বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > T20 WC: প্রতিকুল পরিস্থিতিতে টিকে থেকেই বাজিমাত করল মিচেল, মত উইলিয়ামসনের
ম্যাচ শেষে ইংল্যান্ড অধিনায়ক মর্গ্যানের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় মিচেলের। ছবি- পিটিআই।
ম্যাচ শেষে ইংল্যান্ড অধিনায়ক মর্গ্যানের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় মিচেলের। ছবি- পিটিআই।

T20 WC: প্রতিকুল পরিস্থিতিতে টিকে থেকেই বাজিমাত করল মিচেল, মত উইলিয়ামসনের

  • সেমিফাইনালে ৪৭ বলে অপরাজিত ৭২ রানের ইনিংস খেলে কিউয়িদের ফের এক বিশ্বকাপের ফাইনালে পৌঁছে দেন ডারিল মিচেল।

বছরখানেক আগে নির্ধারিত সময়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আসর বসলে তিনি হয়তো দলে জায়গাও পেতেন না। তবে সেই ডারিল মিচেলই চলতি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ৪৭ বলে অপরাজিত ৭২ রানের ইনিংস খেলে কিউয়িদের ফের এক বিশ্বকাপের ফাইনালে পৌঁছে দেন। বিশ্বকাপেই প্রথমবার জাতীয় দলের হয়ে ওপেন করলেও মিচেলের পারফরম্যান্সে কেন উইলিয়ামসন কিন্তু একেবারে অবাক নন।

৩০ বছর বয়সী অলরাউন্ডার মিচেল সাধারণত লোয়ার মিডল অর্ডারে ব্যাট করলেও, টিম সেফার্তের চোট এবং খারাপ ফর্মের দরুণ তাঁকে ওপেনিংয়ে পাঠিয়ে পরীক্ষা করা হয়। অনুশীলন ম্যাচে সেই পরীক্ষায় সফল হওয়ার পরেই তিনি বিশ্বকাপেও ওপেনারের ভূমিকায় একের পর এক পারফরম্যান্স দিয়ে চলেছেন। সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষেও ইনিংসে শেষ অবধি টিকে থেকে দলকে কাঙ্খিত জয় এনে দেন মিচেলই।

ম্যাচের নায়ক মিচেলের প্রশংসায় পঞ্চমুখ অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। ম্যাচ শেষে তিনি বলেন, ‘ওর মানসিক ও চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যের কথা মাথায় রেখে এটাকে আমার এটাকে কোনো পরীক্ষা বলে মনেই হয়নি, এবং আজসহ গোটা টুর্নামেন্ট জুড়েই এগুলি ওর মধ্যে স্পষ্টভাবে ফুটে উঠেছে। ক্রিজে দাঁড়িয়ে থেকে ছোট ছোট লড়াইগুলি জিতে এক দারুণ ইনিংস খেলেছে ও।’

ম্যাচে ইংল্যান্ড সামান্য এগিয়ে থাকলেও ১৭ নম্বর ওভারে ক্রিস জর্ডনের বল ২৩ রান মেরে খেলার মোড় ঘুরিয়ে দেন জিমি নিশাম। তিন ওভারে মোট ৫৭ রান করে এক ওভার ও পাঁচ উইকেট বাকি থাকতেই জয় সুনিশ্চিত করে কিউয়িরা। ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হন মিচেলই।

বন্ধ করুন