বাংলা নিউজ > ময়দান > IND vs SA: হাতে মাত্র দু'দিন, পন্তকে নিয়ে আহ্লাদ নয়, এবার কড়া বার্তা দিলেন গাভাসকর
আউট হয়ে সাজঘরে ফিরছেন হতাশ ঋষভ পন্ত। ছবি- এপি। (AP)

IND vs SA: হাতে মাত্র দু'দিন, পন্তকে নিয়ে আহ্লাদ নয়, এবার কড়া বার্তা দিলেন গাভাসকর

  • চলতি সিরিজে ব্যাট হাতে পন্তের সংগ্রহ ২৯, ৫ ও ৬ রান।

তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে ৪৮ রানের বড় ব্যবধানে দক্ষিণ আফ্রিকাকে মাত দিয়ে সিরিজে কামব্যাক করেছে ভারতীয় দল। তবে জয়ের উচ্ছ্বাসের মধ্যেও চিন্তার বিষয় অধিনায়ক ঋষভ পন্তের ফর্ম। এথনও অবধি সিরিজে ২৯, পাঁচ ও ছয় রান করেছেন পন্ত। মঙ্গলবারও (১৪ জুন) আট বল খেলার পর বাজেভাবে আউট হয়েছেন তিনি। এবার পন্তকে কড়া বার্তা দিলেন সুনীল গাভাসকর।

সাম্প্রতিক অতীতে পন্ত বেশ ভাল ফর্মে থাকলেও, আইপিএল থেকে চেনা ছন্দে দেখা যাচ্ছে না তাঁকে। অনেকেই মনে করছেন অধিনায়কত্বের বোঝা পন্তকে চাপে ফেলছে। কিংবদন্তি ভারতীয় ব্যাটার ও প্রাক্তন অধিনায়ক গাভাসকরও মনে করছেন অধিনায়কত্বে চাপে অনেক সময়ই খেলোয়াড়রা নিজেদের দিকে মন দিতে ভুলে যান। Star Sports-এ এক পর্যালোচনা সভায় গাভাসকর বলেন, ‘লোকে আশা করে যে ও ক্রিজে নেমেই চার-ছয় হাঁকাতে শুরু করে দেবে। গত তিন-চার বছরে ও যেমন খেলেছে, তাতেই এই প্রত্যাশাটা তৈরি হয়েছে। আমার মনে হয় ওর এবার আত্মবিশ্লেষণ করা উচিত। অনেক সময় অধিনায়ক হলে বাকি বোলার, ব্যাটাররা কী করছে, তা দেখতে গিয়ে নিজের খেলায় ফোকাস করা সম্ভব হয় না। অনেকেই ভুলে যান যে তাদের নিজেদের ব্যাটিংয়েও কিছু টেকিনাকল গলদ খারতে পারে।’

আরও পড়ুন:- গত ম্যাচে রান দেওয়ার পর পরিকল্পনায় বদল, কীভাবে সাফল্য পেলেন, খোলসা করলেন চাহাল

আরও পড়ুন:- নিজে বাজেভাবে আউট হচ্ছেন, ব্যর্থ মিডল অর্ডার, যুক্তি খাড়া করার চেষ্টা পন্তের

গাভাসকরের সাফ কথা এবার সময় এসেছে পন্তের নিজের ব্যাটিং নিয়ে ভাবনাচিন্তা করার। তাঁর মতে দল জেতায় অধিনায়ক হিসাবেও পন্তের ওপর থেকে চাপটা একটু কমবে, যা তাঁর জন্য সুখবর। ‘ওর একদিকে বসে ঠান্ডা মাথায় নিজের ব্যাটিং নিয়ে ভাবনাচিন্তা করতে হবে। হাতে দুইদিন সময় আছে। প্রথমত ভারত জেতায় ও অনেকটা চাপমুক্ত অনুভব করবে। এই চাপটা হালকা হওয়ায় এবার নিজের খেলার দিকে মন দিতে হবে ওকে। বুঝতে হবে যে ও এমন বলে মারতে গিয়ে আউট হচ্ছে যেগুলি মারার নয়। অফ সাইডের খেলা শুধরবো, না শুধুই লেগ সাইডে খেলব, সোজা বেশি শট মারব না কভারের দিক থেকে মারব, এসবই বিবেচ্য বিষয়। কভারে মারলে একদম ঠিকঠাক না লাগলে আউট হওয়ার সম্ভাবনা থাকেই। তাই আমার মতে সোজা মারের চেষ্টা করলে ও অনেক বেশি ছক্কা হাঁকাতে পারবে।’ দাবি গাভাসকরের।

বন্ধ করুন