বাংলা নিউজ > ময়দান > IND vs SA 2nd T20I: সিরিজে ভারতের সমতায় ফেরার আশায় কি বাঁধা হবেন বরুণদেব, কেমন থাকবে কটকের আবহাওয়া?
ম্যাচের আগেরদিন কটকের বারাবাটি স্টেডিয়ামে অনুশীলনরত শ্রেয়স আইয়ার। ছবি- বিসিসিআই। (BCCI Twitter)

IND vs SA 2nd T20I: সিরিজে ভারতের সমতায় ফেরার আশায় কি বাঁধা হবেন বরুণদেব, কেমন থাকবে কটকের আবহাওয়া?

  • সিরিজে ০-১ ব্যবধানে পিছিয়ে থাকা ভারতীয় দল দ্বিতীয় ম্যাচে বারাবাটি স্টেডিয়ামে প্রোটিয়াদের মুখোমুখি হবে।

দিল্লিতে টিম ইন্ডিয়া সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ২১১ রান করেও মিলেছে পরাজয়। দিল্লির পর, রবিবার (১২ জুন) সিরিজে ০-১ ব্যবধানে পিছিয়ে থাকা ভারতীয় দল দ্বিতীয় ম্যাচে বারাবাটি স্টেডিয়ামে দক্ষিণ আফ্রিকার মুখোমুখি হবে। এই সময়ে পূর্ব ভারতে বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকেই। তা এই ম্যাচেও কি প্রভাব ফেলতে চলেছে বৃষ্টি?

উত্তরটা সুস্পষ্ট না হলেও, নেতিবাচকের দিকেই। আরএমএসি ভুবনেশ্বর ডিরেক্টর এইচ আর বিশ্বাসের দাবি অনুযায়ী বৃষ্টির হওয়া বা না হওয়ার ৫০-৫০ সুযোগ রয়েছে। ‘একেবারে ৫০-৫০ পরিস্থিতি। আমরা নিশ্চিতভাবে বলতে পারব না যে রবিবার সন্ধ্যায় কটকে বৃ্ষ্টি হবে না। অল্পস্বল্প বৃষ্টি হওয়ার একটা সম্ভাবনা রয়েছে বটে, তবে ভারি বৃষ্টির পূর্বাভাস নেই। ব্রজবিদুৎসহ ঝড়ে কয়েক পশলা বৃষ্টি হতে পারে। কিন্তু আমরা সে বিষয়ে আগে থেকেই কয়েক ঘণ্টা আগেই অনুমান করতে পারব। তবে ম্যাচ নষ্ট হয়ে যাবে এমন পরিমাণ বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই।’ 

আরও পড়ুন:- India Predicted XI vs SA 2nd T20I: সমতা ফেরাতে মরিয়া ভারত, খেলবেন কি উমরান?

ম্যাচের আগে ওড়িশা সরকারের তরফে অতিরিক্ত গরমে সানস্ট্রোকের সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছে। তপ্ত সকাল দুপুরের পর দুই বছরে বারাবাটি স্টেডিয়ামের প্রথম ম্যাচে বৃষ্টি হলেও, তার জন্য মাঠের ড্রেন দিয়ে জল বের করে দেওয়ার সুপরিকল্পনা রয়েছে বলেই এক ওড়িশা ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের আধিকারিক। বৃষ্টিতে খেলা যাতে পন্ড না হয়, তার জন্য সাম্প্রতিক সময়ে উন্নত মানের ব্যবস্থা করেছে ওড়িশা ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন।

আরও পড়ুন:- আনা যাবে না জলের বোতল, পরতে হবে মাস্ক, কটকে দর্শকদের মানতে হবে গাদাখানেক নিয়ম

‘আমার বিসিসিআইয়ের উপদেষ্টা কমিটির পরামর্শ অনুযায়ী দ্রুত মাঠ সুকিয়ে ফেলার জন্য বালির ওপর ভর করে মাঠ তৈরি করেছি। অ্যাসোসিয়েশন ইংল্যান্ড থেকে গোটা মাঠ ঢেকে ফেলার জন্য কভার কিনেছে। এমনকী অস্ট্রেলিয়া থেকে নতুন সুপার সপারও আনা হয়েছে। যদি বৃষ্টিও হয়, তাহলেও মাঠ দ্রুত আবার খেলার উপযোগী হয়ে যাবে।’ জানান ওই আধিকারিক। ভারত ২০১৫ সালে এই মাঠেই দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টিতে মাত্র ৯২ রানে অলআউট হয়ে গিয়েছিল। এদিন ভাগ্য বদলের আশায় থাকবে টিম ইন্ডিয়া।

বন্ধ করুন