বাংলা নিউজ > ময়দান > ক্যাপ্টেনের অমতেই বাদ দেওয়া হয়েছে মুশফিকুরকে? মাহমুদুল্লাহর কথায় তেমনই ইঙ্গিত
মুশফিকুর রহিম (ছবি:টুইটার)
মুশফিকুর রহিম (ছবি:টুইটার)

ক্যাপ্টেনের অমতেই বাদ দেওয়া হয়েছে মুশফিকুরকে? মাহমুদুল্লাহর কথায় তেমনই ইঙ্গিত

  • বাংলাদেশ অধিনায়ক টিম ম্যানেজমেন্টের কাঁধে দায় চাপালেন।

'মুশফিকুর রহিম কেন বাদ, টিম ম্যানেজমেন্টকে জিজ্ঞাসা করুন।' কার্যত এভাবেই বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ বুঝিয়ে দিলেন, অভিজ্ঞ মুশফিককে টি-২০ দল থেকে ছেঁটে ফেলা হয় তাঁর অমতেই। মাহমুদুল্লাহ স্পষ্ট স্বীকার করে নেন যে, তিনি মুশফিকুরকে বাদ দেওয়ার পক্ষপাতী ছিলেন না এবং তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজে তারকা উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যানকে মিস করবে দল।

শুক্রবার থেকে ঘরের মাঠে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজে খেলতে নামছে বাংলাদেশ। সিরিজের জন্য বাংলাদেশের টি-২০ স্কোয়াডে জায়গা হয়নি মুশফিকুর রহিমের। মুশফিক নিজে বিশ্রাম না চাইলেও নির্বাচকরা সামনের ঠাসা ক্রীড়াসূচির কথা মাথায় রেখেই নাকি বিশ্রাম দিয়েছেন মুশফিকুরকে। যদিও টি-২০ বিশ্বকাপে একেবারেই ছন্দে না থাকায় অভিজ্ঞ তারকাকে আসলে বাদ দেওয়া হয়েছে বলে মত বিশেষজ্ঞদের একাংশের।

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজ শুরুর আগে মাহমুদুল্লাহর কাছে মুশফিকুরের বাদ পড়ার প্রসঙ্গে জানতে চাওয়া হয়। Cricbuzz-এর তুলে ধরা উদ্ধৃতি অনুযায়ী বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন, ‘(মুশফিকুর কেন নেই) টিম ম্যানেজমেন্টের কাছে জানতে চাওয়াই ভালো হবে। টিম ম্যানেজমেন্টই ভালো বলতে পারবে। আমি জানি না মুশফিকুর কী বলেছে। সেটা জানার পরেই মন্তব্য করতে পারব। সিদ্ধান্তটা নিতান্তই টিম ম্যানেজমেন্টের এবং আমি এবিষয়ে কিছু বলতে পারব না। তবে আমি শুধু এটুকুই বলতে পারি যে, সিরিজে আমরা মুশফিকুরকে মিস করব।’

উল্লেখ্য, ১৯, ২০ ও ২২ নভেম্বর ঢাকায় পাকিস্তানের বিরুদ্ধে তিনটি টি-২০ ম্যাচে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। তার পরে ২৬ নভেম্বর থেকে চট্টগ্রামে খেলা হবে সিরিজের প্রথম টেস্ট। ৪ ডিসেম্বর থেকে ঢাকায় খেলা হবে সিরিজের দ্বিতীয় তথা শেষ টেস্ট।

বন্ধ করুন