বাংলা নিউজ > ময়দান > ‘WTC খেতাব জয়ই কেরিয়ারে সেরা মুহূর্ত’, অকপট স্বীকারোক্তি কিউয়ি তারকা ওয়াগনারের
নীল ওয়াগনার। ছবি- রয়টার্স। (Action Images via Reuters)
নীল ওয়াগনার। ছবি- রয়টার্স। (Action Images via Reuters)

‘WTC খেতাব জয়ই কেরিয়ারে সেরা মুহূর্ত’, অকপট স্বীকারোক্তি কিউয়ি তারকা ওয়াগনারের

  • কিউয়ি দলের হয়ে শুধুমাত্র টেস্ট ক্রিকেটই খেলেন ওয়াগনার।

বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ যে শুধুমাত্র লাল বলের ক্রিকেট খেলা তারকাদের কাছে বিশ্বকাপের সমতুল্য, তা আগেই জানিয়েছিলেন চেতেশ্বর পূজারা। কিন্তু নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে পরাস্ত হয়ে খেতাব অধরাই রয়ে গিয়েছে তাঁর। তবে কিউয়ি দলের টেস্ট বিশেষজ্ঞ নীল ওয়াগনারের স্বপ্ন সত্যি হয়েছে। 

ফাইনাল জেতার পর বেশ কয়েকঘন্টা কেটে গেলেও ঘোর কাটছে না তাঁর। বরং দেশে ফিরে সমর্থকদের উৎসাহ ও শুভেচ্ছাবার্তার মধ্যেও এই জয়ই তাঁর কেরিয়ারের সেরা মুহূর্ত, তা অকপট স্বীকার করে নিচ্ছেন্ন কিউয়ি ফাস্ট বোলার।

ওয়াগনার বলেন, ‘বাকিদের কথা আমি বলতে পারব না, তবে আমার কাছে এটাই নিজের কেরিয়ারের সেরা মুহূর্ত। ভারতের মতো শক্তিশালী দেশের বিরুদ্ধে জেতা এবং যেভাবে আমরা জিতি, তার কোন তুলনা হয়না। বিশেষ করে যেহেতু এটি প্রথমবার আয়োজিত হয়েছিল (বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ), তাই এর আনন্দ আরও বেশি। বাড়ি ফিরে দেশের জনগণ, সমর্থক, আত্মীয়-পরিজন সকলের উৎসাহ দেখে আমরা আপ্লুত।’

৩৫ বছর বয়সী ওয়াগনার জাতীয় দলের হয়ে সীমিত ওভারের ক্রিকেট খেলেননা। তাই বিশ্বকাপ জেতার সুযোগ যে তাঁর নেই, সেই বিষয়ে ভালভাবেই অবগত ওয়াগনার। টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের আগমনে যে খুশিই হয়েছিলেন, তা কোন রাখঢাক না করেই মেনে নেন তিনি। তবে এখনই ক্রিকেটকে বিদায় জানানোর কোনরকম চিন্তাভাবনা তাঁর নেই বলেই সাফ জানিয়ে দেন তিনি।

‘আমার বয়স খুব বেশি নয় এবং শারীরিক দিক থেকেও আমি ভাল জায়গায় আছি। শেষ তিনটি টেস্ট ম্যাচ খেলতে আমার বিন্দুমাত্র কষ্ট হয়নি। সুতরাং, আমার জন্য এটা ভাল খবর। বরং সত্যি বলতে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ আমায় নিজের দক্ষতার ওপর আরও পরিশ্রম করার অনুপ্রেরণা জুগিয়েছে। যতদিন আমার শরীর সঙ্গ দেব এবং নিজেকে আরও উন্নত করার ইচ্ছাশক্তি আমার মধ্যে থাকবে, ততদিন খেলা চালিয়ে যেতে আমার কোনরকম সমস্যাই হবে না।’ বলে মনে করেন কিউয়ি ফাস্ট বোলার।

বন্ধ করুন