বাংলা নিউজ > ময়দান > IND vs AUS: হারের পরে বোলারদের উপর দোষ চাপালেন ফিঞ্চ

IND vs AUS: হারের পরে বোলারদের উপর দোষ চাপালেন ফিঞ্চ

সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ (ছবি-এপি)

এগিয়ে গিয়ে ২-১ ফলে সিরিজ হেরে স্বাভাবিকভাবেই হতাশ অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ। ম্যাচ শেষে তাঁর স্পষ্ট বক্তব্য, জানতাম আমাদের নিয়মিত উইকেট নিতেই হত। না হলে এই পরিবেশে ভারতকে আটকান মুস্কিল ছিল।

শুভব্রত মুখার্জি: ভারতের মাটিতে রবিবারেই ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়ার টি টোয়েন্টি সিরিজের যবনিকা পতন ঘটেছে। সিরিজের প্রথম ম্যাচ ভারত মোহালিতে হারার পরে দুরন্ত কামব্যাক করে সিরিজ জিতে নিয়েছে রোহিত বাহিনী। এগিয়ে গিয়ে ২-১ ফলে সিরিজ হেরে স্বাভাবিকভাবেই হতাশ অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ। ম্যাচ শেষে তাঁর স্পষ্ট বক্তব্য, জানতাম আমাদের নিয়মিত উইকেট নিতেই হত। না হলে এই পরিবেশে ভারতকে আটকান মুস্কিল ছিল।

ফিঞ্চ জানিয়েছেন, ‘খুব ভালো একটা সিরিজ আমরা খেলেছি। মিডল ওভারে আমরা আমাদের নার্ভ ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছিলাম। সিরিজটা গ্রিনের জন্যেও খুব ভালো সিরিজ ছিল। আমরা মনে করেছিলাম আমাদের রানটা খারাপ নয়। পরের দিকে শিশির পড়তে শুরু করে। আমরা জানতাম আমাদের উইকেট নিতেই হত। কারণ ভারতকে শুধুমাত্র আটকে রাখা সম্ভব হত না। আমাদের পরিকল্পনা বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে আমাদের বেশ কিছু সমস্যা ছিল। বিশ্বমানের একটা দলের বিরুদ্ধে পরপর তিনটি ম্যাচ খেলাটা আমাদের জন্যেও খুব ভালো একটা অভিজ্ঞতা ছিল। গ্রিন একজন অত্যন্ত প্রতিভাবান নবীন ক্রিকেটার। ও নিজেকে চিনিয়েছে। এর আগে খুব বেশি টি-২০ খেলেনি। তবে ও কাজটা খুব ভালভাবেই করেছে।’

আরও পড়ুন… PAK vs ENG: রোহিত-শিখরকে পিছনে ফেলে বাইশ গজে ইতিহাস গড়ল বাবর-রিজওয়ান জুটি

রবিবার হায়দরাবাদের ম্যাচে টসে জিতে রোহিত শর্মা বল করার সিদ্ধান্ত নেন। ব্যাট হাতে এদিন আক্রমণাত্মক খেলা শুরু করেন ক্যামেরন গ্রিন। তিনি ২১ বলে ৫২ রান করেন। অপর আক্রমণাত্মক ব্যাটার টিম ডেভিড মাত্র ২৭ বল খেলে করেন ৫৪ রান। এ ছাড়া জস ইঙ্গলিশ ২২ বলে ২৪ এবং ড্যানিয়েল স্যামস ২০ বলে ২৮ রান করে অপরাজিত থাকেন। ফলে ২০ ওভারে অজিরা ৭ উইকেটে ১৮৭ রান করতে সমর্থ হয়। হার্ষাল প্যাটেল এদিন ২ ওভার বল করে ১৮ রান দিয়ে নেন একটি উইকেট। টিম ডেভিডকে প্যাভিলিয়নে ফেরান তিনি।

আরও পড়ুন… ১ক্যালেন্ডার বর্ষে আন্তর্জাতিক টি-২০তে সর্বাধিক ছয় হজমের লজ্জার নজির হার্ষালের

রান তাড়া করতে নেমে ভারত খুব অল্প রানেই হারায় তাদের দুই ওপেনার রোহিত শর্মা এবং কেএল রাহুলকে। রাহুল ১ এবং রোহিত ১৭ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন। এরপরেই ম্যাচের রঙ বদলে দেয় বিরাট ও সূর্যের পার্টনারশিপ। বিরাট কোহলির ৬৩ এবং সূর্যকুমার যাদবের ৬৯ রানে ভর করে সহজেই জয়ের দিকে এগিয়ে যায় ভারত। সূর্য মাত্র ৩৬ বলে ৬৯ রানের একটি অতি আক্রমণাত্মক ইনিংস খেলেন। তাঁর ইনিংসে সাজানো ছিল ৫টি চার এবং ৫টি ছয়ে। ১৬ বলে ২৫ রান করে অপরাজিত থেকে সেই জয় নিশ্চিত করেন হার্দিক পান্ডিয়া।

বন্ধ করুন