বাংলা নিউজ > ময়দান > IND vs ENG: 'ছয় বলে ছ'টা ছক্কা খেলেও পরোয়া নেই যদি উইকেট আসে', স্পষ্টবাক সিরিজ সেরা হার্দিক
হার্দিক পাণ্ডিয়া।

IND vs ENG: 'ছয় বলে ছ'টা ছক্কা খেলেও পরোয়া নেই যদি উইকেট আসে', স্পষ্টবাক সিরিজ সেরা হার্দিক

  • রবিবার ম্যাঞ্চেস্টারে জেসন রয়, বেন স্টোকস, জোস বাটলার, লিয়াম লিভিংস্টোনের মতো গুরুত্বপূর্ণ চার উইকেট তুলে নিয়ে একদিকে যেমন ইংল্যান্ডের ব্যাটিং অর্ডারে ধাক্কা দিয়েছেন, তেমনই ব্যাট করতে নেমে ৫৫ বলে ৭১ রানের ইনিংস খেলে ভারতের জয়ের রাস্তা মজবুত করেছেন। ওয়ানডেতে এটাই হার্দিকের সেরা পারফরম্যান্স।

চোটের কারণে আইপিএল ২০২২-এর আগে দীর্ঘ দিন বোলিং করেননি হার্দিক পাণ্ডিয়া। কিন্তু এ বারের আইপিএল থেকে একেবারে পুরনো ছন্দে ফিরে গিয়েছেন তারকা অলরাউন্ডার। বল-ব্যাট দু'ক্ষেত্রেই দুরন্ত ছন্দে রয়েছেন হার্দিক।

রবিবার ম্যাঞ্চেস্টারে জেসন রয়, বেন স্টোকস, জোস বাটলার, লিয়াম লিভিংস্টোনের মতো গুরুত্বপূর্ণ চার উইকেট তুলে নিয়ে একদিকে যেমন ইংল্যান্ডের ব্যাটিং অর্ডারে ধাক্কা দিয়েছেন, তেমনই ব্যাট করতে নেমে ৫৫ বলে ৭১ রানের ইনিংস খেলে ভারতের জয়ের রাস্তা মজবুত করেছেন। ওয়ানডেতে এটাই অলরাউন্ডার হার্দিকের সেরা পারফরম্যান্স।

হার্দিকের অসাধারণ বল

এ দিন তিনি শর্ট বলের চমৎকার ব্যবহার করেন এবং এই ধরনের বল করেই ৭ ওভারে ২৪ রান দিয়ে ৪ উইকেট তুলে নেন। ভারতের জয়ের পর হার্দিক বলেন, ‘আমার কাছে রানের গতি আটকানো এবং ডট বোলিং করা গুরুত্বপূর্ণ ছিল। আমরা শুরুতেই দু'টি উইকেট নিয়েছিলাম। কিন্তু ওরা তার পরেও ভালো ভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছিল। আমাকে তাই পরিকল্পনা বদলাতে হয়েছিল। আমি বুঝতে পেরেছিলাম যে এই উইকেটটি 'ফুল লেন্থ' বলের জন্য নয়। আমি শর্ট বল করার পরিকল্পনা করি।’

এর সঙ্গেই তিনি আগ্রাসী মনোভাব নিয়েই যোগ করেন, ‘আমি উইকেট নেওয়ার জন্য ছয় বলে ছ'টি ছক্কা খেতেও রাজি রয়েছি। আপত্তি করব না।’

আরও পড়ুন: রুটদের বিরুদ্ধে Test, ODI, T20-তে ৪উইকেট,শাকিবের নজির ছুঁলেন হার্দিক

লিভিংস্টোনের বিপক্ষে দুর্দান্ত বোলিং

এ দিন ৩১ বলে ২৭ করে হার্দিকের বলে রবীন্দ্র জাদেজার হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন লিভিংস্টোন। তাঁকে দুর্দান্ত বলে আউট করেন হার্দিক। সে সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হলে, ভারতের তারকা অলরাউন্ডার বলেন, ‘আমি সব সময়ে আমার বাউন্সারগুলিতে ঝুঁকি নিতে চেয়েছিলাম। লিভিংস্টোনও শর্ট বল পছন্দ করে। সে আমার বলে দু'টি ছক্কা মেরেছে কিন্তু ওর উইকেট নেওয়াটাই ম্যাচে বড় পার্থক্য গড়ে দিয়েছে।’

আরও পড়ুন: সেঞ্চুরি করে এশিয়ার প্রথম কিপার হিসেবে ইংল্যান্ডে দুরন্ত নজির পন্তের

তিনি আর বলেন, ‘আমার শরীর এখন ভালো আছে। যে কারণে আমি কোনও সমস্যা ছাড়াই এত বেশি বোলিং করতে পারছি। আমার কাজের চাপ সামলানোর ক্ষেত্রে অধিনায়কের ভূমিকাও গ। আমি কখন বোলিং করতে চাই, আর কখন করতে চাই না, সেটা ও (রোহিত) খুব ভালো করেই জানে।’

পন্তের প্রশংসায় পঞ্চমুখ

হার্দিক আউট হয়ে গেলেও, ঋষভ পন্ত এ দিন ১১৩ বলে ১২৫ রান করে অপরাজিত থেকে ভারতকে ম্যাচ জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন। পন্তের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করে হার্দিক বলেন, ‘আমরা সকলেই জানি, ওর প্রতিভার কথা। আজ ও পুরো পরিস্থিতি অনুযায়ী খেলেছে। পাশাপাশি আমাদের পার্টনারশিপ খেলাকে বদলে দিয়েছে এবং ও যে ভাবে খেলা শেষ করেছে, সেটা বিশেষ ছিল।’

বন্ধ করুন