বড় খবর

Ind vs NZ 2nd ODI LIVE- কাজে এল না জাদেজা-সাইনির লড়াই, ২২ রানে হার ভারতের

নভদীপ সাইনি (ছবি সৌজন্য টুইটার @BCCI)
নভদীপ সাইনি (ছবি সৌজন্য টুইটার @BCCI)

সিরিজে ২-০ এগিয়ে গেল নিউ জিল্যান্ড। অর্থাৎ তিন ম্যাচের সিরিজ পকেটে পুরে নিলেন কিউয়িরা।

কাজে এল না রবীন্দ্র জাদেজা ও নভদীপ সাইনি মরণপণ চেষ্টা। শেষপর্যন্ত ২২ রানে হার স্বীকার করল ভারত। নিউজিল্যান্ডের ২৭৩ রানের জবাবে ২৫১ রানেই শেষ হয়ে গেল টিম ইন্ডিয়া।

৪৮.৩ ওভারে ২৫১-১০

আউট হলেন রবীন্দ্র জাদেজা। তাঁর দুরন্ত লড়াই কাজে এল না। জেমস নিশমের বলে আউট হন তিনি। ২২ রান হেরে তিন ম্যাচের সিরিজে ২-০ ব্যবধানে পিছিয়ে গেল ভারত।

৪৭.৫ ওভারে ২৫১-৯

আউট হলেন যুজবেন্দ্র চহাল। ১২ বলে ১০ রান করেন তিনি।

৪৪.৩ ওভারে ২২২-৭

ছয় মারার পরের বলেই আউট নভদীপ সাইনি। তার আগে ৪৯ বলে ৪৫ রানের দুরন্ত ইনিংস খেলেছেন ভারতের ফাস্ট বোলার। জাদেজার সঙ্গে তাঁর জুটির জন্যই ম্যাচে ফিরেছে ভারত। জেতার জন্য ভারতের চাই ৩৩ বলে ৪৫ রান।

৪৪ ওভারে ২২২-৭

৩৬ বলে জেতার জন্য ভারতের প্রয়োজন ৫২ রান। ক্রিজে রয়েছেন রবীন্দ্র জাদেজা ও নভদীপ সাইনি। ৬১ বলে ৪৩ রান করেছেন জাদেজা। ৪৭ বলে ৩৯ রান করেছেন সাইনি।

৩১.১ ওভারে ১৫৩-৭

আউট হলেন শার্দুল ঠাকুর। ১৫ বলে ১৮ রান করে কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমের বলে আউট হন তিনি।

২৭.৩ ওভারে ১২৯-৬

অর্ধশতরানের পরের বলেই আউট হলেন শ্রেয়স আইয়ার। বাজে শট নির্বাচনের মাসুল দিলেন তিনি। এদিন তাঁর সামনে হিরো হওয়ার সুযোগ ছিল। কিন্তু তা নষ্ট করলেন শ্রেয়স। ৫৭ বলে ৫২ রান করেন তি২০.৫ ওভারে ৯৬-৫

চার উইকেট পড়ে যাওয়ার পর তাঁর উপর ভরসা করেছিল টিম ইন্ডিয়া। কিন্তু সে আশা পূরণে ব্যর্থ হলেন কেদার যাদব। ২৭ বলে ন'রান করে প্যাভিলিয়নে ফিরলেন তিনি। তাঁকে আউট করেন সাউদি।

১৩.২ ওভারে ৭১-৪

প্যাভিলিয়নে ফিরলেন কে এল রাহুলও। দুরন্ত ফর্মে থাকা এদিন চার রানের বেশি করতে পারেননি। তাংকে আউট করেন কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম।

৯.৪ ওভারে ৫৭-৩

আউট হলেন বিরাট কোহলিও। ২৫ বলে ১৫ রান করেন তিনি। টিম সাউদির বলে বোল্ড হন কোহলি।

৫ ওভারে ৩৪-২

১৯ বলে ২৪ রান করে প্যাভিলিয়নে ফিরলেন পৃথ্বী শ। উইকেট পেয়েছেন কাইল জেমিসন।

২.৩ ওভারে ২১-১

পাঁচ বলে তিন রান করে আউট হলেন মায়াঙ্ক আগরওয়াল। হ্যামিশ বেনেটের বলে আউট হন তিনি।

------------------------------------------------------------------------------------

জেমিসনের সঙ্গে পার্টনারশিপে অপরাজিত ৭৬ রান করে নিউ জিল্যান্ডকে ভদ্রস্থ ২৭৩ রানের স্কোরে নিয়ে গেলেন রস টেলর। করলেন অপরাজিত ৭৩। যোগ্য সঙ্গত জেমিসনের (অপরাজিত ২৪)। একসময় যখন লাগছিল হয়তো ২২০-২৩০ রানেই শেষ হয়ে যাবে ব্ল্যাক ক্যাপসরা, সেখান থেকে অনেকটা দলকে এগিয়ে নিয়ে গেলেন টেলর। তবে ইনিংসের শুরুতে ২৭৪ টার্গেট চেজ করতে হবে, কেউ যদি কোহলিকে বলত, খুব অখুশি হতেন না তিনি।

