বাংলা নিউজ > ময়দান > পাকিস্তান দলের মধ্যে কীভাবে গ্রুপবাজি চলে, বাস্তব সত্যটা সামনে আনলেন প্রাক্তন তারকা
আব্দুর রেহমান।
আব্দুর রেহমান।

পাকিস্তান দলের মধ্যে কীভাবে গ্রুপবাজি চলে, বাস্তব সত্যটা সামনে আনলেন প্রাক্তন তারকা

  • পাকিস্তান ক্রিকেট দলের দিকে একের পর এক তোপ দেগে চলেছেন প্রাক্তন ও বর্তমান ক্রিকেটাররা।

মাঠের লড়াইয়ে পাকিস্তান ক্রিকেট দল সাম্প্রতিক ধারাবাহিকতা দেখালেও, মাঠের বাইরে থেকে ধেয়ে আসা ক্রমাগত আক্রমণ সামাল দেওয়া রীতিমতো মুশকিল হয়ে দাঁড়াচ্ছে বাবর আজমদের। একের পর এক প্রাক্তন ও বর্তমান ক্রিকেটার তোপ দেগে চলেছেন পাকিস্তান দলকে উদ্দেশ্য করে।

আসিফ-জুনাইদরা স্পষ্ট ভাষায় জানিয়েছেন যে, পাকিস্তান দলের পর্যাপ্ত সুযোগ পাওয়ার জন্য ম্যানেজমেন্টের প্রিয়পাত্র হওয়া দরকার। শোয়েব মালিকের মতো অভিজ্ঞ তারকা পাক দলে স্বজনপোষণের অভিযোগ তুলেছেন। এবার আরও একধাপ এগিয়ে আব্দুর রেহমান অভিযোগ করেন গ্রুপবাজির।

প্রাক্তন বাঁ-হাতি স্পিনার জানান, পাকিস্তান দলে কেউ যদি ক্যাপ্টেনের পছন্দের হন, তবে তিনি অবধারিতভাবে কোচের চক্ষুশূল হবেন। আর যদি কোচ কাউকে পছন্দ করেন, তবে ক্যাপ্টেনের দু'চোক্ষের বিষ হয়ে দাঁড়াবেন তিনি। সুতরাং, পাকিস্তান দলের মধ্যেই কোচ ও ক্যাপ্টেনের আলাদা আলাগা গ্রুপ রয়েছে।

ক্রিকেট পাকিস্তানের সঙ্গে আলোচনার সময় ৪১ বছর বয়সী রেহমান বলেন, ‘ক্যাপ্টেনের ইয়েশম্যান হওয়ার সুবিধা এবং অসুবিধা দুইই আছে। যদি ক্যাপ্টেনর সঙ্গে ভালো সম্পর্ক হয়, তবে কোচ রেগে যাবে। পছন্দ-অপছন্দের বিষয়টা অনেক কিছুর উপর নির্ভর করছে। যদি কোচ কাউকে পছন্দ করে, তবে ক্যাপ্টেন সেটা ভালো চেখে দেখবে না। সুতরাং, দু’জনের কেউ একজন প্লেয়ারদের ছেঁটে ফেলার চেষ্টা করবে। কারণ, হয় সেই খেলোয়াড়কে তার পছন্দ নয়। নতুবা তার সঙ্গে সময় কাটায় না।'

বন্ধ করুন