বাংলা নিউজ > ময়দান > ড্রেসিংরুমে বসে মজা দেখেছেন কোচ, লর্ডসে সিনিয়র ক্রিকেটাররাও ডুবিয়েছেন রুটকে, অভিযোগ ভনের
মাইকেল ভন ও জো রুট। ছবি- টুইটার/রয়টার্স।
মাইকেল ভন ও জো রুট। ছবি- টুইটার/রয়টার্স।

ড্রেসিংরুমে বসে মজা দেখেছেন কোচ, লর্ডসে সিনিয়র ক্রিকেটাররাও ডুবিয়েছেন রুটকে, অভিযোগ ভনের

  • লর্ডস টেস্টে হারের জন্য কোচ সিলভারউডেরও দায় নেওয়া উচিত বলে মনে করেন ইংল্যান্ডের প্রাক্তন অধিনায়ক।

লর্ডস টেস্টে ভারতের কাছে হারের ধাক্কা এখনও হজম করতে পারছেন না ব্রিটিশরা। বিশেষ করে সুবিধাজনক জয়গা থেকে শেষ দিনে নাকটীয়ভাবে ম্যাচ খোয়াতে হওয়ার বিষয়টাই মেনে নিতে পারছেন না মাইকেল ভনের মতো প্রাক্তন তারকা।

সোশ্যাল মিডিয়ায় মাইকেল ভন এই নিয়ে ফের একবার নিজের ক্ষোভ উগড়ে দিলেন। এবার তাঁর নিশানায় ইংল্যান্ড কোচ ক্রিস সিলভারউড ও দলের কয়েকজন সিনিয়র ক্রিকেটার। ভনের দাবি, শেষ দিনে যখন শামি-বুমরাহ জুটি ব্যাট হাতে তাণ্ডব চালাচ্ছিলেন, তখন সিলভারউড ড্রেসিংরুমে বসে চুপচাপ মজা দেখেছেন। ক্যাপ্টেনকে নির্দেশ পাঠিয়ে সাহায্য করার কোনও উদ্যোগ নেননি।

ভনের অভিযোগ, এমনকি দলের কয়েকজন সিনিয়র ক্রিকেটারও রুটকে সাহায্য করেননি সেই সময়। অথচ শেষ দিনে শামি-বুমরাহর পার্টনারশিপটাই ম্যাচের মোড় ঘুরিয়েছে। প্রাক্তন ব্রিটিশ অধিনায়ক শেষ দিনের এই পর্বটিকে তাঁর দেখা ইংল্যান্ড ক্রিকেটের সবথেকে খারাপ অধ্যায় হিসেবে চিহ্নিত করেন।

ভন ফেসবুকে লেখেন, ‘বিপর্যয় এসেছিল সেই ঘণ্টায়। দ্বিতীয় টেস্টের পঞ্চম দিনে লাঞ্চের ২০ মিনিট আগে যা ঘটেছে, বহু বছরে ইংল্যান্ড ক্রিকেটে এর থেকে খারাপ কিছু আমি আর দেখিনি। জসপ্রীত বুমরাহকে বাউন্সার করার চেষ্টায় ইংল্যান্ড কীভাবে লড়াই থেকে ছিটকে গিয়েছে, তা নিয়ে বিস্তর আলোচনা ও লেখালিখি হয়েছে। তবে এটা অস্বীকার করা যাবে না যে, রুটকে সেদিন দলের বেশ কিছু সিনিয়র ক্রিকেটারও ডুবিয়েছে। তাদের অনেক আগেই ক্যাপ্টেনের সঙ্গে কথা বলা উচিত ছিল। তবে আমি কোচের তরফেও তত্পরতা দেখতে চেয়েছিলাম।’

ভন আরও লেখেন, ‘সিলভারউড কেন কাউকে জলের বোতল হাতে মাঠে পাঠিয়ে রুটকে জিজ্ঞাসা করেননি যে, হচ্ছেটা কী? কেন পরিকল্পনা বদল করার পরামর্শ দেননি? আমি যখন কী করতে হবে বুঝে উঠতে পারতাম না, আমার মনে আছে ডানকান ফ্লেচার আমার সঙ্গে কী করতেন। দ্বিতীয় টেস্টে ওটাই ছিল বড় মুহূর্ত এবং ইংল্যান্ড সেখানেই মুঠো আলগা করেছে। এর জন্য সিলভারউডকেও দায় নিতে হবে।'

বন্ধ করুন