বাংলা নিউজ > ময়দান > IND vs WI: IPL-এও ওপেন করেছি- রোহিতের পাশে দাঁড়িয়ে নিন্দুকদের একহাত নিলেন স্কাই
সূর্যকুমার যাদব।

IND vs WI: IPL-এও ওপেন করেছি- রোহিতের পাশে দাঁড়িয়ে নিন্দুকদের একহাত নিলেন স্কাই

  • ২৬ বলে সূর্য্য হাফসেঞ্চুরি করেন। ৪৪ বলে ৭৬ করে আউট হন তিনি। তাঁর এই ইনিংসে রয়েছে ৮টি চার এবং ৪টি ছয়। স্ট্রাইকরেট ১৭২.৭২। সূর্যের ঝড়ো ইনিংসের হাত ধরে ভারত তৃতীয় টি-টোয়েন্টি ৬ বল বাকি থাকতে ৭ উইকেটে জয়ে ফেরে। সিরিজে ২-১ এগিয়ে যায়।

সূর্যকুমার যাদবকে দিয়ে ওপেন করানোয় রোহিতের উপর ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। বিশেষ করে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচে ওপেন করতে নেমে ব্যর্থ হয়েছেন স্কাই। শেষ পর্যন্ত তৃতীয় ম্যাচে চেনা ছন্দে পাওয়া গেল স্কাইকে। সূর্যের ঝড়ো ইনিংসের হাত ধরে ভারত তৃতীয় টি-টোয়েন্টি ৬ বল বাকি থাকতে ৭ উইকেটে জয়ে ফেরে ভারত।

২৬ বলে সূর্য্য হাফসেঞ্চুরি করেন। ৪৪ বলে ৭৬ করে আউট হন তিনি। তাঁর এই ইনিংসে রয়েছে ৮টি চার এবং ৪টি ছয়। স্ট্রাইকরেট ১৭২.৭২। ছন্দে ফিরে রোহিতের পাশে দাঁড়িয়ে নিন্দুকদের এক হাত নিলেন সূর্য।

আইপিএলেও ওপেন করেছেন

ওপেনার হিসেবে পরপর ২ ম্যাচে ব্যর্থ হয়েছেন তিনি। আর তার পর থেকে কেন তাঁকে দিয়ে ওপেন করানো হচ্ছে, তা নিয়ে রোহিত শর্মাকে তীব্র সমালোচনার মধ্যে পড়তে হয়। অনেকেই দাবি করেছিলেন, এতে আখেরে সূর্যের ক্ষতি করছেন রোহিত। তৃতীয় ম্যাচে রানে ফিরে সূর্য বলেন, ‘সত্যিই ওপেন করতে দারুণ লাগে। আমি এটি আইপিএলেও করেছি। এ দিন শুধু নিজেকে সমর্থন করেছি এবং ওপেন করতে নেমে খেলাটা উপভোগ করেছি।’

আরও পড়ুন: উইন্ডিজের বিরুদ্ধে লাগাতার ১০ম্যাচে জয়ের পর রোহিতের ১টি ভুলে থামল অশ্বমেধের ঘোড়া

সূর্যের কেরিয়ারে দ্রুততম হাফ সেঞ্চুরি

সূর্যকুমার যাদব ২৬ বলে হাফসেঞ্চুরি করেন। যা তাঁর টি-টোয়েন্টি কেরিয়ারে দ্রুততম। স্বাভাবিক ভাবেই উচ্ছ্বসিত স্কাই। তিনি বলেও ফেলেছেন, ‘আমি সত্যিই খুব খুশি। রোহিত যখন উঠে গেল (রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে), তখন একজন কারও ১৫-১৭ ওভার ব্যাট করাটা খুব প্রয়োজন ছিল। আমি নিজেকে মেলে ধরার চেষ্টা করেছি মাত্র।’

আরও পড়ুন: T20-তে দুর্দান্ত নজির হার্দিক পান্ডিয়ার, আর কোনও ভারতীয়র ঝুলিতে নেই এমন রেকর্ড

স্লো পিচ

সূর্যকুমার যাদবের মতে, পিচ স্লো ছিল। তাই তার জন্য ধরে খেলা এবং গভীরে ঢুকে ব্যাটিং করাটা গুরুত্বপূর্ণ ছিল। তাঁর দাবি, ‘পিচ কিছুটা স্লো ছিল। যে কারণে কোনও একজনের ধরে খেলা এবং গভীরে ঢুকে ব্যাটিং করাটা গুরুত্বপূর্ণ ছিল।’

খেলার সংক্ষিপ্ত ফল

মঙ্গলবার টসে জিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ব্যাট করতে পাঠায় ভারত। প্রথমে ব্যাট করে উইন্ডিজ ৫ উইকেটে ১৬৪ রান করে। কাইল মায়ের্স ৫০ বলে ৭৩ রানের দুরন্ত ইনিংস খেলেন। এ ছাড়া দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রভম্যান পাওয়েলের ২৩ রান। আসলে মায়ের্স ছাড়া বাকি ব্যাটাররা সে ভাবে আহামরি কিছু করতে পারেননি। ভারতের হয়ে ২ উইকেট নিয়েছেন ভুবনেশ্বর কুমার। ১টি করে উইকেট নিয়েছেন হার্দিক পাণ্ডিয়া এবং আর্শদীপ সিং।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে রোহিত শর্মা ৫ বলে ১১ করে রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে ড্রেসিংরুমে ফিরে গেলে চাপে পড়ে যায় ভারত। তখন দলের রান ১৯। কিন্তু এ দিন হাল ধরেন সূর্য। তাঁর ৪৪ বলে ৭৬ রানের হাত ধরেই জয়ের পথে ফেরে ভারত। এ ছাড়া ঋষভ পন্ত ২৬ বলে ৩৩ করে অপরাজিত থাকেন। শ্রেয়স আইয়ার ২৭ বলে ২৪ করেন। ১৯ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ১৬৫ করে ভারত। এ দিনের ম্যাচ জিতে সিরিজে ২-১ এগিয়ে গেল ভারত।

বন্ধ করুন