বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > T20 World Cup 2022: পরপর ৪ উইকেট হারিয়েই চাপে পড়ে যাই- অস্ট্রেলিয়ার কাছে হেরে হতাশ আফগান অধিনায়ক

T20 World Cup 2022: পরপর ৪ উইকেট হারিয়েই চাপে পড়ে যাই- অস্ট্রেলিয়ার কাছে হেরে হতাশ আফগান অধিনায়ক

মহম্মদ নবি।

ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে এসে মহম্মদ নবি বলেন, ‘আমরা পাওয়ার প্লে-তে ভালো শুরু করি। তবে ইনিংসের মাঝপথে আমরা পরপর চার উইকেট হারাই। যা আমাদের চাপে ফেলে দেয়। সেখান থেকে আর ফিরতে পারিনি।’

শুভব্রত মুখার্জি: অস্ট্রেলিয়াতে বিশ্বকাপ অভিযান শুক্রবারই শেষ হয়ে গেল আফগানিস্তানের। আয়োজক অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে মাত্র ৪ রানে হেরে গিয়ে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে গেল আফগানরা। তবে ছিটকে যাওয়ার আগে, শক্তিশালী অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে যে লড়াইটা তারা দিল, তা অবশ্যই মনে রাখবেন তাদের ভক্তরা। ম্যাচ শেষে আফগানিস্তান অধিনায়ক মহম্মদ নবির গলায় ঝড়ে পরে হতাশা। তাঁর মতে, খুব ভালো একটা ক্রিকেট ম্যাচ হয়েছে। তবে পরপর চার উইকেট হারানোটাই তাদের জন্য চাপ হয়ে যায়।

আরও পড়ুন: ৪ রানে জয়- উচ্ছ্বাস নেই, রয়েছে হাহুতাশ, অজিদের ভাগ্য এখন লঙ্কার হাতে

ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে এসে মহম্মদ নবি বলেন, ‘অত্যন্ত ভালো একটা ক্রিকেট ম্যাচ খেলা হয়েছে। ওরা শুরুটা দুর্দান্ত ভাবে করেছিল। তবে শেষে এসে নবীন এবং ফারুকি খুব ভালো বল করে। ওই উইকেটে ওই রানটা বিশাল বড় স্কোর ছিল না। আমরা পাওয়ার প্লে-তে ভালো শুরু করি। তবে ইনিংসের মাঝপথে আমরা পরপর চার উইকেট হারাই। যা আমাদের চাপে ফেলে দেয়। সেখান থেকে আর ফিরতে পারিনি।’

বৃষ্টির কারণে আফগানিস্তানের দু'টি ম্যাচ ভেস্তে যাওয়া নিয়ে নবিকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, তার উত্তরে নবি জানান, ‘যখন আপনি প্রথম ম্যাচটা খেলার পর, ১০দিন বৃষ্টির কারণে খেলতে পারেন না, তখন বিষয়টা খুবই চাপের হয়। একটি বিষয় হল, এর ফলে আমরা মোমেন্টাম একেবারেই পাইনি। তবে প্রতিটা ম্যাচে আমরা তার পর থেকে যথেষ্ট উন্নতি করেছি।’

আরও পড়ুন: দলের প্রস্তুতি সেই ভাবে ছিল না- ঘুরিয়ে ম্যানেজমেন্টকে দায়ী করে নেতৃত্ব ছাড়লেন আফগান অধিনায়ক নবি

প্রসঙ্গত অস্ট্রেলিয়া এ দিন প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত কুড়ি ওভারে আট উইকেটে ১৬৮ রান করে। তাদের হয়ে সর্বোচ্চ ৫৪ রান করে অপরাজিত থাকেন অলরাউন্ডার গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। এ ছাড়া ডেভিড ওয়ার্নার ২৫, মিচেল মার্শ ৪৫ এবং মার্কাস স্টোইনিস ২৫ রান করেন। নবীন উল হক তিনটি এবং ফজলহক ফারুকি দু'টি উইকেট নেন।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে আফগানিস্তানের ওপেনার রহমানুল্লাহ গুরবাজ ১৭ বলে ৩০ রান করেন। ইব্রাহিম জাদরান করেন ২৬ রান। গুলবাদিন নায়েব ২৩ বলে ৩৯ রান করে আউট হন। নায়েব যখন আউট হন তখন দলের স্কোর ছিল ৯৯ রানে তিন উইকেট। এই রানেই আরও ২টি উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় আফগানরা। সেখান থেকে ২৩ বলে ৪৮ রানের অপরাজিত একটি ইনিংস খেলে দলকে জয়ের কাছাকাছি নিয়ে যান রশিদ খান। তবে শেষ পর্যন্ত ১৬৪ রানেই থামতে হয় আফগানদের। ৪ রানের ব্যবধানে জয় পায় অস্ট্রেলিয়া।

বন্ধ করুন