বাংলা নিউজ > ময়দান > IND vs AFG: যে ব্যাটিং পায় না, সে বল পায়-কার্তিকের বোলিং দেখে মজার প্রতিক্রিয়া
দীনেশ কার্তিক প্রথম বার বোলিং করলেন।

IND vs AFG: যে ব্যাটিং পায় না, সে বল পায়-কার্তিকের বোলিং দেখে মজার প্রতিক্রিয়া

  • আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে ১৭০টি ম্যাচ খেলে ফেলেছেন কার্তিক। কিন্তু এই প্রথম তিনি বল করলেন। যা দেখে সকলেই হতবাক। কার্তিক ১ ওভারে দেন ১৮ রান। তাঁর ওভারে ২টি ছয় হয়েছে। তবে নিয়মরক্ষার ম্যাচে কার্তিককে বোলিং করতে দেখে সকলে মজাই পেয়েছেন।

ভারত এবং আফগানিস্তানের মধ্যে সুপার ফোরের ম্যাচে প্রথম বার বল করলেন দীনেশ কার্তিক। যদিও বল হাতে তিনি জিরো নম্বরই পেলেন। ম্যাচের শেষ ওভারে কার্তিককে বল দিয়েছিলেন কেএল রাহুল। তাঁর বলে ১৮ রান নেয় আফগানিস্তান। যদিও ম্যাচটি ভারত জিতবেই, এটা নিশ্চিত জানার পরেই কার্তিকের হাতে বল তুলে দেওয়া হয়। ব্যাট করার সুযোগ পাননি, তাই বল করেই দুধের স্বাদ ঘোলে মেটালেন কার্তিক। যাইহোক আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে ১৭০টি ম্যাচ খেলে ফেলেছেন কার্তিক। কিন্তু এই প্রথম তিনি বল করলেন। যা দেখে সকলেই হতবাক।

আরও পড়ুন: T20 WC-এ ১৬ সেপ্টেম্বর ভারতের দল ঘোষণা, বুমরাহকে নিয়ে প্রশ্ন, শামি সুযোগ পাবেন?

বৃহস্পতিবার দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে ভারত-আফগানিস্তান নিয়মরক্ষার ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল। কারণ এই দুই দলই ইতিমধ্যে ২০২২ এশিয়া কাপ থেকে ছিটকে গিয়েছে। ম্যাচটি টিম ইন্ডিয়া ১০১ রানে জেতে। তবে ম্যাচের শেষ ওভারে কার্তিককে দিয়ে বল করানোর অধিনায়ক কেএল রাহুলের সিদ্ধান্তে সকলে অবাক হয়ে যায়। আর কার্তিককে ক্যারিয়ারে প্রথম বার বল করতে দেখার পর টুইটারে প্রতিক্রিয়ার বন্যা বইছে।

আরও পড়ুন: অজিদের কাছে হেরে শীর্ষস্থান হারাল কিউয়িরা, ভারত কত নম্বরে?

কার্তিক ১ ওভারে দেন ১৮ রান। তাঁর ওভারে ২টি ছয় হয়েছে। এমন কী কার্তিকের বল খেলতে গিয়ে আফগান তারকার ব্যাট হাত থেকে ছিটকে যায়। সব মিলিয়ে ১০১ রানে জেতা ম্যাচে কার্তিকের বোলিং মজার ঘটনা হয়ে দাঁড়ায়। তবে শেষ ওভারটি গুরুত্বপূর্ণ হলে বা রানরেটের বিষয় থাকলে নিঃসন্দেহে কার্তিককে বল দেওয়া হত না। যাইহোক ভক্তরা মজা করে বলছেন, ‘ব্যাট পাইনি বলে, বোলিং করতে দেওয়া হয়েছে কার্তিককে’।

বৃহস্পতিবার অধিনায়ক মহম্মদ নবি টসে জিতে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেন। প্রথমে ব্যাট করে, বিরাট কোহলির সেঞ্চুরি এবং কেএল রাহুলের হাফ সেঞ্চুরির সৌজন্যে টিম ইন্ডিয়া রানের পাহাড় গড়ে। ২০ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে ২১২ রান করে ভারত। এবং আফগানিস্তানকে জয়ের জন্য ২১৩ রানের লক্ষ্য দেয়। জবাবে ইব্রাহিম জাদরানের হাফ সেঞ্চুরিতে আফগানিস্তান ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১১১ রান করে। ভারত ম্যাচটি ১০১ রানে জিতে যায়। যদিও এই ম্যাচের আগেই ভারত এবং আফগানিস্তান দুই দলই টুর্নামেন

বন্ধ করুন