বাংলা নিউজ > ময়দান > IND vs SL: কিপার না বাজপাখি! ইশানের ছোঁ মেরে নেওয়া ক্যাচ দেখে হতবাক সকলে- ভিডিয়ো

IND vs SL: কিপার না বাজপাখি! ইশানের ছোঁ মেরে নেওয়া ক্যাচ দেখে হতবাক সকলে- ভিডিয়ো

দুরন্ত ক্যাচ ধরেন ইশান কিষাণ।

লঙ্কার ব্যাটার আশালঙ্কা বোধহয় নিজেও ভাবেননি, ইশান এ ভাবে তাঁর ক্যাচটি ধরে ফেলবেন। তিনিও অবাক হয়ে যান। এমন কী হার্দিক পাণ্ডিয়াও ভাবেননি ক্যাচটি ইশান ধরতে পারবেন! তবে তারকা কিপার ক্যাচ ধরার পর স্বস্তির হাসি দেখা যায় হার্দিকের মুখেও।

৭.৫ ওভারে তখন বল করছিলেন উমরান মালিক। চরিথ আশালঙ্কা ছিলেন স্ট্রাইকে। উমরানের বলে তুলে মারতে গিয়ে, ঠিক মতো ব্যাটে বলে হয়নি। ক্যাচ উঠে যায়। নিঃসন্দেহে কঠিন ক্যাচ ছিল। উইকেটের পিছনে দাঁড়িয়ে থাকা ইশান কিষাণ সেই বল লক্ষ্য করে দৌড়ে যান। হাত দিয়ে বাকিদের আসতে বারণ করেন। তার পর ডাইভ দিয়ে ক্যাচটি ধরেন। একেবারে বাজ পাখির মতোই।

আরও পড়ুন: ভারতীয় দলে সুযোগ পেতে ফের বাধ্যতামূলক ইয়ো ইয়ো টেস্ট, দুই কিমি ছুটতে হবে কত জলদি?

১৫ বলে ১৩ করে আশালঙ্কা সাজঘরে ফেরেন। তবে আশালঙ্কা বোধহয় নিজেও ভাবেননি, ইশান এ ভাবে তাঁর ক্যাচটি ধরে ফেলবেন। যে কারণে লঙ্কার ব্যাটার রীতিমতো অবাক হয়ে যান। এমন কী হার্দিক পাণ্ডিয়াও ভাবেননি ক্যাচটি ইশান ধরতে পারবেন। তবে তারকা কিপার ক্যাচ ধরার পর স্বস্তির হাসি দেখা যায় হার্দিকের মুখেও। ইশানের এই ক্যাচ দেখে উচ্ছ্বসিত ক্রিকেট মহলও। বিসিসিআই ইয়ো ইয়ো টেস্ট বাধ্যতামূলক করতে চলেছে। প্লেয়ারদের ফিটনেস নিয়ে নানা চর্চা চলছে। তার মাঝেই ইশানের এই ক্যাচ নিঃসন্দেহে দৃষ্টান্ত। নেটপাড়াও বেশ উচ্ছ্বসিত।

এ দিন শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নামে ভারত। কিন্তু শুরু থেকেই টিম ইন্ডিয়ার ব্য়াটিং বিপর্যের ধারা চলে। ৪৬ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে বসেছিল ভারত। এর পরেও পড়ে আরও ২ উইকেট।

তবে দীপক হুডার অপরাজিত ৪১ (২৩ বলে) এবং অক্ষর প্যাটেলের ২০ বলে অপরাজিত ৩১ রান ভারতকে ১৫০ রানের গণ্ডি পার করিয়ে দেয়। এ ছাড়া ওপেন করতে নেমে ইশান কিষাণ ৩৭ (২৯ বল) করেছিলেন। আর হার্দিক পাণ্ডিয়া ২৯ (২৭ বল) করেন। এর বাইরে বাকিরা কেউ দুই অঙ্কের ঘরেই পৌঁছতে পারেনি। নির্দিষ্ট ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ভারত করে ১৬২ রান।

শ্রীলঙ্কার দিলসন মাদুশঙ্কা, মহেশ থিকসানা, চামিকা করুণারত্নে, ধনঞ্জয় ডি'সিলভা, ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা ১টি করে উইকেট নিয়েছেন।

আরও পড়ুন: বাবর, রিজওয়ানের T20 ক্যারিয়ার তবে শেষ? আফ্রিদির ঠিক করা মাপকাঠিতে চাপ বাড়ল

জবাবে ব্যাট করতে নেমে শ্রীলঙ্কাও শুরু থেকে একের পর এক উইকেট হারাতে থাকে। ৫১ রানে তারা চার উইকেট হারিয়ে বসেছিল। চরিথ আশালঙ্কা তৃতীয় ব্যাটার হিসেবে সাজঘরে ফেরেন। তবে অধিনায়ক দাসুন শনাকার ২৭ বলে ৪৫ লঙ্কাকে লড়াইয়ে ফেরায়। এ ছাড়া চামিকা করুণারত্নে ১৬ বলে ২৩ রান করে অপরাজিত থাকেন। হাসারঙ্গা ১০ বলে ঝড়ো ২১ রান করেন। যার ফলে জেতার মতো জায়গায় পৌঁছে গিয়েছিল শ্রীলঙ্কা। ওপেন করতে নেমে কুশল মেন্ডিসও ২৮ করেছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ২ রানে তারা হেরে যায়। ২০ ওভারে শ্রীলঙ্কা ১৬০ রান করে।

অভিষেক শিবম মাভি দুরন্ত পারফরম্যান্স করেন। ৪ ওভার বল করে ২২ রান দিয়ে ৪ উইকেট নেন। এ ছাড়াও উমরান মালিক এবং হর্ষাল প্যাটেল ২টি করে উইকেট নিয়েছেন।

বন্ধ করুন