বাংলা নিউজ > ময়দান > IND vs ENG: ব্যাট হাতে সিরিজে অব্যাহত হতশ্রী ফর্ম, কোহলির সমস্যা সমাধানের পথ বাতলে দিলেন গাভাসকর
আউট হয়ে হতাশ বিরাট কোহলি। ছবি- পিটিআই।
আউট হয়ে হতাশ বিরাট কোহলি। ছবি- পিটিআই।

IND vs ENG: ব্যাট হাতে সিরিজে অব্যাহত হতশ্রী ফর্ম, কোহলির সমস্যা সমাধানের পথ বাতলে দিলেন গাভাসকর

  • হেডিংলেতে প্রথম ইনিংসে মাত্র সাত রান আউট হন কোহলি।

একটি টেস্ট ম্যাচ ও কয়েকটি দিন কতকিছু বদলে দেয়। লর্ডসে শেষ দিনে ভারতের জয়ের পর ইংল্যান্ডের ব্যাটিং নিয়ে যাবতীয় প্রশ্ন উঠেছিল। ঠিক তার পরের ইনিংসে ৭৮ রানে অল আউট হয়ে চর্চার কেন্দ্রবিন্দুতে ভারতীয় ব্যাটিং লাইন আপ। বিরাট কোহলির হতশ্রী ফর্ম চোখে পড়ার মতো। এরই মধ্যে ভারতীয় অধিনায়কের সমস্যা সমাধানের পথ বাতলে দিলেন সুনীল গাভাসকর।

হেডিংলেতে মাত্র সাত রান জেমস অ্যান্ডারসনের বিরুদ্ধে কেরিয়ারের সর্বোচ্চ, সপ্তমবার আউট হয়ে সাজঘরে ফেরেন কোহলি, সংগ্রহ মাত্র সাত রান। গোটা সিরিজে এখনও অর্ধশতরানের গন্ডিও পেরোতে পারেননি কোহলি। এরপরেই ব্যাটসম্যান কোহলির সমস্যা সমাধানে এগিয়ে আসেন গাভাসকর। ম্যাচ চলাকালীন ধারাভাষ্য দেওয়ার সময়ই ভারতীয় কিংবদন্তীর পরামর্শ, ‘ওর উচিত এসআরটি (সচিন রমেশ তেন্ডুলকর)-কে ফোন করে এই অবস্থায় ওর কী করনীয় সেই বিষয়ে জিজ্ঞেস করা।’

বিরাট কোহলির আউট হওয়ার ধরন নিয়ে খুবই চিন্তিত গাভাসকর। সমস্যা ২০১৪-র থেকেই বড় বলে মনে করছেন গাভাসকর। নিজের তরফে তিনি ভারতীয় অধিনায়ককে ২০০৩-০৪ সালের সচিনের সিডনি টেস্টের ইনিংস থেকে শিক্ষা নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন।

‘আমি এই বিষয়ে একটু চিন্তিতই। কারণ ২০১৪ সালে ও অফ স্টাম্পের আশেপাশের বলে আউট হচ্ছিল। তবে এ বার কোহলি পঞ্চম, ষষ্ঠ, এমনকী সপ্তম স্টাম্পের বলেও আউট হয়েছেন। সচিন সিডনিতে যা করেছিল ওরও সেই পন্থা অবলম্বন করা উচিত। নিজেকে বারবার বলা উচিত, যাই হয়ে যাক আমি কভার ড্রাইভ খেলব না।’ মতামত গাভাসকরের

বন্ধ করুন