বাড়ি > ময়দান > শতবর্ষ পেরিয়ে মারা গেলেন ভারতের প্রবীণতম ক্রিকেটার
সচিন তেন্ডুলকর ও স্টিভ ওয়ার সঙ্গে বসন্ত রাইজি। ছবি- পিটিআই।
সচিন তেন্ডুলকর ও স্টিভ ওয়ার সঙ্গে বসন্ত রাইজি। ছবি- পিটিআই।

শতবর্ষ পেরিয়ে মারা গেলেন ভারতের প্রবীণতম ক্রিকেটার

  • গত জানুয়ারিতেই সচিন তেন্ডুলকর ও স্টিভ ওয়াকে পাশে বসিয়ে শততম জন্মদিন পালন করেছিলেন প্রাক্তন ক্রিকেটার।

সেঞ্চুরি করে জীবনের ক্রিজ ছাড়লেন বসন্ত রাইজি। শনিবার ভোর রাতে মুম্বইয়ে নিজের বাসভবনে মারা গেলেন ভারতের প্রবীণতম ফার্স্ট ক্লাস ক্রিকেটারের। বার্ধক্যজনীত কারণেই মৃত্যু হয় তাঁর। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ১০০ বছর। তিনি রেখে গেলেন স্ত্রী ও দুই কন্যাকে।

সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে বসন্ত রাইজির মৃত্যুর খবর জানান তাঁর জামাই সু্দর্শন নানাবতি। তাঁর দেওয়া তথ্য অনুযায়ী রাত ২.৩০ নাগাদ ঘুমের মধ্যেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন প্রাক্তন রঞ্জি ক্রিকেটার। গত জানুয়ারিতেই সচিন তেন্ডুলকর ও স্টিভ ওয়াকে পাশে বসিয়ে শততম জন্মদিন পালন করেছিলেন তিনি।

ডানহাতি ব্যাটসম্যান রাইজি ১৯৪০-এর দশকে মুম্বই (তৎকালীন বম্বে) ও বরোদার হয়ে ৯টি ফার্স্ট ক্লাস ম্যাচ খেলেন। মোট ২৭৭ রান করেছেন তিনি। সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ইনিংস ৬৮ রানের।

১৯৪১ সালে বিজয় মার্চেন্টের নেতৃত্বে মুম্বই দলে অভিষেক হয় বসন্ত রাইজির। লালা অমরনাথ, সিকে নাইডু, বিজয় হাজারের মতো কিংবদন্তিদের সঙ্গে ড্রেসিংরুম শেয়ার করেছেন তিনি। পেশায় রাইজি ছিলেন একজন চাটার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট। খেলা ছাড়ার পর পরিসংখ্যানবিদ ও ক্রিকেট ঐতিহাসিক হিসেবেও পরিচিতি গড়ে তুলেছিলেন রাইজি।

দীর্ঘ ৮ দশক ধরে ভারতীয় ক্রিকেটকে দেখে আসা রাইজি ৮টি বই লেখেন মুম্বই তথা ভারতীয় ক্রিকেটের বিবর্তন নিয়ে। নিজের বিশ্বাস থেকেই কখনও দু'জন ক্রিকেটারের মধ্যে পারস্পরিক তুলনা টানতেন না রাইজি। তাঁর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড।

বন্ধ করুন