এদিন শার্দুল ৬০ রানে দুটি ও চাহাল ৫৮ রানে তিনটি উইকেট নিয়েছেন।কিন্তু দশ ওভারে মাত্র ৩৫ রান দিয়ে এক উইকেট নিয়ে কিউয়িদের বেধে রাখেন জাদেজা। গাপটিল টপ স্কোরার ৭৯ রান করে।

৪২ ওভারে ২০২-৮ নিউ জিল্যান্ড

তিন রান করে চাহালের বলে মারতে গিয়ে আউট হলেন সাউথি। এই নিয়ে তিন উইকেট হয়ে গেল চাহালের।

৩৮ ওভারে ১৮৭-৭ নিউ জিল্যান্ড

আচমকাই ব্রেনফেড কিউয়িদের। সোজা বলে মিস টাইম করে কট অ্যান্ড বোল্ড হলেন চ্যাপম্যান (১)। ৫০ ওভার অবধি খেলাই এখন সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ নিউ জিল্যান্ডের কাছে।

৩৭ ওভারে ১৮৫-৬ নিউ জিল্যান্ড

ফের ডবল স্ট্রাইক। প্রথমে রান আউট হলেন নিশাম। ব্যাকওয়ার্ড পয়েন্টে ঠেলে দৌড়েছিলেন টেলর। নিশাম কিন্তু স্ট্রাইকার এন্ডে ফেরার আগেই জাডেজার থ্রোতে রান আউট মাত্র তিন রান করে।

কলিন গ্যান্ডহোম পুল শট মারতে গিয়ে টাইমিংয়ে ভুল করলেন। ছুটে এসে ভালো ক্যাচ শ্রেয়সের। মাত্র পাঁচ রান করলেন তিনি। সব দায়িত্ব এখন গত ম্যাচের হিরো টেলরের ওপর।

৩৩.১ ওভারে ১৭১-৪ নিউ জিল্যান্ড-

এবার আউট অধিনায়ক টম ল্যাথাম। জাডেজাকে সুইপ করতে গিয়ে উইকেটের সামনে বল লাগল পায়ে। আম্পায়ার আঙুল তুলতে দেরি করেননি। মাত্র সাত করেই আউট তিন।

৩০ ওভারে ১৫৯-৩ নিউ জিল্যান্ড-

পড়ল আরেকটা উইকেট। ৭৯ রান করে রান আউট গাপটিল। টেলরের সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝি। ভুল করেননি শর্ট থার্ডম্যানে ঠাকুর। মুহূর্তে রাহুলকে পাঠিয়েছিলেন বল। ক্রিজে পৌঁছাতে পারেননি গাপটিল।

২৬.৩ ওভারে ১৪২-২ নিউ জিল্যান্ড-

সাইনির হাতে শার্দুলের বলে ক্যাচ আউট হলেন নিকোলস। করেছিলেন ২২ রান। অন্যদিকে ৭৫ বলে ৭৪ রানে অপরাজিত গাপটিল। ক্রিজে এলেন রস টেলর।

২০ ওভারে ১০৮-১ নিউ জিল্যান্ড-

ভালো ফর্মে গাপটিল। ৫৩ বলে ৫৮ রানে নট আউট তিনি। চাহালের বলে এলবি হয়ে ফিরে গিয়েছেন নিকোলস। ক্রিজে এসেছেন ব্লানডেল। ভারতীয় বোলাররা আগের দিনের মতোই এদিন ছন্দ পাচ্ছেন না।

১০ ওভারে ৫২-০ নিউ জিল্যান্ড-

ইডেন পার্কে বড় রানের দিকে এগোচ্ছে নিউ জিল্যান্ড। প্রাথমিক জড়তা কাটিয়ে এবার হাত খুলে মারছেন কিউয়িরা। এমনকী বুমরাহকেও রেয়াত করছেন না তারা। দ্রুত উইকেট দরকার ভারতের।

৬ ওভারে ২৬-০ নিউ জিল্যান্ড-

ভালো শুরু করেছে কিউয়িরা। পিচে জান আছে। তাই খুব বেশি ঝুঁকি নিচ্ছেন না দুই ওপেনার। গাপটিল ১৩ ও নিকোলস ১২ রানে অপরাজিত।

প্রথম ওডিআইতে রেকর্ড রান তাড়া করে জিতে আত্মবিশ্বাস তুঙ্গে কিউয়িদের । অন্যদিকে, গত ম্যাচে খারাপ বোলিংকে পিছনে ফেলে জিততে মরিয়া কোহলির দল। অকল্যান্ডের ইডেন পার্কে ছোটো মাঠে রান রোখা মুস্কিল, এই যুক্তি দেখিয়ে টসে জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নিলেন চেজমাস্টার কোহলি।

প্রতিপক্ষ অধিনায়কও জানান যে তিনি জিতলেও একই সিদ্ধান্ত নিতেন। দুটি করে বদল করেছে দুই দল। শামিকে রেস্ট দিয়ে আজ সাইনিকে খেলাচ্ছে ভারত ও কুলদীপের পরিবর্তে খেলছে চাহাল। অন্যদিকে ইস সোধির জায়গায় আজ অভিষেক করছেন কাইল জেমিইসন। অন্যদিকে চোটের জন্য ছিটকে গেলেন মিচ স্যান্টনার। তার জায়গায় এসেছেন মার্ক চ্যাপম্যান।।ি।নি।

বন্ধ করুন