বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > বিরাট কোহলির ১০ মাসের মেয়েকে কে দিল ধর্ষণের হুমকি?
সন্তান ও স্ত্রীর সঙ্গে বিরাট কোহলি (ছবি:ইনস্টাগ্রাম)
সন্তান ও স্ত্রীর সঙ্গে বিরাট কোহলি (ছবি:ইনস্টাগ্রাম)

বিরাট কোহলির ১০ মাসের মেয়েকে কে দিল ধর্ষণের হুমকি?

  • শামির পাশে দাঁড়ানোর জন্য বিরাট কোহলির ১০ মাসের মেয়েকে দেওয়া হল ধর্ষণের হুমকি!

দলের সতীর্থ মহম্মদ শামির পাশে দাঁড়ানোর জন্য বিরাট কোহলির ১০ মাসের মেয়েকে ধর্ষণের হুমকি দেওয়া হল! ৩০ অক্টোবর রাত ১১.৫৫ মিনিটে আমেনা নামে এক টুইট ব্যবহারকারী কোহলির মেয়ে ভামিকাকে ধর্ষণের হুমকি দিয়েছেন। একটি টুইটের মাধ্যমে এই কথাটি প্রকাশ করে। এরপরেই কোহলির সমর্থকরা টুইটের তীব্র বিরোধিতা করতে থাকেন।

অনেকে বলতে থাকেন। এ ঘটনায় কোহলি এখন পর্যন্ত মুখ খোলেননি। তবে এর আগে তার স্ত্রীর প্রতি করা বাজে মন্তব্যের জেরে সরাসরি ইনস্টাগ্রামে প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন কোহলি। লিখেছিলেন, ‘যারা নারীদের সম্মান দিতে জানে না, তারা নিজেদের কিভাবে শিক্ষিত মানুষ হিসেবে দাবি করে। একবার যদি তাদের মা, বোন, স্ত্রী, মেয়েকে নিয়ে সরাসরি এমন জঘন্য মন্তব্য করা হয়, তাহলে তাদের কেমন লাগবে।’

এই ঘটনার সূত্রপাত হয়েছিল ২৪ অক্টোবর। দুবাইয়ে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচে ভারতের ১০ উইকেটের পরাজয়ের পর মহম্মদ শামিকে ধর্মীয়ভাবে আক্রমণ করা হয়েছিল। এরপর ৩০ অক্টোবর নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ম্যাচের আগের দিন দলের সতীর্থ শামির ওপর আক্রমণকারীদের ‘মেরুদণ্ডহীন’ বলে আচ্ছামতো ধুয়ে দেন কোহলি। এরপরই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভারতীয় অধিনায়কের ১০ মাসের শিশুকন্যা ভামিকা কোহলিকে ধর্ষণের হুমকি দেওয়া হয়।

তবে ধর্ষণের হুমকি দেওয়া ওই ব্যক্তি কিছুক্ষণ পর টুইট মুছে ফেললেও, তার পরিচয় নাকি জানা গেছে। শুরুতে তাকে পাকিস্তানি বলে তথ্য ছড়িয়ে যায়। কিন্তু সোমবার ‘বুম’ নামে একটি ওয়েবসাইটের তরফে দাবি করা হয়েছে, পাকিস্তানের কেউ নয়, শত্রু রয়েছে ঘরেই! তেলুগুভাষী দক্ষিণপন্থী কোনও ব্যক্তির করা এই টুইট, যে আগে অন্য একটি নাম ব্যবহার করে টুইট করত। কিছুক্ষণ পরেই অবশ্য টুইটটি মুছে দেওয়া হয়।

বন্ধ করুন