বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > বিশ্বকাপের শুরুতেই জোড়া হার পোলার্ডদের, কঠিন হল সেমিফাইনালের পথ
ফের হার গেইলদের। ছবি- আইসিসি।
ফের হার গেইলদের। ছবি- আইসিসি।

বিশ্বকাপের শুরুতেই জোড়া হার পোলার্ডদের, কঠিন হল সেমিফাইনালের পথ

  • অস্ট্রেলিয়ার কাছে হারের ধাক্কা সামলে জয়ে ফিরল দক্ষিণ আফ্রিকা।

বর্ণবৈষম্য নিয়ে দলের ভিতরেই সমস্যা তৈরি হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকার। তাই বলে মাঠের পারফর্ম্যান্সে তার প্রভাব পড়ল না। অস্ট্রেলিয়ার কাছে প্রথম ম্যাচে হারের ধাক্কা সামলে চলতি টি-২০ বিশ্বকাপে জয়ে ফিরল দক্ষিণ আফ্রিকা।

অন্যদিকে বিশ্বকাপের প্রথম দু'ম্যাচে হেরে সেমিফাইনালের রাস্তা কঠিন করে তুলল ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ইংল্যান্ডের কাছে বিধ্বস্ত হওয়ার পর এবার পোলার্ডরা ৮ উইকেটে পরাজিত হলেন প্রোটিয়াদের কাছে।

দুবাইয়ে প্রথমে ব্যাট করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেটের বিনিমেয় ১৪৩ রান তোলে। জবাবে ব্যাট করতে নেমে দক্ষিণ আফ্রিকা ১৮.২ ওভারে ২ উইকেটের বিনিময়ে ১৪৪ রান তুলে ম্যাচ জিতে যায়।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে ওপেন করতে নেমে অনবদ্য হাফ-সেঞ্চুরি করেন এভিন লুইস। ৩টি চার ও ৬টি ছক্কার সাহায্যে ৩৫ বলে ৫৬ রান করে আউট হন তিনি। তবে অপর ওপেনার লেন্ডল সিমন্স মোটেও ছন্দে ছিলেন না। তিনি ১৬ রান করতে খরচ করেন ৩৫টি বল। তিনি কোনও বাউন্ডারি মারতে পারেননি।

 

এছাড়া নিকোলাস পুরান ১২, ক্রিস গেইল ১২, কায়রন পোলার্ড ২৬, আন্দ্রে রাসেল ৫, শিমরন হেতমায়ের ১ ও ডোয়েন ব্র্যাভো অপরাজিত ৮ রান করেন।

ডোয়েন প্রিটোরিয়াস ১৭ রানের বিনিময়ে ৩টি উইকেট দখল করেন। কেশব মহারাজ ২৪ রানের বিনিময়ে নেন ২টি উইকেট। এনরিখ নরকিয়া ৪ ওভারে মাত্র ১৪ রান খরচ করে তুলে নেন ১টি উইকেট। এছাড়া ২৭ রানে ১ উইকেট নিয়েছেন কাগিসো রাবাদা।

দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ওপেন করতে নেমে তেম্বা বাভুমা ব্যক্তিগত ২ রানে রান-আউট হন। হেনড্রিকস ৩৯ রানের যোগদান রাখেন। ভ্যান ডার দাসেন ৪৩ ও মার্করাম ৫১ রানে অপরাজিত থাকেন। ১টি উইকেট নেন আকিল হোসেন। ম্যাচের সেরা ক্রিকেটার নির্বাচিত হন নরকিয়া।

বন্ধ করুন