বাংলা নিউজ > ময়দান > ‘মিডল স্টাম্পের কার্যত মাঝখানে বল’ লাগছে, তাও DRS নিল না ভারত, সরগরম নেট দুনিয়া
রিপ্লেতে দেখা যায়, মিডল স্টাম্পের কার্যত মাঝখানে বল লাগছে। (ছবি সৌজন্য টুইটার)

‘মিডল স্টাম্পের কার্যত মাঝখানে বল’ লাগছে, তাও DRS নিল না ভারত, সরগরম নেট দুনিয়া

  • কুলদীপের কাছে ক্ষমাও চেয়ে নেন ধাওয়ান।

মিডল স্টাম্পের কার্যত মাঝখানে বল লাগত। তাও ডিআরএস নেওয়া হল না। ভারত-শ্রীলঙ্কার দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচেই সেই কাণ্ড রীতিমতো হইচই পড়ল নেট দুনিয়ায়। ছড়িয়ে পড়ল মিম।

বুধবার শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচে প্রথম ব্যাট করে সাত উইকেটে ১৩২ রান তোলে ভারত। পুঁজি রক্ষার জন্য অষ্টম ওভারে বল করতে আসেন কুলদীপ যাদব। দ্বিতীয় বলে সুইপ করতে যান দাসুন শানাকা। লেংথ বল প্যাডে লাগে। জোরালো আবেদন করে ভারত। কিন্তু আউট দেননি অনফিল্ড আম্পায়ার। ডিআরএস নেওয়ার বিষয়ে কিছুক্ষণ আলোচনা করেন ভারতীয় খেলোয়াড়রা। শেষপর্যন্ত রিভিউ নেননি ভারতীয় অধিনায়ক শিখর ধাওয়ান। কিন্তু পরে রিপ্লেতে দেখা যায়,  মিডল স্টাম্পের কার্যত মাঝখানে বল লাগছে। সেজন্য চায়নাম্যানের কাছে ক্ষমাও চেয়ে নেন ধাওয়ান।

সেই রিপ্লে দেখার পর টুইটারে মিমের ঝড় শুরু হয়। এক নেটিজেন টুইটারে 'টম অ্যান্ড জেরির' জিআইএফ শেয়ার করে লেখেন, 'ম্যাচের পরে সঞ্জু স্যামসনকে বেধড়ক মারবেন কুলদীপ।' ম্যাচে ভারতীয় দলের উইকেট রক্ষার দায়িত্বে আছেন সঞ্জু। অপর এক নেটিজেন বলেন, 'দেখে মনে হচ্ছে, সঞ্জু বলটা বুঝতে পারেনি। ধাওয়ানকে বোঝান যে বলটা উপর দিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু সেটা নয়। দুর্ভাগ্যের শিকার কুলদীপ।'

তবে সাফল্যের জন্য বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়নি ভারতীয় স্পিনারকে। দশম ওভারে সঞ্জুর সঙ্গে যুগলবন্দিতে শানাকাকে প্যাভিলিয়নে ফেরত পাঠিয়ে দেন। মিডল-লেগ স্টাম্পে লেংথ বল করেছিলেন কুলদীপ। শানাকা অনেকটা আগেই ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে আসেন। তা দেখে লেংথ কিছুটা শর্ট করে নেন কুলদীপ। তার ফলে শানাকার পাশ দিয়ে বল স্পিন করে বেরিয়ে যায়। সহজ স্টাম্পিং ফসকে দেননি সঞ্জু।

বন্ধ করুন