বাংলা নিউজ > ময়দান > IND vs SA: আমরা কী ভাবছি গুরুত্বপূর্ণ নয়, আম্পায়ারের কথা মানতে হবে- দাসেনের 'ক্যাচ' প্রসঙ্গে কৌশলী পিটারসেন
দাসেনের বিরুদ্ধে শার্দুলের কট বিহাইন্ড আপিল। ছবি- রয়টার্স। (REUTERS)
দাসেনের বিরুদ্ধে শার্দুলের কট বিহাইন্ড আপিল। ছবি- রয়টার্স। (REUTERS)

IND vs SA: আমরা কী ভাবছি গুরুত্বপূর্ণ নয়, আম্পায়ারের কথা মানতে হবে- দাসেনের 'ক্যাচ' প্রসঙ্গে কৌশলী পিটারসেন

  • তৃতীয় দিনে লাঞ্চের ঠিক আগে শার্দুলের বলে আউট হন দাসেন।

জোহানেসবার্গের ওয়ান্ডারার্স ময়দানে ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকার দ্বিতীয় টেস্টের তৃতীয় দিনে ‘লর্ড’ শার্দুলের সুবাদে প্রথম ইনিংসে মাত্র ২০২ রান করেও প্রোটিয়াদের ২২৯ রানেই সীমাবদ্ধ রাখতে সক্ষম হয় ভারত। শার্দুল ঠাকুর সাত উইকেট নেন, যার মধ্যে লাঞ্চের আগে শেষ বলে আউট হন রাসি ভ্যান ডার দুসেন। এই উইকেট নিয়েই যত বিতর্ক।

শার্দুলের বল দাসেনেপ ব্যাটের কোণায় লেগে চলে যায় উইকেটকিপার ঋষভ পন্তের দখলে। আম্পায়ার দাসেনকে আউট দেন এবং প্রোটিয়া ব্যাটারও সেই সিদ্ধান্ত মেনে নেন। তবে পরবর্তী সময়ে রিপ্লেতে সেই ক্যাচ পন্তের কাছে পৌঁছনোর আগে ড্রপ খেয়েছে কি না, সেই নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ তৈরি করে। প্রোটিয়া অধিনায়ক ডিন এলগারও নাকি এই বিষয়ে তৃতীয় আম্পায়ারের সঙ্গে কথা বলেন, যেখানে তাঁকে জানানো হয় অনফিল্ড আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করার জন্য যথেষ্ট প্রমাণ না থাকায় দাসেনকে আউট দেওয়া হয়েছে।

এই নিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট মহলের একাংশ ক্ষোভ প্রকাশ করলেও প্রোটিয়া ব্যাটার কিগান পিটারসেন কিন্তু বেশি জলঘোলা করতে চাইছেন না। আম্পায়ারের সিদ্ধান্তই শেষ সিদ্ধান্ত বলে মেনে নিয়ে তিনি ম্যাচ শেষে সাংবাদিক সম্মেলনে এই বিষযে বলেন, ‘আমি ওই বিষয়ে কিছু মন্তব্য করতে চাই না। ওটা আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত ছিল। ম্যাচে আমরা কী ভাবছি না ভাবছি, এখন তার কোনো গুরুত্ব নেই, আম্পায়ার যা সিদ্ধান্ত নেবেন সেটাই আমাদের মেনে নিতে হবে। কিছু আমাদের পক্ষে আসবে, আবার কিছু অন্যদের পক্ষে যাবে, এটাই তো হয়ে থাকে।’

বন্ধ করুন