বাংলা নিউজ > ময়দান > Ind vs Aus: ‘দ্য ওয়াল’-এর জন্মদিনে পূজারা, বিহারী, অশ্বিনদের 'ডিফেন্সিভ' শ্রদ্ধার্ঘ্য
ম্যাচের দুই অন্যতম নায়ক (ছবি সৌজন্য @BCCI)
ম্যাচের দুই অন্যতম নায়ক (ছবি সৌজন্য @BCCI)

Ind vs Aus: ‘দ্য ওয়াল’-এর জন্মদিনে পূজারা, বিহারী, অশ্বিনদের 'ডিফেন্সিভ' শ্রদ্ধার্ঘ্য

  • দুর্দান্ত ধৈর্য, প্রতিজ্ঞার পরিচয়।

শুভব্রত মুখার্জি

ভারতীয় ক্রিকেটের ইতিহাসে 'চিনের প্রাচীর' একজনই‌। পেস হোক বা স্পিন - দেশের মাটি হোক কিংবা বিদেশের মাটি সর্বত্রই ভারতীয় ব্যাটিং অর্ডারের অন্যতম স্তম্ভ ছিলেন বর্তমানে বেঙ্গালুরুর জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমির (এনসিএ) দায়িত্বে থাকা রাহুল দ্রাবিড়। আজ তাঁর জন্মদিনে সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে তার বর্তমান ভারতীয় দলের ক্রিকেটাররা তাঁকে এক অভিনব 'ডিফেন্সিভ' শ্রদ্ধার্ঘ্য প্রদান করলেন। অনবদ্য দাঁতে দাঁত চেপে লড়াই করে অজিদের মুখের গ্রাস ছিনিয়ে নিয়ে এলেন ঋষভ পন্ত, চেতেশ্বর পূজারা, হনুমা বিহারী এবং রবিচন্দ্রন অশ্বিনরা।

ভারতীয় ক্রিকেটের ‘দ্য ওয়াল’-এর জন্মদিনে অনবদ্য পারফরম্যান্স উপহার দিলেন ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা। সাম্প্রতিক অতীতে শেষ কবে কোনও টেস্ট খেলিয়ে দলের এমন অনবদ্য পারফরম্যান্স করেছে, তা মনে করতে না। প্রায় তিন ঘণ্টার কাছাকাছি ব্যাট করে ম্যাচ বাঁচালেন হনুমা বিহারী, রবিচন্দ্রন অশ্বিনরা।

পূজারা যখন আউট হলেন তখনও দিনের খেলা শেষ হতে বাকি প্রায় ৪৫ ওভার। স্কোরবোর্ডে ভারতের রান তখন ২৭২ রানে ৫ উইকেট। ক্রিজে তখন চোট পাওয়া বিহারী। থাইয়ে হেডিং স্ট্যাপিং নিয়ে লড়াই চালাচ্ছেন তিনি। তাঁর সঙ্গে ২২ গজে জুটি বাঁধলেন অশ্বিন। পেনকিলার-ই়ঞ্জেকশন নিয়েও খেলতে নামার অপেক্ষায় ছিলেন রবীন্দ্র জাদেজা। 

চলতি সিরিজে অফ-ফর্মে থাকা বিহারী সম্ভবত জীবনের সেরা ইনিংস খেললেন। চাপের মুখে এই দুই ব্যাটসম্যানের দৃঢ়প্রতিজ্ঞ মনোভাব ভারতকে এনে দিল এক পরম তৃপ্তির ড্র। ফলে দিনের শেষে আর ক্রিজে নামতে হল না বিহারীকে। দিনের শুরুটা অত্যন্ত খারাপ হয়েছিল ভারতের। চতুর্থ বলেই আউট হন অধিনায়ক রাহানে। ভারতীয় সমর্থকদের মনে যখন আশঙ্কার মেঘ জমছিল তখন তা সরানোর দায়িত্ব কাঁধে তুলে নেন পূজারা-পন্ত জুটি। 

ঋষভ পন্তের কাউন্টার অ্যাটাকে তখন দিশেহারা অজি বোলাররা। কেন টিম ম্যানেজমেন্ট ঋদ্ধিমান সাহার থেকে বেশি নির্ভরযোগ্য মনে করেন পন্তকে, তা আরও একবার প্রমাণ করে দিলেন তিনি। পন্তের দাপটে তখন ছন্নছাড়া বোলিং শুরু করেছেন মিচেল স্টার্ক, জোস হ্যাজেলউড, প্যাট কামিন্সরা ফলে উঁকি মেরে উঠেছিল ভারতের জয়ের স্বপ্ন। তবে নিজের শতরান থেকে তিন রান দূরে ৯৭ রান করে নাথান লিঁয়র বলে আউট হয়ে গেলে তখন ভারতের কাছে লড়াইটা ছিল ম্যাচ বাঁচানোর। পূজারা, পন্তদের দেখানো পথেই তখন একেবারে মাটি কামড়ে থেকে যে লড়াইয়ে ভারতকে 'জয়ী' করলেন অশ্বিন, বিহারীরা।

বন্ধ করুন