ভারতের ওপেনারদের সামনে ব্যর্থ হল পাক বোলিং আক্রমণ। মঙ্গলবার অনুর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ সেমিফাইনালে।
ভারতের ওপেনারদের সামনে ব্যর্থ হল পাক বোলিং আক্রমণ। মঙ্গলবার অনুর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ সেমিফাইনালে।

Live U19 World Cup Ind vs Pak Semi Final: ফাইনালে ভারত, ১০০ যশস্বীর

অনুর্ধ্ব ১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানকে ১০ উইকেটে পরাজিত করল ভারত। ষতরান করলেন ওপেনার যশস্বী জয়সওয়াল, ৫৯ রানে অপরাজিত থাকলেন তাঁর সঙ্গী দিব্যাংশ সাক্সেনা।

দুর্ভেদ্য ওপেনিং জুটির সৌজন্যে ৮৮ বল বাকি থাকতেই পাকিস্তানকে পরাস্ত করে বিশ্বকাপ ফাইনালে পৌঁছল ভারত। ১৭৩ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে পাক বোলিং আক্রমণকে ঠান্ডা মাথায় বধ করলেন দিব্যাংশ সাক্সেনা ও যশস্বী জয়সওয়াল।

Under-19 WC: ফুচকা বেচে, তাঁবুতে থেকে সংগ্রাম করেছেন ম্যাচের সেরা যশস্বী

ভারতীয় ওপেনিং জুটির সামনে বিশষেষ বাধা সৃষ্টি করতে পারলেন না পাক বোলাররা। ১০৫ রানে অপরাজিত থাকলেন যশস্বী, ৫৯ রানে অপরাজিত রইলেন দিব্যাংশ সাক্সেনা।ম্যান অফ দ্য ম্যাচ হলেন শতরানকারী যশস্বী জয়সওয়াল।

এ দিন ভারতীয় ওপেনিং জুটির বিক্রমের সামনে কোনও পাক বোলারই ভয়ংকর হয়ে উঠতে পারেননি। তবে তাড়াহুড়ো না করে ধৈর্যের সঙ্গে জয়ের ভিত গাঁথতে শুরু করেন যশস্বী ও দিব্যাংশ। শেষের দিকে অবশ্য ঝড় তোলে যশস্বীর ব্যাট। ওভারবাউন্ডারি মেরে কেতাবি শতরান করেন এই ওপেনার।

মাত্র ৪৩.১ ওভারেই ১৭২ রানে শেষ হয় পাকিস্তানের ইনিংস। দুর্দান্ত ব্যাট করেন অধিনায়ক রোহেইল নাজির ও ওপেনার হায়দার আলি। জেতার জন্য ভারতের সামনে টার্গেট ১৭৩ রান।

পাকিস্তানকে মাত্র ১৭২ রানে বেঁধে ফেলতে সফল ভারতীয় বোলিং ফৌজ।
পাকিস্তানকে মাত্র ১৭২ রানে বেঁধে ফেলতে সফল ভারতীয় বোলিং ফৌজ।

দুর্দান্ত ভাবে ম্যাচে ফেরে ভারত। মাত্র ২৬ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে ৪২তম ওভারে শেষ হয় পাকিস্তানের ব্যাটিং লাইনআপ। ভারতীয় অধিনায়ক প্রিয়ম গর্গের কৌশলী বোলার পরিবর্তন, অসাধারণ ফিল্ডিংয়ে ভর করে ১৭২ রানে প্রতিপক্ষকে বেঁধে ফেলল ভারত।

মঙ্গলবারের সেমি ফাইনালে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় পাকিস্তান। গোড়ায় ভারতের দুই পেসার সুশান্ত শর্মা ও কার্তিক ত্যাগী গতি ও সুইং কাজে লাগিয়ে নাকাল করেন পাক ব্যাটসম্যানদের। হায়দার আলি একা তার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়ে ৫৪ রানের মূল্যবান ইনিংস খেলেন।

