বাংলা নিউজ > ময়দান > IND vs AUS: ভারতের বোলিং আক্রমণ সে ভাবে শক্তিশালী নয়- পিচ বিতর্কে রোহিতদের খোঁচা গাভাসকরের

IND vs AUS: ভারতের বোলিং আক্রমণ সে ভাবে শক্তিশালী নয়- পিচ বিতর্কে রোহিতদের খোঁচা গাভাসকরের

বোলিং নিয়ে ভারতকে খোঁচা সুনীল গাভাসকরের।

ইন্ডিয়া টুডে-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে গাভাসকর ব্যাখ্যা করেছেন যে, ভারতের বোলিং আক্রমণ নিশ্চয়ই দুর্বল। কারণ বোলিং লাইনআপে জসপ্রীত বুমরাহ নেই। ইন্দোরে মহম্মদ শামি ছিলেন না। এবং ২০ উইকেট নেওয়ার ক্ষমতা বাকিদের ছিল না। তাই, ভারত পিচ পরিবর্তন করেছে, যাতে স্পিনাররা সুবিধে পায়।

বর্ডার-গাভাসকর ট্রফিতে এখনও পর্যন্ত যে তিনটি টেস্ট খেলা হয়েছে, তাতে পিচই মুখ্য ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছে। পিচ নিয়ে শুরু থেকেই ভারত তৎপর হয়েছিল। এবং তাদের পরিকল্পনা অনুযায়ী প্রথম দুই টেস্টে ভারত ২-০ এগিয়েও গিয়েছিল। কিন্তু ইন্দোরে বুমেরাং হয়েছে। এবং ভারত ইন্দোর টেস্টে বাজে ভাবে হেরে গিয়েছে। আইসিসি-ও এই পিচকে খারাপ আখ্যা দিয়েছে।

ভারতের ব্যাটিং কিংবদন্তি সুনীল গাভাসকর আমেদাবাদে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে চতুর্থ টেস্ট ম্যাচের আগে রোহিত শর্মার নেতৃত্বাধীন দলকে খোঁচা দিয়ে বলেছেন যে, তাদের তারকা বোলারদের অনুপস্থিতিতে বোলিং আক্রমণকে দুর্বল বলে মনে হয়েছে। প্রসঙ্গত, ইন্দোর টেস্টে মহম্মদ শামিকে খেলানো হয়নি। আর জসপ্রীত বুমরাহ তো চোটের কারণে দলের বাইরে।

আরও পড়ুন: এই সব পিচে ব্যাট করা দুঃস্বপ্ন- কোহলির ফর্ম নিয়ে কথা উঠতেই যুক্তি সাজালেন পন্টিং

ইন্ডিয়া টুডে-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে গাভাসকর ব্যাখ্যা করেছেন যে, ভারতের বোলিং আক্রমণ নিশ্চয়ই দুর্বল। কারণ বোলিং লাইনআপে জসপ্রীত বুমরাহ নেই। ইন্দোরে মহম্মদ শামি ছিলেন না। এবং ২০ উইকেট নেওয়ার ক্ষমতা বাকিদের ছিল না। তাই, ভারত পিচ পরিবর্তন করেছে, যাতে স্পিনাররা সুবিধে পায়।

গাভাসকরের দাবি, ‘ভারতে ২০ উইকেট নেওয়া মোটেও সহজ কাজ নয়। অনেক ভারতীয় পিচে, আপনার তারকা বোলার জসপ্রীত বুমরাহ আর মহম্মদ শামি এবং কিছুটা মহম্মদ সিরাজ রয়েছে, তা ছাড়া আমি মনে করি না যে, বোলিং আক্রমণ ভারতের এমন কিছু শক্তিশালী। কিন্তু শুকনো পিচ থেকে সামান্য সাহায্য পেলে, ভারত সম্ভবত ২০ উইকেট নিতে পারে। আমি মনে করি, এই ধরনের পিচ তৈরি করার পেছনে এই চিন্তাটাই কাজ করেছে।’

আরও পড়ুন: রান করতেই থাকব- ভারতীয় দলে ডাক পেয়েও, একাদশে সুযোগ পাননি, এ বার মুখ খুললেন পৃথ্বী

বুমরাহ পিঠের চোট থেকে এখনও সেরে উঠতে পারেননি। তিনি নিউজিল্যান্ডে অস্ত্রোপচারের জন্য গিয়েছেন। এই চোটের জন্য গত বছরের সেপ্টেম্বর থেকে ২২ গজের বাইরে রয়েছেন তিনি। জানা গিয়েছে যে, তারকা বোলার সম্ভবত ২০২৩ আইপিএলেও খেলতে পারবেন না। এমন কী ভারত বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালের জন্য যোগ্যতা অর্জন করলেও, তাঁকে পাওয়া যাবে না। অন্যদিকে, ওয়ার্কলোড ম্যানেজমেন্টের কারণে ইন্দোরে মহম্মদ শামিকে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছিল। তবে সূত্রের খবর, চতুর্থ ও শেষ ম্যাচের জন্য শামিকে একাদশে রাখা হতে পারে।

গাভাসকর বলেছেন, ‘ভারতকে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে পৌঁছানোর জন্য, তাদের কাছে অন্য কোনও বিকল্প ছিল না (টার্নিং ট্র্যাক তৈরি করা ছাড়া)। ভারতের শক্তি হল স্পিনাররা। এবং সেই কারণেই এই ধরনের পিচ তৈরি করা হয়েছে।’

বন্ধ করুন