বাংলা নিউজ > ময়দান > IND vs SA: প্রথম T20 হেরেছে ভারত, তাও অধিনায়ক পন্তের প্রশংসায় প্রাক্তন প্রোটিয়া নেতা স্মিথ
ভারত হারলেও ঋষভ পন্তের অধিনায়কত্ব প্রভাবিত করেছে স্মিথকে। ছবি- এপি/বিসিসিআই। 

IND vs SA: প্রথম T20 হেরেছে ভারত, তাও অধিনায়ক পন্তের প্রশংসায় প্রাক্তন প্রোটিয়া নেতা স্মিথ

  • দিল্লি ক্যাপিটালসের হয়ে পন্তের শেষ ম্যাচে অধিনায়কত্ব নিয়ে সমালোচনার পর তাঁর ওপর বিশেষ নজর ছিল স্মিথের।

বৃহস্পতিবার (৯ জুন) আইপিএল শেষে আবার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরেছে ভারতীয় ক্রিকেট দল। তবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে কামব্য়াকটা খুব একটা সুখকর হল না। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচেই পরাজিত হল ঋষভ পন্তের নেতৃত্বাধীন ভারতীয় দল। তা সত্ত্বেও পন্তের অধিনায়কত্ব প্রভাবিত করেছে গ্রেম স্মিথকে।

দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজের আগে আইপিএলে দিল্লি ক্যাপিটালের হয়ে শেষবার অধিনায়কত্ব করতে দেখা গিয়েছিল পন্তকে। সেই ম্যাচে কয়েকটি ভুলের জেরে পন্তের দিকে আঙুল উঠেছিল। দিল্লির মরণ-বাঁচন ম্যাচে একটি গুরুত্বপূর্ণ ক্যাচ তো ফেলেনই, পাশাপাশি টিম ডেভিডের বিরুদ্ধে একটি কট বিহাইন্ড সিদ্ধান্তে রিভিউ নেননি পন্ত। পরে দেখা যায় পন্ত রিভিউ নিলেই ডেভিড আউট হয়ে যেতেন। তবে তা না হওয়ায় শেষমেশ ঝোড়ো ইনিংসে ডেভিডই মুম্বই ইন্ডিয়ান্সকে ম্যাচ জিতিয়ে দেন। হেরে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে যায় দিল্লি।

আরও পড়ুন:- শুরুতেই ব্যর্থ! ক্যাপ্টেন কোহলির সঙ্গে নেতা পন্তের কী অদ্ভুত মিল

সেই ম্য়াচের পর অধিনায়ক পন্তের দিকে বিশেষ নজর ছিল স্মিথের। ভারত ম্যাচ হারলেও কিন্তু প্রাক্তন প্রোটিয়া অধিনায়ককে প্রভাবিতই করেছেন পন্ত। প্রথম টি-টোয়েন্টি শেষে পর্যালোচনার সময় স্মিথ জনান, ‘ম্যাচ হারলে যে কোনও অধিনায়কেরই সমালোচনা হয় এবং তাঁকে অনেককিছু সহ্য করতে হয়। দিল্লির হয়ে ওর (পন্ত) শেষ ম্যাচ, যেখানে ওকে বেশ কয়েকটি কঠিন সি্দ্ধান্ত নিতে হয়েছিল, তারপরে ও কেমন করে, সেদিকে আমার বিশেষ নজর ছিল। আমার মতে আজ ও বেশ ভালই করেছে। সঠিক সময়ে সঠিক খেলোয়াড়ের কাছে গিয়েছিল ও এবং শেষ অবধি ম্যাচে টিকে থাকার চেষ্টাও করে।’

আরও পড়ুন:- চাহালকে পুরো কোটা কেন করানো হল না! পন্তের নেতৃত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুললেন নেহরা

নিজের মতামতের ব্যাখা দিয়ে স্মিথ আরও জানান, ‘দক্ষিণ আফ্রিকা যখন চাপে ছিল, তখন ও হার্ষাল প্যাটেল এবং ভুবিকে(ভুবনেশ্বর কুমার) দিয়ে বল করায়। মোটামুটি অনেকগুলি সিদ্ধান্তই ঠিক ছিল। অনেকসময়ই সঠিক সিদ্ধান্ত নিলেও ফলাফল আশানুরূপ হয়না, কারণ দিনের শেষে বোলারদেরও নিজেদের কাজটা সঠিকভাবে করতে হয়। তবে আমার মতে ও পিছন ফিরে বলতেই পারে যে আমি সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। এই ম্য়াচের পর ওর আত্মবিশ্বাস বাড়বে বলেই আমার মনে হয়।’ রবিবার (১২ জুন) দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ফের একবার অধিনায়ক পন্তের বড় পরীক্ষা হবে। সেই পরীক্ষায় তিনি উত্তীর্ন হতে পারেন কিনা, এখন সেটাই দেখার।

বন্ধ করুন