বাংলা নিউজ > ময়দান > ভারতে আয়োজিত হতে চলেছে ২০২৬ ব্যাডমিন্টন বিশ্বকাপের আসর
ব্যাডমিন্টন প্রতীকী চিত্র।
ব্যাডমিন্টন প্রতীকী চিত্র।

ভারতে আয়োজিত হতে চলেছে ২০২৬ ব্যাডমিন্টন বিশ্বকাপের আসর

  • ভারতে এই নিয়ে দ্বিতীয়বার বিশ্ব ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতার আসর বসছে।

শুভব্রত মুখার্জি

বিশ্ব ব্যাডমিন্টনের এই মুহূর্তে অন্যতম শক্তিধর দেশ ভারত। পুরুষ এবং মহিলা উভয় বিভাগেই ভারতকে অলিম্পিক পদক সহ একাধিক বিশ্ব পর্যায়ের খেতাব জেতানোর ক্ষমতা রাখেন পিভি সিন্ধু,সাইনা নেহওয়াল,পারুপল্লী কাশ্যপ,সাই প্রনয়রা। বলা যায় ভারতকে সেই 'সুপার পাওয়ার অফ ব্যাডমিন্টনের' সম্মান প্রদর্শন করেই ২০২৬ সালের ব্যাডমিন্টন বিশ্বকাপের আসর বসছে এই দেশের মাটিতে। 

এক সরকারি ঘোষণার মাধ্যমে ব্যাপারটি নিশ্চিত করা হয়েছে বিশ্ব ব্যাডমিন্টন ফেডারেশনের (বিডব্লুএফ) তরফে। উল্লেখ্য, ২০২৩ সালের সুধীরম্যান কাপের আয়োজন করার কথা ছিল ভারতের। এবছরের সুধীরম্যান কাপকে করোনার কারণে বাধ্য হয়ে ফিনল্যান্ডের,ভানতায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এই বছর করোনার কারনে বিডব্লুএফের কোন প্রতিযোগিতা চীনে আয়োজন করা সম্ভব হয়নি।

প্রসঙ্গত, ভারতে এই নিয়ে দ্বিতীয়বার বিশ্ব ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতার আসর বসছে। এর আগে ২০০৯ সালে হায়দরাবাদে ভারতের মাটিতে প্রথমবার আসর বসেছিল বিশ্ব ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়নশিপের। ব্যাডমিন্টন অ্যাসোসিয়েশান অফ ইন্ডিয়ার তরফে প্রেসিডেন্ট হিমন্ত বিশ্বশর্মা ভারতে এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করতে পারার সুযোগকে অত্যন্ত গর্বের অ্যাখ্যা দিয়েছেন। 

উল্লেখ্য মহিলা সিঙ্গেলস বিভাগে এই মুহূর্তের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন সিন্ধু। এছাড়াও এই প্রতিযোগিতায় তাঁর দুটি রুপো ও দুটি ব্রোঞ্জ জেতা হয়ে গিয়েছে। সাইনা ২০১৫ সালে রুপো এবং ২০১৭ সালে ব্রোঞ্জ জিতেছেন এই প্রতিযোগিতায়। সাই প্রনীতের হাত ধরে ২০১৯ সালে সুইজারল্যান্ডের বাসেলে ভারতের পুরুষ সিঙ্গেলস বিভাগের পদক জয়ের খরা কেটেছিল। এখন দেখার ২০২৬ সালে ঘরের মাঠে কতটা সফল হতে পারেন ভারতীয় শাটলাররা।

বন্ধ করুন