বাংলা নিউজ > ময়দান > IND vs ENG: চলো একটা পার্টনারশিপ গড়ি- জাদেজাকে সহজ পরামর্শ দেন পন্ত
পন্ত এবং জাদেজা নয়া পার্টনারশিপের রেকর্ড করে ফেললেন।

IND vs ENG: চলো একটা পার্টনারশিপ গড়ি- জাদেজাকে সহজ পরামর্শ দেন পন্ত

  • ২৩৯ বলে ২২২ রানের পার্টনারশিপ গড়ে রেকর্ড করেন পন্ত-জাদেজা। এটি ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভারতের করা সর্বোচ্চ পার্টনারশিপ ছিল। টেস্ট ক্রিকেটে এটি ভারতের যৌথ চতুর্থ সর্বোচ্চ পার্টনারশিপ।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পঞ্চম টেস্টের প্রথম দিনে এজবাস্টনে ষষ্ঠ উইকেটের জুটিতে ঋষভ পন্ত-রবীন্দ্র জাদেজা ২২২ রান যোগ করে ভারতকে ম্যাচে ফেরান। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্টে ভারতের সেরা ষষ্ঠ উইকেটের জুটি উপহার দিল দীর্ঘতম টেস্ট সিরিজের পঞ্চম টেস্ট। আর পন্ত-জাদেজা জুটিই ভারতকে পৌঁছে দিল লড়াই করার মতো মঞ্চে। প্রথম দিনের শেষে ভারতের স্কোর ৭ উইকেটে ৩৩৮।

তবে পার্টনারশিপ গড়ার আগে দুই তারকা নিজেদের মধ্য কী কথা বলেছিলেন, তা প্রকাশ করলেন ঋষভ পন্ত। জাড্ডু ক্রিজে এলে, পন্ত তাঁকে বলেছিলেন, ‘চলো একটা পার্টনারশিপের চেষ্টা করি।’

২৩৯ বলে ২২২ রানের পার্টনারশিপ গড়ে রেকর্ড করেন পন্ত-জাদেজা। এটি ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভারতের করা সর্বোচ্চ পার্টনারশিপ ছিল। টেস্ট ক্রিকেটে এটি ভারতের যৌথ চতুর্থ সর্বোচ্চ পার্টনারশিপ।

আরও পড়ুন: হাল আমলে মিডল অর্ডার ভাঙতে খাবি খাচ্ছে ইংল্যান্ড,ট্রেন্ড বজায় রাখলেন পন্ত-জাদেজা

ম্যাচ-পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে জাদেজার সঙ্গে তাঁর রেকর্ড-ব্রেকিং ২২২ রানের পার্টনারশিপের কথা বলতে গিয়ে পন্ত বলেছিলেন, ‘জাদেজা এবং আমার মধ্যে আলোচনা হয়েছিল যে, আমরা একটা পার্টনারশিপ করব। আমি জাদেজাকে একটি বড় পার্টনারশিপ গড়ে তোলার কথা বলেছিলাম। ওকে বলেছিলাম, চলো একটা পার্টনারশিপের চেষ্টা করি। এবং আমরা করেওছি।’

আরও পড়ুন: ইংল্যান্ডকে কচুকাটা করলেন পন্ত, দেখুন ৬ মিনিটের হাইলাইটস

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে খেলা নিয়ে পন্ত বলেছেন, ‘আমি প্রতিপক্ষ নিয়ে খুব একটা ভাবি না। আমি বেশির ভাগ সময়েই আমার খেলার দিকে মনোযোগ দিয়ে থাকি। যখন একজন বোলার একটানা একই জায়গায় বল করে, তখন আমি বাইরে বেরিয়ে খেলার চেষ্টা করি। বোলারদের চাপে রাখতে আমি একটু অপ্রচলিত অন্য রকম শট খেলার চেষ্টা করি।’

প্রধান কোচ রাহুল দ্রাবিড় আবার ঋষভকে পরামর্শ দিয়েছিলেন, ‘বল অনুযায়ী খেলো।’

ঋষভ বলছিলেন, ‘আমি ডিফেন্স করার জন্য অনেক খেটেছি। প্লেইন বলে শট খেলা সমস্যার। তাই থ্রোতে খেলাটা গুরুত্বপূর্ণ। রাহুল দ্রাবিড় ভাইয়ের সঙ্গে আমার যে আলোচনা হয়েছে, সেটা হল, প্রতিটা বল ধরে আমার খেলা উচিত। এবং বাকিটায় খুব বেশি ফোকাস করা উচিত নয়।’

তিনি যোগ করেছেন, ‘আমার কোচ তারক সিনহা স্যার আমাকে অনেক আগে বলেছিলেন যে, তুমি আক্রমণ করতে পারো, তবে তোমাকেও ডিফেন্স করতে হবে। এবং বোলারকে সম্মান করতে হবে, যখন সে ভাল বল করে। আর আমি সেটাই করে থাকি। আমি একটি ভালো শট খেলার দিকে মনোনিবেশ করেছি এবং আমার একশো শতাংশ নিংড়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছি। যা আমাকে উন্নতি করতে সাহায্য করছে।’

পন্ত আরও বলেছেন, ‘চাপ সব সময়েই থাকে। আর এই চাপ নিয়ে ফেললে, ভালো খেলা সম্ভব নয়। এতে ভালো ফলও পাওয়া যায় না। তাই আমি আমার খেলায় আরও ফোকাস করার চেষ্টা করেছি। বোলার তাঁর স্পেলে যে বৈচিত্র্য ব্যবহার করছিলেন, আমি তাতে ফোকাস করার চেষ্টা করেছি। আমার এমন কোনও পূর্ব পরিকল্পনা ছিল না যে এই বিশেষ বোলারের বিরুদ্ধে আমাকে আরও রান করতে হবে।’

বন্ধ করুন