩.২৬ গড় সাক্ষ্য দিচ্ছে তাঁর ধারাবাহিক রান করার পরিসংখ্যান। আর ব্যাট হাতে ঝড় তোলার প্রমাণ তাঁর স্ট্রাইকরেট। বাটলারের আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের স্ট্রাইক রেট ১৪৩.৯৭।

৩) বিশ্বকাপের আগে দল থেকে জনি বেয়ারস্টোর মতো তারকা ছিটকে গেলেও, তাঁর অভাব টের পাচ্ছে না ইংল্যান্ড। দীর্ঘ দিন পর জাতীয় দলে ফিরে দারুণ ব্যাট করছেন অ্যালেক্স হেলস। পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ দিয়ে জাতীয় দলে ফিরেই হাঁকিয়েছেন দু'টি হাফসেঞ্চুরি। বাটলার-হেলস জুটি জমে উঠলে, বিশ্বকাপে প্রতিপক্ষের নাভিশ্বাস ওঠা সময়ের ব্যাপার।

৪) এই দলে অলরাউন্ডার রয়েছেন ৫ জন। টি-টোয়েন্টি ফর্ম্যাটে অলরাউন্ডারদের ভূমিকা অন্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। মইন আলি, স্যাম কারান, লিয়াম লিভিংস্টোন, বেন স্টোকস এবং ক্রিস ওকস। লিভিংস্টোন, স্টোকস, মইন আলিরা নিজেদের দিনে কী করতে পারেন, তা তো জানাই আছে ক্রিকেট সমর্থকদের।

৫) পাওয়ার প্লে এবং ডেথ ওভার, দু'জায়গাতেই দারুণ ব্যাটিং করেন ব্রিটিশরা। গত কয়েক বছরে প্রথম ৬ ওভারে সাড়ে ৮ এর বেশি গড়ে রান করেছেন তাঁরা। ডেথ ওভারে গতি বেড়ে যায় আরও বেশি। তখন রান আসে ১০-এর উপর।

আরও পড়ুন: ‘ওদের বোলিং ভালো, আমাদের ব্যাটাররা অভিজ্ঞ’, রোহিতের ইঙ্গিত, টক্কর হবে জোর

২০২০ সাল থেকে নিয়মিত ওপেনার বাটলারের পাওয়ারপ্লেতে স্ট্রাইক রেট ১৫২.১। দলের আর এক ওপেনার সল্টের তো এই সময়ে পাওয়ারপ্লেতে স্ট্রাইক রেট ১৬৯.২৩। এমন কী মাত্র ৪ ইনিংসে পাওয়ারপ্লেতে ব্যাট করার সুযোগ পেয়ে লিভিংস্টোন রান তুলেছেন ১৭৫ স্ট্রাইক রেটে। এ ছাড়া ডেথ ওভারেও এই সল্ট ও বাটলার দুর্ধর্ষ। সম্প্রতি দু'জনে যথাক্রমে ডেথ ওভারে রান তুলেছেন ২৫৩.৮৪ এবং ১৯০.৬২ স্ট্রাইক রেটে। ডেথ ওভারের দিকেই সাধারণত ব্যাট করার সুযোগ পাওয়া মইনও এই সময়ে রান তুলেছেন ২০০ স্ট্রাইক রেটে!

ইংল্যান্ডের দুর্বলতা:

১) ব্যাটিংটা যেমন ইংল্যান্ডের শক্তির জায়গা, তেমনই দুর্বলতার জায়গাটা তাদের বোলিং। ইনজুরির কারণে দলে নেই জোফ্রা আর্চারের মতো পেসার। তাই পেস আক্রমণ সামলানোর ভার জর্ডন, উইলি, উড এবং রিস টপলির কাঁধে। এঁদের মধ্যে বিশ্বকাপে আলাদা করে নজর কাড়তে পারেন মার্ক উড। দারুণ গতিতে বল করা উড নিজের দিনে তছনছ করে দিতে পারে যে কোন দলের ব্যাটিং অর্ডার। ক্রিস জর্ডন, টপলিরাও আছেন ভালো ছন্দে। কিন্তু ইকোনমিটা নেই কারও নিয়ন্ত্রণে। টপলি রান দেন ৮ এর বেশি ইকোনমি রেটে। আর জর্ডানেরটা সাড়ে ৮ এরও বেশি।

