বাংলা নিউজ > ময়দান > Ind vs Eng: 'ওকে, থ্যাঙ্কস', ব্যাটিংয়ের ধরন নিয়ে 'জ্ঞান', রেগে যেতে যেতেও সামলে নিলেন বিরাট, ভাইরাল ভিডিয়ো
বিরাট কোহলি।
বিরাট কোহলি।

Ind vs Eng: 'ওকে, থ্যাঙ্কস', ব্যাটিংয়ের ধরন নিয়ে 'জ্ঞান', রেগে যেতে যেতেও সামলে নিলেন বিরাট, ভাইরাল ভিডিয়ো

  • দেখে নিন সেই ভিডিয়ো।

বিরাট কোহলি কি তাহলে 'ক্যাপ্টেন কুল' হয়ে গেলেন? সেটা সময়ই বলবে। তার আগে হেডিংলে টেস্টের পর সাংবাদিক বৈঠকে বিরাটের ‘ধন্যবাদ’ মন্তব্যের ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। নেটিজেনদের বক্তব্য, মারাত্মক আত্মসংযম দেখিয়েছেন বিরাট।

শনিবার লিডসে বড়সড় হারের পর যথারীতি ভারতের চার পেসার নীতি নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। বাড়তি ব্যাটসম্যানের প্রয়োজন আছে কিনা, তা নিয়েও বিভিন্ন মহল থেকে বিভিন্ন সওয়াল করা হচ্ছে। কীভাবে প্রথম ইনিংসে ৭৮ রানে গুটিয়ে গেল ভারতের ইনিংস, তা নিয়েও প্রশ্ন আসতে থাকে। সাংবাদিক বৈঠকে বিরাটকে একাধিক প্রশ্নের মুখে পড়তে হয়। তেমনই একটি প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছিলেন বিরাট। যে ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে।

ওই ভিডিয়োয় বিরাট বলছিলেন, ‘যে বলটা ব্যাকফুটে খেলা দরকার, সেটা ফ্রন্টফুটে খেলা হচ্ছে।’ সেই উত্তর পুরোপুরি শেষ হওয়ার আগেই একজন বিরাটকে বলেন, ‘অবশ্যই ইংল্যান্ড ফুল লেংথে বল করছেন এবং প্যাড লক্ষ্য করে আক্রমণ করছে। যখন পিছনে যাওয়ার সুযোগ আছে, ভারতকে দেখে মনে হচ্ছে যে অনেক রানের সুযোগ হারাচ্ছে।’ সেই মন্তব্যের পর সম্ভবত ভিতরে-ভিতরে ভয়ানক রেগে গিয়েছিলেন বিরাট। রীতিমতো সংযমের পরিচয় দিয়ে বিরাট স্রেফ বলেন, ‘আচ্ছা, ধন্যবাদ (ওকে, থ্যাঙ্কস)।'

বিরাটের সেই প্রত্যুত্তর সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। অনেকের বক্তব্য, বিরাটের উত্তর না শুনেই যেভাবে কথা থামিয়ে দিয়েছেন ওই ওই ব্যক্তি, তা মোটেও গ্রহণযোগ্য নয়। এক নেটিজেন সেই ভিডিয়ো পোস্ট করে লিখেছেন, 'রূঢ় হব না, রূঢ় হব না'। একজন আবার লিখেছেন, ‘আমি এমনিতে শান্ত-শিষ্ট প্রকৃতির। কিন্তু বিরাটের জায়গায় থাকলে আমি থাপ্পড় মেরে দিতাম।’

বন্ধ করুন