বাংলা নিউজ > ময়দান > IND vs ENG: দুরন্ত শতরান রুটের, সতীর্থের প্রশংসার জন্য বিশেষণ খুঁজে পাচ্ছেন না জনি বেয়ারস্টো
শতরানের পার্টনারশিপ করার পর জো রুট ও জনি বেয়ারস্টো। ছবি- এএনআই।
শতরানের পার্টনারশিপ করার পর জো রুট ও জনি বেয়ারস্টো। ছবি- এএনআই।

IND vs ENG: দুরন্ত শতরান রুটের, সতীর্থের প্রশংসার জন্য বিশেষণ খুঁজে পাচ্ছেন না জনি বেয়ারস্টো

  • রুট ও বেয়ারস্টো চতুর্থ উইকেটে ১২১ রানের পার্টনারশিপ গড়তে সক্ষম হন।

প্রথম টেস্টের পর দ্বিতীয় টেস্টেও জারি রুট রাজত্ব। লর্ডসে ইংল্যান্ডের প্রথম ইনিংসে ১৮০ রানে অপরাজিত থাকেন জো রুট। এই ইনিংসেই দ্বিতীয় ইংলিশ ক্রিকেটার হিসাবে নয় হাজার টেস্ট রান করার মাইলফলক স্পর্শ করেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক। দিন শেষে সতীর্থের প্রশংসায় পঞ্চমুখ জনি বেয়ারস্টো।

 ম্যাচের পর সাংবাদিক সম্মেলনে বেয়ারস্টো বলেন, ‘নয় হাজার রানের গন্ডি পেরিয়ে ইংল্যান্ড ক্রিকেটের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ টেস্ট রান স্কোরার হওয়া বিরাট গর্বের। উপরন্তু লর্ডসে অপরাজিত ১৮০ রান করা, ওর (রুটের) প্রশংসা করতে বসলে বিশেষণের অভাব দেখা দেবে। ও যেভাবে খেলছে, যেমন ফর্মে রয়েছে, তাতে ওর বিষয়ে বেশি কিছু বলার দরকার পড়ে না। ওর সঙ্গে ব্যাট করা, বড় বড় পার্টনারশিপ গড়া সত্যিই এক দারুণ অভিজ্ঞতা।’

রুটের সঙ্গে চতুর্থ উইকেটের পার্টনারশিপে ১২১ রান যোগ করেন বেয়ারস্টো। তাঁদের লম্বা পার্টনারশিপই ইংল্যান্ড দলকে ভারতের রান টপকাতে অনেকটা এগিয়ে দেয়। দিনের শেষে ইংল্যান্ড ২৭ রানের লিড নিলেও ম্যাচে ভারত না ইংল্যান্ড, কে এগিয়ে সেই বিষয়ে আগে থেকে কোন মন্তব্য করতে নারাজ বেয়াস্টো। তবে তিনি মনে করছেন চতুর্থ দিনে ভারতীয় ব্যাটিং লাইন আপকে চ্যালেঞ্জ জানাতে ইংল্যান্ডের বোলিং বিভাগে প্রয়োজনীয় মাল মশলা রয়েছে।

‘সত্যি বলতে আমি জানি না। সবটাই নির্ভর করছে কালকে আমরা কেমন বল করি তার ওপর। আমাদের হাতে নতুন বল থাকবে, তবে ওদের ক্ষেত্রে দ্বিতীয় নতুন বলে বল করাটা বেশ চ্যালেঞ্জিং ছিল। তাই আগে থেকে কিছুই বলা যায় না। আমরা পুরো উদ্যমে কাল মাঠে নামব এবং উডি (মার্ক উড), জিমি (জেমস অ্যান্ডারসন) সবাই ভিন্ন ধরনের বোলার হওয়ায় আমরা ওদের সবদিক থেকেই চ্যালেঞ্জ জানাতে পারব। আশা করছি আমরা ওদের চাপে ফেলতে পারব।’ জানান বেয়ারস্টো।

বন্ধ করুন