২) দলের স্পিন ডিপার্টমেন্ট সামলাবেন লেগ স্পিনার আদিল রশিদ এবং অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার মইন আলি। ৩৫ ম্যাচে ৪০ উইকেট নিয়ে দলের সেরা বোলার আদিল রশিদ, তার ইকোনমিরেট সাড়ে ৭ এর বেশি। মইন আলি ছন্দে থাকলেও রান ইকোনমিরেট সাড়ে ৮ এর আশেপাশে।

৩) ব্রিটিশদের ইংলিশদের সমস্যা পাওয়ারপ্লে এবং ডেথ ওভারের বোলিংয়েই বেশি। প্রথম কিংবা শেষ ৬ ওভারে কমবেশি ৯ বা তার বেশি রান দিয়ে থাকেন সকলে।

৪) এখনও পর্যন্ত সবগুলো বিশ্ব আসরে খেললেও, ইংল্যান্ডের সেরা ফল ২০১০ এর শিরোপা জয়। এর আগে পরে, কখনও-ই খুব একটা ভালো করতে পারেনি তারা। প্রথম দু'বার ফার্স্ট রাউন্ড থেকেই বিদায় নেন তারা। শিরোপা জেতার পরের দুই আসরে যান দ্বিতীয় রাউন্ড পর্যন্ত। ২০১৬ তে হয় রানার্স আপ। আর শেষ বার সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে তারা ছিলো সেমিফাইনালিস্ট।

রোহিতদের প্রস্তুতির রোজনামচা, পাল্লা ভারি কোন দলের, ক্রিকেট বিশ্বকাপের বিস্তারিত কভারেজ, সঙ্গে প্রতিটি ম্যাচের লাইভ স্কোরকার্ড । দুই প্রধানের টাটকা খবর, ছেত্রীরা কী করল, মেসি থেকে মোরিনহো, ফুটবলের সব আপডেট পড়ুন এখানে।

ময়দান খবর
বন্ধ করুন

Latest News

মাতৃত্বকালীন ছুটি নিয়ে স্থায়ী-অস্থায়ী কর্মীতে তফাত করা যায় না, বলল হাইকোর্ট ধরমশালায় মাঠে নামলেই টেস্টের 'সেঞ্চুরি' অশ্বিনের, ভারতের হয়ে ১০০ টেস্ট খেলেছেন কারা? মন্ত্রীর পদত্যাগ, হিমাচলে টলমল কংগ্রেসের গদি, আস্থাভোটের দাবিতে রাজভবনে BJP জয়া প্রদা 'পলাতক', অবিলম্বে গ্রেফতারির নির্দেশ দিল আদালত ‘আমাদের জীবন শারীরিকভাবে…’! বাইরে করোনা, আমিরকে ডিভোর্স দিয়েও একসঙ্গে ছিলেন কিরণ কংগ্রেস ছাড়লেন কৌস্তভ বাগচী, 'বিকল্প রাজনীতির' পথিক এবার কোন পথে? কাকভোরে কলকাতায় তেলের ট্যাঙ্কার উলটে ভয়াবহ আগুন, ঝলসে মৃত্যু চালকের বিয়ে করলেন ‘সোহাগ জল’-এর মউ, গায়ে হলুদ থেকে সিঁদুরদান, রইল সমস্ত মুহূর্ত… দুই দশকে ১১৬ টেস্টে জয় ভারতের, ধরমশালায় জিতলেই নয়া রেকর্ড গড়বেন রোহিতরা বিভ্রান্তি এড়াতে পদক্ষেপ, শীর্ষ আধিকারিকদের কাজের ক্ষেত্র নির্দিষ্ট করে দিল KMC

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.