বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > ওয়ার্নার নিয়ে মজার টুইট জাফরের, পড়লে হাসি চাপতে পারবেন না!
ডেভিড ওয়ার্নার। ছবি: পিটিআই
ডেভিড ওয়ার্নার। ছবি: পিটিআই

ওয়ার্নার নিয়ে মজার টুইট জাফরের, পড়লে হাসি চাপতে পারবেন না!

  • শেন ওয়ার্ন অস্ট্রেলিয়ার ১৯৯৯ বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্য ছিলেন। ডেভিড ওয়ার্নার আবার এই নিয়ে দু'বার বিশ্বকাপ জয়ের স্বাদ পেয়েছেন। ২০১৫ সালে ওডিআই বিশ্বকাপ জয়ের স্বাদ পান ডেভিড ওয়ার্নার। আর এ বার পেলেন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ের স্বাদ।

ওয়াসিম জাফর বরাবরই মজার বুদ্ধিদীপ্ত বিভিন্ন টুইট করে থাকেন। আর সেই টুইট নিয়ে বেশ আলোড়ন পড়ে যায়। নেট দুনিয়ায় হাসির রোলও ওঠে। এ বারই যেমন অস্ট্রেলিয়া টি-টোয়েন্টি চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পরেই মজাদার এক টুইট করেন ওয়াসিম জাফর। সেই টুইট পড়ে নেট পাড়া একেবারে হেসে গড়াগড়ি খাচ্ছে।

আসলে শেন ওয়ার্ন অস্ট্রেলিয়ার ১৯৯৯ বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্য ছিলেন। ডেভিড ওয়ার্নার আবার এই নিয়ে দু'বার বিশ্বকাপ জয়ের স্বাদ পেয়েছেন। ২০১৫ সালে ওডিআই বিশ্বকাপ জয়ের স্বাদ পান ডেভিড ওয়ার্নার। আর এ বার পেলেন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ের স্বাদ।

এই বিষয়টিকেই মাথার রেখেই ওয়াসিম জাফর মজার টুইট  করেছেন। তিনি সেই টুইটে লিখেছেন, ‘ওয়ার্ন ১টি বিশ্বকাপ জিতেছে। ওয়ার্নার জিতেছে ২টি বিশ্বকাপ। এ বার কোনও অজি খুদের নাম হবে ওয়ার্নেস্ট, আর সে ৩টি বিশ্বকাপ জিতবে। ’

এ দিন টসে জিতে নিউজিল্যান্ডকে ব্যাট করতে পাঠায় অস্ট্রেলিয়া। বিধ্বংসী মেজাজে কেন উইলিয়ামসন ৪৮ বলে ৮৫ রান করে ফেলেন। আর কিউয়ি অধিনায়কের হাত ধরেই ১৭২ রানের বড় লক্ষ্যে পৌঁছে যায় নিউজিল্যান্ড। উইলিয়ামসন ছাড়া মার্টিন গাপ্তিল ৩৫ বলে ২৮ রান করেছেন। এটা দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। তৃতীয় সর্বোচ্চ গ্লেন ফিলিপসের। ১৭ বলে ১৮ রান। এ ছাড়া জেমস নিশাম পাঁচে ব্যাট করতে নেমে ৭ বলে অপরাজিত ১৩ রান করেছেন।

জবাবে ব্যাট করতে নামলে দলের মাত্র ১৫ রানের মাথায় অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চের উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া। এর পর ক্রিজে আসেন মিচেল মার্শ। আর এক ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নারকে সঙ্গে নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার জয়ের ভিত মজবুত করতে শুরু করেন তিনি। ৩৮ বলে ৫৩ রান করে ওয়ার্নার আউট হলে গ্লেন ম্যাক্সওয়েলকে সঙ্গে নিয়ে অস্ট্রেলিয়াকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন করেন মিচেল মার্শ। ৫০ বলে ৭৭ রান করে অপরাজিত থাকেন তিনি। ম্যাক্সওয়েল করেন ১৮ বলে ২৮ রান। ৭ বল বাকি থাকতে ৮ উইকেটে ম্যাচ জিতে যায় অস্ট্রেলিয়া। এই প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বাদ পেল অজি ব্রিগেড।

বন্ধ করুন