বাংলা নিউজ > ময়দান > IND vs WI: রিটায়ার্ড হার্ট হওয়ার ক্ষেত্রেও নজির, চোট পেয়ে রেকর্ড গড়লেন রোহিত
রোহিত শর্মা।

IND vs WI: রিটায়ার্ড হার্ট হওয়ার ক্ষেত্রেও নজির, চোট পেয়ে রেকর্ড গড়লেন রোহিত

  • মঙ্গলবার উইন্ডিজের বিরুদ্ধে ৫ বলে ১১ রান করে রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে সাজঘরে ফেরেন রোহিত শর্মা। জানা গিয়েছে রোহিতের পেশীতে টান লেগেছে। রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে রোহিত মাঠ ছেড়েও নজির গড়ে ফেললেন। এই নিয়ে টি-টোয়েন্টি ম্যাচে মোট ২ বার রিটার্য়ার্ড হার্ট হলেন রোহিত।

ভারত অধিনায়ক রোহিত শর্মা মঙ্গলবার ব্যাটিং করার সময়ে বড় চোট পান। যার জেরে তাঁকে মাঠ ছাড়তে হয়। ৫ বলে ১১ রান করে রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে সাজঘরে ফেরেন তিনি। জানা গিয়েছে রোহিতের পেশীতে টান লেগেছে।

মঙ্গলবার রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে রোহিত মাঠ ছেড়েও নজির গড়ে ফেললেন। এই নিয়ে টি-টোয়েন্টি ম্যাচে মোট ২ বার রিটার্য়ার্ড হার্ট হলেন রোহিত। মঙ্গলবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে তৃতীয় টি-টোয়েন্টির আগে ২০২০ সালে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধেও টি-টোয়েন্টি ম্যাচে রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে সাজঘরে ফিরেছিলেন রোহিত। দ্বিতীয় প্লেয়ার হিসেবে টি-টোয়েন্টিতে ২ বার রিটায়ার্ড হার্ট হওয়ার নজির গড়লেন তিনি। এর আগে নিউজিল্যান্ডের রস টেলর এই লজ্জার নজির গড়েছিলেন। রোহিতের এমন নজিরে তাঁর ফিটনেস নিয়েই প্রশ্ন উঠে গিয়েছে।

রোহিতের চোট নিয়ে টুইটের মাধ্যমে বিসিসিআই-এর তরফে জানানো হয়েছে, ‘টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়ক রোহিত শর্মার পিঠে খিঁচুনি লেগেছে। বিসিসিআই মেডিকেল টিম তাঁর অগ্রগতি পর্যবেক্ষণ করছে।’

আরও পড়ুন: ভিডিয়ো-উইন্ডিজ বোলারদের নিয়ে ছেলেখেলা সূর্যের, চোখ ধাঁধিয়ে গেল তাঁর শটে

রোহিতের অনুপস্থিতি সত্ত্বেও, ভারতের ব্যাটসম্যানরা তাদের ১৬৫ রান তাড়া করে সিরিজে ২-১ এগিয়ে যায়। স্বাভাবিক ভাবেই উচ্ছ্বসিত টিম ইন্ডিয়া। ম্যাচটি তারা ৭ উইকেটে জিতে যায়। কিন্তু সকলের দৃষ্টি ছিল ম্যাচ-পরবর্তী উপস্থাপনার দিকে। যেখানে রোহিতের চোটের আপডেটের জন্য সকলে অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছিলেন। তবে ভারতকে স্বস্তি দিয়ে রোহিত দাবি করেন, ‘এই মুহূর্তে, এই চোট আছে। আমাদের পরের ম্যাচের জন্য কয়েক দিন আছে। আশা করি চোট পুরো ঠিক হয়ে যাবে।’

আরও পড়ুন: চোটের জন্য কি পুরো সিরিজ থেকেই ছিটকে গেলেন রোহিত? নিজেই দিলেন আপডেট

মঙ্গলবার টসে জিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ব্যাট করতে পাঠায় ভারত। প্রথমে ব্যাট করে উইন্ডিজ ৫ উইকেটে ১৬৪ রান করে। কাইল মায়ের্স ৫০ বলে ৭৩ রানের দুরন্ত ইনিংস খেলেন। এ ছাড়া দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রভম্যান পাওয়েলের ২৩ রান। আসলে মায়ের্স ছাড়া বাকি ব্যাটাররা সে ভাবে আহামরি কিছু করতে পারেননি। ভারতের হয়ে ২ উইকেট নিয়েছেন ভুবনেশ্বর কুমার। ১টি করে উইকেট নিয়েছেন হার্দিক পাণ্ডিয়া এবং আর্শদীপ সিং।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে রোহিত শর্মা ৫ বলে ১১ করে রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে ড্রেসিংরুমে ফিরে গেলে চাপে পড়ে যায় ভারত। তখন দলের রান ১৯। কিন্তু এ দিন হাল ধরেন সূর্য। তাঁর ৪৪ বলে ৭৬ রানের হাত ধরেই জয়ের পথে ফেরে ভারত। এ ছাড়া ঋষভ পন্ত ২৬ বলে ৩৩ করে অপরাজিত থাকেন। শ্রেয়স আইয়ার ২৭ বলে ২৪ করেন। ১৯ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ১৬৫ করে ভারত। এ দিনের ম্যাচ জিতে সিরিজে ২-১ এগিয়ে গেল ভারত।

বন্ধ করুন