বাংলা নিউজ > ময়দান > IND vs ENG: ইচ্ছা হলে ব্যাটসম্যানরা মাঝপিচে ব্যাট করবে, আম্পায়াররা পন্তকে স্টান্স বদল করতে বলায় গর্জন গাভাসকরের
ঋষভ পন্ত। ছবি- এএনআই।
ঋষভ পন্ত। ছবি- এএনআই।

IND vs ENG: ইচ্ছা হলে ব্যাটসম্যানরা মাঝপিচে ব্যাট করবে, আম্পায়াররা পন্তকে স্টান্স বদল করতে বলায় গর্জন গাভাসকরের

  • ক্রিজের বাইরে ব্যাট করায় পিচ ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার ভয়ে পন্তের স্টান্স বদল করান আম্পায়াররা।

সুনীল গাভাসকর বরাবরই নিজের বলিষ্ঠ মতামত জানাতে পিছপা হন না। সাম্প্রতিক নাসের হুসেনের সঙ্গে প্রাক্তন ভারতীয় দল নিয়ে কথা কাটাকাটিতেই তা সাফ হয়ে গিয়েছে। ফের ঋষভ পন্তকে প্রথম দিনে আম্পায়াররা স্টান্স পরিবর্তন করতে বাধ্য করার ঘটনায় নিজের মতামত জানালেন প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক।

প্রথম দিনের খেলা শেষে সাংবাদিক সম্মেলনে পন্ত জানান, ‘আমি যেহেতু ক্রিজের বাইরে ব্যাট করছিলাম এবং আমার সামনের পা ডেঞ্জার জোনে চলে আসছিল, তাই আম্পায়ররা আমায় জানায় আমি ওখানে দাঁড়াতে পারব না। তাই আমাকে নিজের স্টান্স পরিবর্তন করতে হয়। তবে আমি একা নই সবাই ওই কাজ করবে এবং সবাইকে একই কথা বলবে আম্পায়ররা। আমি পরের বলে ওটা আর করিনি এবং এই বিষয়ে খুব বেশি ভাবনাচিন্তাও করতে চাই না।’

এরপরেই ম্যাচের তৃতীয় দিনে ধারাভাষ্য দেওয়ার সময় এই ঘটনার বিষয়ে নিজের ক্ষোভ উগড়ে দেন ভারতীয় কিংবদন্তী। তিনি বলেন, ‘যদি সত্যি সত্যিই পন্তকে আম্পায়াররা নিজের স্টান্স পরিবর্তনে বাধ্য করে থাকেন, তাহলে সেই ঘটনা আমায় বিস্মিতই করবে। ব্যাটসম্যানরা চাইলে নিজের ইচ্ছামতো ক্রিজের মাঝখানেও দাঁড়াতে পারে। যদি ওর স্টান্সে পিচ খারাপই হয়, তাহলে তো ব্যাটসম্যানরা স্পিনারদের বিরুদ্ধে এগিয়ে গিয়েও খেলতে পারবে না। তখনও পিচ ওদের স্পাইকের ফলে ক্ষতিগ্রস্থ হবে।’

মাঠের পাশপাশি মাঠের বাইরেও যে ভারত-ইংল্যান্ড সিরিজ নিয়ে তীব্র গরমা-গরমি চলছে তা এই ঘটনা আবারও প্রমাণ করে দেয়। পাশপাশি ভারতীয় দলের বিলেতের মাটিতে জয় দেখতে সকলেই কতটা উৎসুক, সেই ছবিও এই ঘটনার মাধ্যমে প্রকাশ পায়। লিডসে তৃতীয় দিনের শেষে ভারত ১৩৯ রানে পিছিয়ে, হাতে রয়েছে আট উইকেট। প্রথম ইনিংসে ৭৮ রানে অলআউট হওয়ার পর ভারত যদি এই টেস্টে পরাজয় এড়াতে সক্ষম হয়, তাহলে নিঃসন্দেহে প্রত্যাশার পারদ আরও চড়বে।

বন্ধ করুন