বাংলা নিউজ > ময়দান > পারফরম্যান্স ভালো করতে মাদক নিতেন ইমরান, বুঁদ থাকতেন চরস-গাঁজায়, বিস্ফোরক অভিযোগ প্রাক্তন পাক তারকার
ইমরান খান (ফাইল ছবি, সৌজন্য রয়টার্স)
ইমরান খান (ফাইল ছবি, সৌজন্য রয়টার্স)

পারফরম্যান্স ভালো করতে মাদক নিতেন ইমরান, বুঁদ থাকতেন চরস-গাঁজায়, বিস্ফোরক অভিযোগ প্রাক্তন পাক তারকার

  • বিস্ফোরক অভিযোগ ইমরান খানের প্রাক্তন সতীর্থের।

শুভব্রত মুখার্জি

পাকিস্তানের অন্যতম সফলতম ক্রিকেটার তিনি। ১৯৯২ সালে পাকিস্তান প্রথম বিশ্বকাপ জিতেছিল মূলত এই ইমরান খানের হাত ধরেই। তাঁর নেতৃত্বে উঠে এসেছিলেন একাধিক ভবিষ্যৎ তারকা। বর্তমানে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী তিনি। এবার তাঁর বিরুদ্ধে আঙুল তোলা হল। ইমরানের একসময়ের সতীর্থ পেস তারকা সরফরাজ নওয়াজ অভিযোগ করলেন,  ইমরান খান নাকি ক্রিকেটীয় জীবনে প্রচুর মাদক গ্রহণ করতেন। গাঁজা, কোকেন নিতেন তিনি। গাঁজা খাওয়া ছিল তাঁর নিত্যনৈমত্তিক ব্যাপার। তালিকায় ছিল কোকেন, চরস-সহ বিভিন্ন মাদক। 

এমন বিস্ফোরক অভিযোগ করে সরফরাজ সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারও দিয়েছেন। সেই ভিডিয়ো ইতিমধ্যে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। ভিডিয়োতে তিনি রীতিমতো চ্যালেঞ্জ ছুড়েছেন ইমরানকে। ১৯৯২ সালে বিশ্বকাপ জেতার পর থেকে দেশের অবিসংবাদিত নায়কে পরিণত হয়েছিলেন অলরাউন্ডার ইমরান। সরফরাজ নওয়াজ দাবি করেছেন, ইংল্যান্ড সফরে ভালো করতে পারছিলেন না ইমরান। পারফরম্যান্স ভালো করার জন্য তিনি মাদক নিয়েছিলেন। ইমরান যখন ইসলামাবাদে নিজের বাড়িতে থাকতেন, তখন প্রতি বেলায় খাবারের পর চরস সেবন করতেন।

সরফরাজের কথায়, 'গাঁজা সেবন ছিল ইমরানের নিয়মিত ব্যাপার। লন্ডনেও স্বভাব বদলায়নি তার। আমার বাড়িতেও করেছে। ১৯৮৭ সালে মহসিন খান, আবদুল কাদির ও সেলিম মালিককে নিয়ে আমার ইসলামাবাদের বাড়িতে গাঁজা খেতে এসেছিল। খাবারের পর সে চরস সেবন করেছিল। নাক দিয়ে ড্রাগ সেবন করত তারা। লন্ডনে সে কিছু একটা দিয়ে রোল বানাত এবং নাক দিয়ে ভিতরে নিয়ে নিত।'

বন্ধ করুন