বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > T20 WC: দুরন্ত IPL-এর জেরে হার্দিকের ব্যাকআপ বেঙ্কটেশ আইয়ার, নেট বোলার আবেশ খান- রিপোর্ট
বেঙ্কটেশ আইয়ার। ছবি- এএনআই। (ANI)
বেঙ্কটেশ আইয়ার। ছবি- এএনআই। (ANI)

T20 WC: দুরন্ত IPL-এর জেরে হার্দিকের ব্যাকআপ বেঙ্কটেশ আইয়ার, নেট বোলার আবেশ খান- রিপোর্ট

  • বেঙ্কটেশ আইয়ার এই আইপিএলে এখনও অবধি ২৬৫ রানের পাশপাশি তিনটি উইকেট নিয়েছেন এবং আবেশের সংগ্রহ ২৩টি উইকেট।

প্রত্যেক বছরই আইপিএল নতুন নতুন তারকার জন্ম দেয়, এবারই তার অন্যথা হয়নি। অনামী গলি থেকে জাতীয় দলের ঝাঁ চকচকে রাজপথের দূরত্ব আইপিএলের সুবাদে খুব সময়েই বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার পাড় করেছে। এবারের মরশুমে আইপিএলের সম্ভবত সেরা দুই চমক বলতে আবেশ খান ও বেঙ্কটেশ আইয়ার।

আইপিএলে যেখানে নামী দামি আন্তর্জাতিক স্তরের বোলাররা রয়েছে, সেখানে ২৩ উইকেট নিয়ে মরশুমের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেটশিকারী আবেশ খান। তাঁর বোলিং গতি এবং মুশকিল পরিস্থিতিতে বল করার দক্ষতা অনেককেই প্রভাবিত করেছে। এবার তারই সুফল পেতে চলেছেন আবেশ। উমরান মালিকের পর দ্বিতীয় বোলার হিসাবে বিশ্বকাপে ভারতীয় দলের নেট বোলার হতে চলেছেন দিল্লি ক্যাপিটালসের বোলার। 

বিসিসিআইয়ের নির্বাচক কমিটি ঘনিষ্ঠ এক সূত্র PTI-কে জানান, জাতীয় নির্বাচকরা আবেশকেও দলের সঙ্গে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। প্রথমে ও নেট বোলার হিসাবেই দলে যোগ দেবে। কিন্তু পরবর্তীতে নির্বাচকরা চাইলে ওর স্থানান্নোতি ঘটতে পারে। আবেশ ১৪২ থেকে ১৪৫-র গতিতে নিরন্তর বোলিং করে, পাটা উইকেটেও ও অধিক বাউন্স লাভ করে ব্যাটসম্যানদের সমস্যায় ফেলে এবং বহুদিন ধরেই নির্বাচকদের ওর ওপর নজর ছিল। ২৪ বছর বয়সী আবেশ, ইংল্যান্ড সফরেও ভারতীয় দলের নেট বোলার ছিলেন। তবে দুর্ভাগ্যবশত এক অনুশীলন ম্যাচে তাঁর আঙুল ভেঙে যায়। আবেশের এই নির্বাচন কাউকেই তাই অবাক করবে না।

তবে আবেশের থেকে আরেকটি বেশি অবাক করবে বেঙ্কটেশ আইয়ারের চয়ন। আইয়ার আইপিএলের দ্বিতীয় ভাগ শুরুর আগে জীবনে ভারতীয় ‘এ’ দলের হয়েও খেলেননি। তবে মরুশহরে আট ম্যাচে ২৬৫ রান ও তিন উইকেট নিয়ে হঠাৎ করেই সকলের চর্চার কেন্দ্রবিন্দুতে বেঙ্কটেশ। জাতীয় দলে অলরাউন্ডারের ভূমিকায় হার্দিক পান্ডিয়ার নির্বাচন নিয়ে বিতর্ক অব্যাহত। যা খবর তাতে হার্দিক এখনও বল করতে প্রস্তুত নন এবং বিশ্বকাপে তিনি ব্যাটসম্যান হিসাবেই খেলবেন। ফিটনেস নিয়ে ভুগতে থাকা হার্দিকের ব্যাকআপ হিসাবে বেঙ্কটেশ আইয়ারকেও নাকি জৈব বলয়ে থাকতে বলা হতে পারে বলে দাবি The Telegraph-র। সময়টা নিঃসন্দেহে বেঙ্কটেশের জন্য স্বপ্নের মতোই কাটছে।

বন্ধ করুন