আরও পড়ুন: দিব্যাংশের উড়ন্ত ক্যাচে মুগ্ধ মাঠ


হায়দারের সঙ্গে জুটি বেঁধে বড় রানের দিকে দলকে নিয়ে যাচ্ছিলেন অধিনায়ক তথা পাক দলের উইকেটরক্ষক রোহেইল নাজির। সেই সময় যশস্বী জয়সওয়ালকে এনে বিচক্ষণতার পরিচয় দেন গর্গ। জুটি ভেঙে ফিরে যেতে হয় হায়দারকে।

এর পরে পাক দলের দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নেন নাজির। ক্রিজ আঁকড়ে পড়ে থেকে শেষ পর্যন্ত ৬২ রানের ঝকঝকে ইনিংস তিনি উপহার দেন। তবে তাঁর সঙ্গে যোগ্য সঙ্গতে ব্যর্থ সতীর্থরা। একে একে প্যাভিলিয়নে ফিরে যেতে থাকেন পাক ব্যাটসম্যানরা।শেষ পর্যন্ত ত্যাগির বলে প্যাভিলিয়নে ফিরতে হল ক্রিজ আঁকড়ে থাকা পাক অধিনায়ক রোহেইল নাজিরকে। তাঁর অসাধারণ ৬২ রানের সুবাদে ভদ্রস্থ জায়গায় পৌঁছল পাকিস্তান।

অর্ধশতরান করে দলের রান-ভিত গড়েন পাক ওপেনার হায়দার আলি।
অর্ধশতরান করে দলের রান-ভিত গড়েন পাক ওপেনার হায়দার আলি।

এ দিন ডিপ স্কোয়্যার লেগে দিব্যাংশ সাক্সেনার অসামান্য উড়ন্ত ক্যাচ হতবাক করল সারা মাঠকে। ভারত বনাম পাকিস্তানের সেমি ফাইনালে এমনই কিছু অবিস্মরণীয় মুহূর্ত তৈরি হল মঙ্গলবার।

ম্যাচে ২টি করে উইকেট পেয়েছেন সুশান্ত শর্মা ও রবি বিশনোই। হায়দারের উইকেট তুলে গুরুত্বপূর্ণ মোড় ঘুরিয়েছেন যশস্বী জয়সওয়াল।

অনুর্ধ্ব ১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে মুখোমুখি চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত ও পাকিস্তান। টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ভারতীয় পেসারদের সামনে গোড়াতেই হোঁচট খায় পাক ব্যাটিং ব্রিগেড।


আরও পড়ুন: India vs New Zealand: টেস্টে প্রত্যাবর্তন পৃথ্বীর, দলে এলেন শুভমন-নভদীপ


সুশান্ত শর্মার পেসের মুখে নাকাল হয়ে ফিরলেন হুরাইরা। বাঁ-হাতি স্পিনার ববি বিশনোইয়ের গুগলিতে পর্যুদস্ত হয়ে ফিরলেন ফাহাদ মুনির। দশম ওভারে মাত্র ৩৬ রানে ২ উইকেট হারাল পাকিস্তান।ম্যাচের প্রথম কয়েক ওভারে নতুন বল হাতে পিচ থেকে যথেষ্ট ফায়দা তুলতে সফল হলেন ভারতের পেসাররা।

মঙ্গলবার দুই দলই নিজেদের কোয়ার্টার ফাইনালের উইনিং কম্বিনেশন ধরে রেখেছে। পিচ ও হাওয়ার গতিবেগ মেপে প্রতিদ্বন্দ্বী ব্যাটিং লাইনআপকে নিশানা করে নিজের পেস বাহিনীকে আক্রমণ শানাতে কাজে লাগালেন ভারত অধিনায়ক প্রিয়ম গর্গ। তাঁর ভরসার দাম দিতে শুরু করেন সুশান্ত ও কার্তিক ত্যাগী।

বন্ধ করুন