বাংলা নিউজ > ময়দান > Ind vs Eng: শতরানের পরোয়া নয়, দলের পরিকল্পনা মেনে লিড পাওয়ার পর মারকুটে ব্যাটিং ঋষভের
আমদাবাদে ঋষভ পন্ত। (ছবি সৌজন্য রয়টার্স)
আমদাবাদে ঋষভ পন্ত। (ছবি সৌজন্য রয়টার্স)

Ind vs Eng: শতরানের পরোয়া নয়, দলের পরিকল্পনা মেনে লিড পাওয়ার পর মারকুটে ব্যাটিং ঋষভের

  • ভারত লিড পাওয়ার পর ছ'টি চার এবং একটি ছক্কা মারেন তরুণ ভারতীয় ব্যাটসম্যান।

প্রথম ৫০ রান এসেছিল ৮২ বলে। আর পরের ৫০ রান করলেন মাত্র ৩৩ বলে। সেই সময় ১০ টি বাউন্ডারি হাঁকান। দলের প্রয়োজনে নিজের শতরানের পরোয়া না করে ঝুঁকি নিয়েছেন ঋষভ পন্ত। খেলেছেন আক্রমণাত্মক। ওয়াশিংটন সুন্দরের সঙ্গে পন্তের পার্টনারশিপের কারণেই চতুর্থ টেস্টে চালকের আসনে আছে ভারত।

শুক্রবার আমদাবাদে যখন পন্ত ব্যাট করতে এসেছিলেন, তখন ভারতের স্কোর ছিল চার উইকেটে ৮০ রান। একটা সময় আশঙ্কা তৈরি হয়েছিল, ভারত প্রথম ইনিংসে পিছিয়ে থাকবে না তো? কিন্তু সেখান থেকে পন্ত ও ওয়াশিংটনের জুটিতে বড় লিড নিয়েছে ভারত। দু'জনেই একেবারে পরিস্থিতি অনুযায়ী খেলছিলেন। বিশেষত আক্রমণাত্মক ব্যাটসম্যান হিসেবে পরিচিত পন্ত তো প্রথম ৫০ রান করেন ৮২ বলে। বলের মান অনুযায়ী খেলছিলেন। পন্তের অর্ধশতরানের সময় ১৯ রানে পিছিয়ে ছিল ভারত। আর ইংল্যান্ডের থেকে ভারত লিড নিতেই একেবারে হাত খোলেন পন্ত।

ভারত লিড পাওয়ার পর ছ'টি চার এবং একটি ছক্কা মারেন তরুণ ভারতীয় ব্যাটসম্যান। ছক্কা মেরেই শতরান করেন। সেই সময় তিনি এতটাই আক্রমণাত্মক ছিলেন যে মাত্র ২০ বলে ৩৫ রান করে তিন অঙ্কের স্কোরে পৌঁছে যান। সেই মনোভাবের জেরে ব্যাকফুটে চলে গিয়েছে ইংল্যান্ড। পরে পন্ত জানান, এটাই ছিল দলের পরিকল্পনা। ভারত লিড পাওয়ার ইংল্যান্ডের উপর চাপ তৈরি করার ছক ছিল। বিসিসিআই টিভিতে রোহিত শর্মাকে পন্ত বলেন, ‘লিড পাওয়ার পর আমার পরিকল্পনা একটাই ছিল - বল দেখে নিজের শট খেলে যাওয়া।’

পন্তের সেই ভয়ডরহীন মনোভাবেই মজেছেন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা। যিনি অস্ট্রেলিয়ায় দু'বার (সিডনি এবং গাব্বা) এবং ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে শতরানের দোরগোড়ায় গেলেও তিন অঙ্কের রান অধরাই থেকে যাচ্ছিল। তা সত্ত্বেও ব্যক্তিগত মাইলস্টোনের পরোয়া না করেই দলের স্বার্থে একেবারে পরিকল্পনামাফিক খেলে গেলেন পন্ত। আর ক্রিকেট দেবতা তো বরাবর সাহসীদের সাহায্য করেই এসেছেন।

বন্ধ করুন