বাংলা নিউজ > ময়দান > Ind vs Eng: সতীর্থরা দিলেন স্ট্যান্ডিং ওভেশন, নেটপাড়ায় আলোড়ন, সামি-বুমরাহতে মুগ্ধ ক্রিকেট বিশ্ব
দুরন্ত পারফরম্যান্স সামি এবং বুমরাহর। ছবি: পিটিআই
দুরন্ত পারফরম্যান্স সামি এবং বুমরাহর। ছবি: পিটিআই

Ind vs Eng: সতীর্থরা দিলেন স্ট্যান্ডিং ওভেশন, নেটপাড়ায় আলোড়ন, সামি-বুমরাহতে মুগ্ধ ক্রিকেট বিশ্ব

  • সামি এবং বুমরাহর সৌজন্যে ৮ উইকেটে ২৯৮ রানে ইনিংসের সমাপ্তি ঘোষণা করতে পেরেছেন বিরাট কোহলি। সামি অপরাজিত থাকেন ৫৬ রান করে। বুমরাহ ৩৪ রানে নট আউট।এই দুই ক্রিকেটার নবম উইকেটে সর্বোচ্চ রান যোগ করার রেকর্ডও করে ফেলেছেন। নবম উইকেটে অপরাজিত থেকে ৮৯ রান যোগ করেছেন তাঁরা। এটাই নবম উইকেটে সর্বোচ্চ।

ব্রিটিশ বোলারদের দাপটে যখন ভারতীয় ব্যাটিং অর্ডার ধস নেমেছে, তখন ভারতের দুই টেল এন্ডারই আগুন ঝড়ালেন ২২ গজে। যেটা ব্যাটসম্যানরা করতে পারেননি, সেটাই করে দেখালেন মহম্মদ সামি এবং জসপ্রীত বুমরাহ।

এই দুই ক্রিকেটারের সৌজন্যে ৮ উইকেটে ২৯৮ রানে ইনিংসের সমাপ্তি ঘোষণা করতে পেরেছেন বিরাট কোহলি। সামি অপরাজিত থাকেন ৫৬ রান করে। বুমরাহ ৩৪ রানে নট আউট। বিরাট কোহলি হয়তো নিজেও ভাবতে পারেননি এ ভাবে তিনি ইনিংস ডিক্লেয়ার করতে পারবেন। পঞ্চম দিনের শুরুতে ঋষভ পন্ত আউট হয়ে যাওয়ার পর তিনি হয়তো ধরেই নিয়েছিলেন অল আউট হয়ে যাবে ভারত।

বুমরাহ এবং সামি নবম উইকেটে সর্বোচ্চ রান যোগ করার রেকর্ডও করে ফেলেছেন। নবম উইকেটে অপরাজিত থেকে ৮৯ রান যোগ করেছেন তাঁরা। এটাই নবম উইকেটে সর্বোচ্চ।

ইনিংসের সমাপ্তি ঘোষণার পর সামি এবং বুমরাহ ড্রেসিংরুমে ফেরার সময়ে স্ট্যান্ডিং ওভেশন দেন সতীর্থরা। একদিকে লাইন করে দাঁড়িয়ে হাততালি দিয়ে তাঁদের শুভেচ্ছা জানান টিমের সব সদস্যই। রবিচন্দ্রন অশ্বিনরা পিঠ চাপড়ে দেন সামিদের।

নবম উইকেটে দুই টেল এন্ডার ব্যাটসম্যানের কৃতিত্বে উচ্ছ্বসিত নেটপাড়া। মুগ্ধ গোটা ক্রিকেট বিশ্ব। সামি-বুমরাহতে শুভেচ্ছায় ভরিয়ে দিয়েছেন যুজবেন্দ্র চাহাল, বীরেন্দ্র সেহওয়াগ, দীনেশ কার্তিকরা।

বিসিসিআই সচিব জয় শাহ-ও প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন এই দুই ক্রিকেটারকে।

বিসিসিআই সচিব জয় শাহ-ও প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন এই দুই ক্রিকেটারকে।|#+|

চতুর্থ দিনের শেষে ভারত ১৮১ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে গিয়েছিল। পঞ্চম দিনের শুরুতেই ২২ রান করে আউট হয়ে যান ঋষভ পন্ত। তখন দলের রান ১৯৪। পন্ত আউট হওয়ার পর পরই আউট হয়ে যান ইশান্ত শর্মাও (১৬)। তখন ২০৯ রানে ৮ উইকেট পড়ে গিয়েছে। সেখান থেকে দলের মান রক্ষা করেন মহম্মদ সামি এবং জসপ্রীত বুমরাহ।

বন্ধ করুন