বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > XYZ যা খুশি বলতে পারেন- হার্দিকের সঙ্গে তাঁর তুলনা টানায়, গাভাস্করকে খোঁটা রবির
সুনীল গাভাস্কর, রবি শাস্ত্রী এবং হার্দিক পাণ্ডিয়া।

XYZ যা খুশি বলতে পারেন- হার্দিকের সঙ্গে তাঁর তুলনা টানায়, গাভাস্করকে খোঁটা রবির

  • রবি শাস্ত্রী ১৯৮৫ বিশ্বকাপে ৫ ম্যাচে তিনটি হাফ সেঞ্চুরির গাত ধরে মোট ১৮২রান করেছিলেন এবং তিনি 8 উইকেট নিয়ে বোলিংয়েও অবদান রেখেছিলেন। আর ১৯৮৫ সালের রবির সঙ্গে হার্দিকের তুলনা টেনেছেন সুনীল গাভাস্কর।

ভারতীয় অলরাউন্ডার হার্দিক পাণ্ডিয়া বর্তমানে দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছেন। ২০২২ আইপিএলের প্রথম মরসুমে গুজরাট টাইটান্সকে চ্যাম্পিয়ন করার পরে, হার্দিক যা স্পর্শ করছেন তাই যেন সোনায় পরিণত হচ্ছে। এশিয়া কাপেও বল এবং ব্যাট হাতে বেশ ভালো পারফরম্যান্স করেছেন। এখন অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত হতে চলা আসন্ন ২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও হার্দিকের থেকে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স প্রত্যাশা করছে গোটা দেশ।

হার্দিককে প্রশংসায় মুড়ে প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক সুনীল গাভাস্কার এমন কী বলেছিলেন যে, এই অলরাউন্ডার এই বছর ভারতের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারেন। এই সময় তিনি হার্দিক পাণ্ডিয়াকে তিনি রবি শাস্ত্রীর সঙ্গে তুলনা করেছিলেন।

আরও পড়ুন: চার পেসার নিয়ে ভারত ভুল করেছে-T20 WC-র টিম নিয়ে প্রশ্ন তুললেন প্রাক্তন অজি তারকা

সুনীল গাভাস্কার ইন্ডিয়া টুডে-ত বলেছিলেন, ‘হ্যাঁ, আমি মনে করি হার্দিক এটা করতে পারে, যা রবি শাস্ত্রী ১৯৮৫ সালে করেছিলেন, যেখানে রবি পুরো টুর্নামেন্ট জুড়ে ব্যাট এবং বল উভয় ক্ষেত্রেই দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করেছিলেন। কিছু ভালো ক্যাচও ধরেছিলেন। হার্দিক পাণ্ডিয়াও এটি করতে সক্ষম।’

প্রসঙ্গত, রবি শাস্ত্রী ১৯৮৫ বিশ্বকাপে ৫ ম্যাচে তিনটি হাফ সেঞ্চুরির গাত ধরে মোট ১৮২রান করেছিলেন এবং তিনি 8 উইকেট নিয়ে বোলিংয়েও অবদান রেখেছিলেন।

আরও পড়ুন: কোহলি না রোহিত, টি২০-তে অজিদের রাতের ঘুম কেড়েছেন কে?

গাভাস্কারের বিবৃতির প্রেক্ষিতে রবি শাস্ত্রী স্পোর্টস তককে বলেছেন, পাণ্ডিয়াকে নিয়ে তিনি তাঁর আগের সিদ্ধান্তেই অনড়। তিনি হার্দিককে বিশ্বের সেরা টি-টোয়েন্টি অলরাউন্ডার বলে অভিহিত করেছিলেন। শাস্ত্রী পান্ডিয়ার প্রতি তার অবস্থানের পুনরাবৃত্তি করেছেন এবং উল্লেখ করেছেন যে, যদিও প্রত্যেকে তাদের মতামতের অধিকারী, তবে তিনি তার আগের বিবৃতির সঙ্গে কোনও কিছু যোগ বা বিয়োগ করতে চান না।

তাঁর দাবি, ‘আমি ইতিমধ্যেই টুইট করেছি এবং ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছি যে, তিনি ক্রিকেটেক এই ফর্ম্যাটে এক নম্বর অলরাউন্ডার। আপনার আর কী দরকার? আমি দুই সপ্তাহ আগে এটি টুইট করেছি। যোগ বা বিয়োগ করার আর কি আছে? XYZ, তারা যা খুশি বলতে পারে... প্রত্যেকেরই তাদের মতামতের অধিকার রয়েছে। আমার দৃষ্টিভঙ্গি পরিষ্কার, যা আমি কয়েক সপ্তাহ আগে টুইট করেছি।’

বন্ধ করুন