বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > T20 WC: জৈব বলয়ের ঘেরাটোপে হাঁসফাঁস অবস্থা, ভবিষ্যতে পরিকল্পনা বদলের আর্জি বিরাটের
বিরাট কোহলি। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
বিরাট কোহলি। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)

T20 WC: জৈব বলয়ের ঘেরাটোপে হাঁসফাঁস অবস্থা, ভবিষ্যতে পরিকল্পনা বদলের আর্জি বিরাটের

  • এমন পরিস্থিতিতে খেলোয়াড়দের সঙ্গে উদ্যোক্তাদের যোগাযাগ রাখাটা খুব জরুরি বলে মনে করছেন বিরাট কোহলি।

করোনার আবহে নিরন্তর খেলা চালিয়ে যাওয়া যে কতটা কঠিন তা সেই পরিস্থিতিতে না থাকলে বোঝাটা বেশ মুশকিল। সম্প্রতি বিরাট কোহলিও জৈব বলয়ে থেকে ক্রিকেট খেলা নিয়ে মুখ খুলেছিলেন। কঠোর বিধিনিষেধে যে খেলা চালিয়ে যাওয়ার তিনি পক্ষে একেবারেই নন, তা স্পষ্ট করে দেন বিরাট। ফের একবার এই নিয়ে মুখ খুললেন তিনি।

পাকিস্তান ম্যাচের আগে সাংবাদিক সম্মেলনে এক সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে ক্যাপ্টেন কোহলি বলেন, ‘আমি জানি বিশ্বে (করোনাকালে) অনেকদিন সঠিকভাবে ক্রিকেট আয়োজন করা সম্ভব হয়নি। তবে তা ঠিক করার জন্য ঠাসা সূচির ফলে এমন যেন না হয় যে খেলোয়াড়রা নাজেহাল হয়ে সরে দাঁড়াতে বাধ্য হয়। তাতে বিশ্বক্রিকেটের কোন লাভ হবে বলে আমার অন্তত মনে হয়না। চার-পাঁচজন ঠিক আছে দেখে কারুর কোনো অসুবিধা হচ্ছে না, এমনটা ভাবার মানে নেই।’

এহেন পরিস্থিতিতে ক্রিকেট বোর্ডদের ও আয়োজক সংস্থাদের খেলোয়াড়দের সঙ্গে যোগাযোগ রাখাটা খুব জরুরি বলেই মনে করছেন ভারতীয় অধিনায়ক। পাশপাশি জৈব বলয়ের ক্লান্তি কাটাতে সিরিজের মাঝে যথেষ্ট সময় দেওয়ারও আর্জি তাঁর। ‘খেলোয়াড়দের সঙ্গে কথা বলাটা দরকার। ব্যক্তিগতভাবে সবার পরিস্থতি ভিন্ন হয়। তাই খেলোয়াড়দের সঙ্গে যোগাযোগ রাখাটা খুব জরুরি। মাঝে এমন কিছুটা সময় দেওয়ার প্রয়োজন রয়েছে যাতে মানসিকভাবে চাঙ্গা হয়ে সকলে আবার এমন পরিস্থিতিতে খেলা চালিয়ে যেতে পারে।’ জানান বিরাট। ভারতীয় অধিনায়কের কথায় অদূর ভবিষ্যতে কিছু বদলায় কি না, এখন সেটাই দেখার। 

বন্ধ করুন