বাংলা নিউজ > ময়দান > DRS-এ আম্পায়ার্স কলের নিয়ম বদলের দাবি কোহলির

শুভব্রত মুখার্জি

যতদিন এগোচ্ছে, ক্রিকেটের মতো বিভিন্ন ক্রীড়াক্ষেত্রেও আসছে আধুনিকতার ছোঁয়া। টেকনোলজির ব্যবহারের মধ্যে দিয়ে ক্রীড়াক্ষেত্রকে আরও বেশি নির্ভুল করে তোলার নিরন্তর চেষ্টাতে রয়েছে বিভিন্ন ক্রীড়া সংস্থাগুলি। ক্রিকেটের ক্ষেত্রেও এই ব্যাপারে পিছিয়ে নেই আইসিসি। তারা একের পর এক ক্ষেত্রে বিভিন্ন সিদ্ধান্ত যথার্থভাবে নেওয়ার ক্ষেত্রে একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছে। তার মধ্যে অন্যতম বড় পদক্ষেপ ডিআরএস সিস্টেমের ব্যবহার। ডিআরএস অর্থাৎ ডিসিশন রিভিউ সিস্টেমের ব্যবহার কোনও দলের ব্যাটসম্যান বা বোলাররা বা অধিনায়ক করতে পারেন যখন তিনি মাঠে দাঁড়িয়ে থাকা অনফিল্ড আম্পায়ারদের নেওয়া সিদ্ধান্তে অখুশি হন।

এই ডিআরএস সিস্টেমের এই মুহূর্তে দাঁড়িয়ে সবথেকে বিতর্কের বিষয় হল আম্পায়ার্স কল। অর্থাৎ এই ক্ষেত্রে বল উইকেটে লাগলেও অনফিল্ড আম্পায়ার যা সিদ্ধান্ত আগে দিয়েছেন তাই বহাল রাখা হয়।‌ অর্থাৎ তিনি যদি আউট দিয়ে থাকেন তাহলে আম্পায়ার্স কলে বল উইকেট স্পর্শ করলেও আউট, আবার নট আউট দিয়ে থাকলে বল উইকেটে লাগলেও নট আউটের সিদ্ধান্ত বহাল রাখা হয়‌। আর এটা নিয়েই বিশ্বের বিভিন্ন ক্রিকেট খেলিয়ে দেশ তাদের অসন্তোষ প্রকাশ করেছে। ভারত বনাম ইংল্যান্ড চলতি সফরেও একাধিকবার এমন ঘটনা ঘটেছে। আর এই ব্যাপারে ওয়ান ডে সিরিজ শুরুর আগেই মুখ খুললেন ভারত অধিনায়ক বিরাট।

আম্পায়ারিং নিয়ে বা বলা ভালো আম্পায়ার্স কল প্রসঙ্গে বিরাট বলেন, 'এই বিষয়টি বেশ কিছু সন্দেহের সৃষ্টি করছে। যদি বল উইকেটে লাগে, বেল পড়ে তবে আউট। একেবারে সাধারন লজিকে ক্রিকেটের এই দিক থেকে দেখলে এই বিষয়ে কোনও সংশয় থাকা উচিত নয়। বলের কতটা উইকেটে লাগছে সেটা গুরুত্বপূর্ণ নয়। বল উইকেটে লাগলেও বা স্পর্শ করলে সবসময় আউট হওয়াই বাঞ্ছনীয়।'

বিরাট অবশ্য আম্পায়ার্স কলে পাশাপাশি মুখ খুলেছেন সফট সিগন্যাল ব্যাপারটি নিয়েও। তিনি বলেন, 'এই ক্ষেত্রে ফিল্ডিং দলের সততাই বজায় রাখবে এটাই সবাই আশা করছি। এখান থেকেই আসে ক্রিকেটীয় স্পিরিটের বিষয়টি।'

বলা ভালো মর্গ্যানদের বিরুদ্ধে সূর্যকুমার বা সুন্দরের বিতর্কিত ক্যাচের বিষয়টি যে এখনও ভারতীয় দল ভালোভাবে নেয়নি তা স্পষ্ট করে দিচ্ছে বিরাটের এই মন্তব্য। তিনি আরও বলেন, 'বিদেশে ভারতীয় দলের ক্ষেত্রে এমনটা হলে ক্রিকেটের স্পিরিটের কথা তোলা হয়। বিষয়টা একতরফা হওয়া উচিত নয়।'

উল্লেখ্য, চতুর্থ টি ২০-তে ম্যাচে ভারতীয় ইনিংস চলাকালীন রিপ্লেতে দেখা গিয়েছিল মালান সূর্যকুমারের ক্যাচ ধরার আগে বল মাটি স্পর্শ করেছিল। তৃতীয় আম্পায়ারের মনে সন্দেহ ছিল। কিন্তু সফট সিগন্যালে থাকায় আউট হতে হয় সূর্যকে।

বন্ধ করুন