বাংলা নিউজ > ময়দান > Ind vs Eng: এবারও রুটদের জন্য ‘আতঙ্কের’ পিচ, বিতর্কে রাহানেকেও মুখ খোলালেন প্রাক্তন ইংরেজরা!
অজিঙ্কা রাহানে। (ছবি সৌজন্য বিসিসিআই)
অজিঙ্কা রাহানে। (ছবি সৌজন্য বিসিসিআই)

Ind vs Eng: এবারও রুটদের জন্য ‘আতঙ্কের’ পিচ, বিতর্কে রাহানেকেও মুখ খোলালেন প্রাক্তন ইংরেজরা!

  • বিদেশের উইকেট নিয়ে ভারত তো অভিযোগ করে না। বিরক্ত রাহানে।

চতুর্থ টেস্টেও সম্ভবত রেহাই পাচ্ছে না ইংল্যান্ড। বরং আমদাবাদে আবারও চেনা ‘আতঙ্ক’ স্পিনের চক্রব্যূহে পড়তে চলেছেন জো রুটরা। এমনটাই জানালেন অজিঙ্কা রাহানে। সেইসঙ্গে দ্বিতীয় এবং তৃতীয় টেস্টের পিচ নিয়ে যে বিতর্ক তৈরি হয়েছে, তাতে পাত্তা দেননি ভারতীয় ক্রিকেট দলের সহ-অধিনায়ক। সাফ জানিয়ে দেন, বিষয়টিতে একেবারে ‘গুরুত্ব সহকারে’ দেখা হচ্ছে না।

মঙ্গলবার ম্যাচ-পূর্ববর্তী ভার্চুয়াল সাংবাদিক বৈঠকে রাহানে বলেন, ‘আমার মনে হয়, চেন্নাইয়ে দ্বিতীয় টেস্টের মতো স্পিন-সহায়ক উইকেট হবে। হ্যাঁ, (তৃতীয় টেস্ট) পিঙ্ক বল কিছুটা পার্থক্য করে দিয়েছিল। লাল বলের তুলনায় উইকেটে পড়ে দ্রুতগতিতে এসেছে গোলাপি বল। আমাদের ধাতস্থ হতে হয়েছিল।’ সঙ্গে যোগ করেন, ‘শেষ দুটি টেস্টের উইকেট অনেকটাই একইরকম হবে।’

তারইমধ্যে চেন্নাইয়ের দ্বিতীয় টেস্ট এবং আমদাবাদের তৃতীয় টেস্টের পিচ নিয়ে যে বিতর্ক তৈরি হয়েছে, তা নিয়েও মুখ খুলেছেন রাহানে। বিশেষত প্রাক্তন ইংরেজ ক্রিকেটাররা এখনও পিচ নিয়ে সরব হয়ে যাচ্ছেন। পিচ নিয়ে আইসিসির তরফে কোনও পদক্ষেপ করা না হলেও প্রাক্তন ইংরেজ ক্রিকেটাররা বিতর্ক জিইয়ে রেখেছেন। পিচ নিয়ে তাঁদের সমালোচনার রেশ ধরে ভারতের সহ-অধিনায়ককে প্রশ্ন করা হলে চিরাচরিত বিতর্ক এড়িয়ে চলা রাহানেও ‘জবাব’ দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘যে যা খুশি বলতে চান, তাঁদের বলতে দিন। আমরা যখন বিদেশে যাই, তখন কেউ বলে না যে সেই পিচ কতটা সিম করছে। ওঁরা সবসময় ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের টেকনিক নিয়ে কথা বলেন। আমার মনে হয় না যে লোকজন কী বলছেন, তাতে গুরুত্ব দেওয়ার কিছু আছে।’ 

রাহানের বাণ অবশ্য সেখানেই বন্ধ থামেনি। তিনি বলেন, ‘দেখুন, আমরা যখন বিদেশে যাই, তখন প্রথমদিনের উইকেট স্যাঁতস্যাঁতে হয়। যখন উইকেটে ঘাস থাকে, তখন বল উচু-নীচু হতে থাকে, তখন পিচ বিপজ্জনক হয়ে ওঠে। কিন্তু আমরা সেটা নিয়ে অভিযোগ করি না বা সেটা নিয়ে কখনও বলিনি।’

প্রাক্তন ইংরেজ খেলোয়াড়দের পাত্তা না দিলেও রুটদের একেবারেই খাটো করতে রাজি নন রাহানে। শেষ দুটি টেস্টে হারলেও আরও একটি স্পিন-সহায়ক উইকেটে রুটদের হালকাভাবে নিচ্ছেন না। বরং তিনি বলেন, ‘পিচ একইরকম দেখতে লাগছে। কিন্তু আমি জানি না যে কীভাবে পিচ ব্যবহার করবে। আমাদের অপেক্ষা করতে হবে এবং দেখতে হবে যে কী হচ্ছে।’ সঙ্গে বলেন, ‘আমরা ইংল্যান্ড দলকে সম্মান করি। ওরা খুব ভাবো দল। আমরা শেষ দুটি টেস্টে ভালো ক্রিকেট খেলেছি এবং প্রথম ম্যাচে ইংল্যান্ড খুব ভালো খেলেছিল। আমরা ওদের হালকাভাবে নিচ্ছি। দুটি দলই মাঠে গিয়ে শেষ টেস্ট জিততে নিজেদের সেরাটা উজাড় করে দেবে।’

বন্ধ করুন